০৬ মার্চ ২০২১
`

এসএসসি পাস করার আগেই তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষ, অতঃপর ডাকাতি!

এসএসসি পাস করার আগেই তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষ, অতঃপর ডাকাতি! - ছবি : নয়া দিগন্ত

বগুড়ার গাবতলীতে রূপালী ব্যাংকে ডাকাতির চেষ্টায় জড়িত থাকার অভিযোগে এক স্কুল ছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জেলার গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের একটি দল শুক্রবার ভোরে গাজীপুর জেলার টঙ্গী থানার নিশাতনগর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। পুলিশের পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়ে বলা হয়, গ্রেফতারের পর ওই স্কুল ছাত্র ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে।

বগুড়া ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আব্দুর রাজ্জাক জানিয়েছেন, আসামি বগুড়ার একটি স্কুল থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিবে। তথ্য প্রযুক্তিতে অত্যন্ত দক্ষ ওই শিক্ষার্থী পড়ালেখার পাশাপাশি স্কাউটিংও করে। তবে তার বয়স ১৮ বছরের নিচে হওয়ায় আইন অনুযায়ী আমরা তার নাম ও পরিচয় প্রকাশ করতে পারছি না।

বগুড়া ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আব্দুর রাজ্জাক জানিয়েছেন, রূপালী ব্যাংকে ডাকাতির চেষ্টার পর প্রযুক্তির সহায়তায় ওই ঘটনায় জড়িত স্কুল ছাত্রকে গাজীপুরের টঙ্গীর নিশাতনগর থেকে গ্রেফতার করা হয়। শুক্রবার ভোরে গ্রেফতারের পর তাকে ওই দিন বিকেলে বগুড়ার গাবতলীর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নেয়া হয়। সেখানেই সে ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দী দেয়।

তিনি বলেন, ‘গ্রেফতার ওই স্কুল ছাত্র তথ্য প্রুক্তিতে খুবই দক্ষ। সে একাই ডাকাতির চেষ্টা করেছে। ব্যাংকে হানা দেয়ার সময় সে অনেক অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহার করেছিল। আর নৈশপ্রহরীকে ছুঁড়ে মারা রাসায়নিক দ্রব্যও সে নিজে তৈরি করেছে বলে দাবি করেন তিনি।

উল্লেখ্য, গত ৫ জানুয়ারি ভোরে বগুড়ার গাবতলী উপজেলার সাবেক পাড়া এলাকায় রূপালী ব্যাংকে ডাকাতির চেষ্টা চালানো হয়। তবে নৈশ প্রহরী হিসেবে কর্তব্যরত দুই আনসার সদস্যসের বাধার কারণে ব্যাংকের কোনো টাকা পয়সা খোয়া যায়নি। অবশ্য দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাত এবং নিক্ষেপ করা রাসায়নিক পদার্থে আনসার সদস্য মাসুদ রানা ও হাবিবুর রহমান আহত হন। পরে আহত এক আনসার সদস্য ওই দুর্বৃত্তকেও ছুরিকাঘাত করেন।



আরো সংবাদ