২৯ মার্চ ২০২০

মান্দায় অপহরণের ১২ দিন পর স্কুলছাত্রী উদ্ধার

-

নওগাঁর মান্দায় অপহরণের ১২ দিন পর অবশেষে উদ্ধার করা হয়েছে স্কুলছাত্রীকে (১৪)। শুক্রবার সকালে ঢাকা থেকে অপহরণকারী ইমরান আলীসহ তাকে উদ্ধার করা হয়। এদিকে ঘটনাটিকে এলাকার প্রভাবশালী একটি মহল মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ধামাচাপা দিতে ও ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ৯ মার্চ প্রাইভেট থেকে ফিরছিল ওই ছাত্রী। পথিমধ্যে পথ রোধ করে দাঁড়ায় উপজেলার মান্দা সদর ইউনিয়নের ভোলাম গ্রামের আবদুস ছাত্তার শাহ’র ছেলে ও তিন সন্তানের জনক ইমরান আলী। অষ্টম শ্রেণীর ওই ছাত্রীকে জোর করে পানীয় জাতীয় কিছু পান করানোর চেষ্টা করে। ব্যর্থ হয়ে মুখে পানি ছিটিয়ে অজ্ঞান করে তাকে নিয়ে লাপাত্তা হয়ে যায় ইমরান আলী।

অনেক খোঁজাখুঁজি করে মেয়ের কোনো সন্ধান পায়নি পরিবার। পরে মেয়ের দাদা ইদ্রিস আলী মান্দা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। মেয়েটিকে অপহরণ করে ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয়েছে বলে পরিবারের লোকজন অভিযোগ করেছেন।

এদিকে অপহরণের পর উদ্ধার হওয়া ওই ছাত্রী বাড়ি এসে অপবাদ ও নানারকম কটু কথা সহ্য করতে না পেরে শুক্রবার দুপুরে সবার অজান্তে বিষ পান করে। পরিবারের লোকজন জানতে পেরে তাকে উদ্ধার করে মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছেন। বর্তমানে মেয়েটির অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মান্দা থানার পরিদর্শক মোজাফফর হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা ঘটনাটি জেনেছি। মেয়েটি চিকিৎসাধীন রয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ