২৯ মার্চ ২০২০

সিরাজগঞ্জে ভারতীয় মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত : ৬ ঘন্টা পর যোগাযোগ চালু

-

সিরাজগঞ্জে ঢাকা-ঈশ্বরদী রেলপথে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত হওয়ায় ঢাকার সাথে উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়ে। সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত প্রায় ৬ ঘন্টা ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেল স্টেশনে এলাকায় মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। উদ্ধারকারী রিলিফ ট্রেন এসে সোয়া দুই ঘণ্টা উদ্ধার চেষ্টার পর দুপুর সোয়া ২টার পর ঢাকা-ঈশ্বরদী রেলপথে রেল চলাচল স্বাভাবিক হয়।

যশোর থেকে ঢাকাগামী ভারতীয় মালবাহী ট্রেন বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম পাড়ে পৌঁছে। এসময় ট্রেনটি সানটিং করার সময় ইঞ্জিনসহ দু’টি বগি লাইনচ্যুত হয়।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় প্রকৌশলী-২ আব্দুর রহিম এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ঈশ্বরদী থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম পাড়ে যাওয়ার পথে পণ্যবাহী ট্রেনটি ঘটনাস্থলে পৌঁছালে এর দু’টি বগি লাইনচ্যুত হয়।

পশ্চিমাঞ্চল রেল বিভাগ পাকশীর বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) আসাদুল হক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। পাশাপাশি দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে বলেও তিনি জানান।

বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম থানার ওসি সৈয়দ সহিদ আলম জানান, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ভারতীয় মালবাহী ট্রেনটি লাইনচ্যুত হওয়ায় ঢাকার সাথে উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রেলের একটি সূত্র জানান, ঢাকা মেট্রো রেলের মালামাল বোঝাই যশোর থেকে ঢাকাগামী ভারতীয় মালবাহী একটি ট্রেন সিরাজগঞ্জ বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেল স্টেশন এলাকায় মালামাল আনলোড করে। ট্রেনটিতে ৩০টি বগি ছিল। মালামাল আনলোড করার পর ৩নং লাইন থেকে ৫নং লাইনে ট্রেনটি সানটিং করার জন্য প্রস্তুতি নেয়। এসময় স্টেশন মাস্টারের ভুল সিগনালের কারণে ওই মালবাহী ট্রেনের ইঞ্জিনসহ বিএফআর/বিএফটি নামক ২২ ও ২৩ নং দু’টি বগি লাইনচ্যুত হয়।

তবে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেল স্টেশন মাস্টার ইসমাইল হোসেনকে জিজ্ঞেস করা হলে ভুল সিগনালের কথা এড়িয়ে গিয়ে বলেন, কোন কারণে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়েছে তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

এদিকে, মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত হওয়ায় বঙ্গবন্ধু সেতুর উভয় দিকে ধুমকেতুসহ কমপক্ষে আটটি ট্রেন আটকা পড়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েন বিপুলসংখ্যক মানুষ।

এদিকে, লাইনচ্যুত ট্রেনটি উদ্ধারে পাকশী থেকে একটি রিলিফ ট্রেন দুপুর ১২টায় দুর্ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করে। টানা সোয়া দুই ঘন্টা চেষ্টার পর উদ্ধার কাজ শেষে ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের রেল যোগাযোগ পুনরায় শুরু হয়। সকাল ৬টার নির্ধারিত সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি ২টা ২০ মিনিটের সময় ঢাকা অভিমুখে যাত্রা শুরু করে। এরপর ধুমকেতুসহ অন্যান্য ট্রেন গন্তব্যস্থলের দিকে রওনা হয়।


আরো সংবাদ