২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

অনলাইনে গরু ছাগলের হাট

-

কোরবানির এ সময়ে পশু কেনা, পশু পছন্দ করতে হাটে যাওয়াসহ নানা কারণেই প্রচণ্ড ভিড় ও ব্যাপক মানুষের সমাগম ঘটে। ক্রেতা ও বিক্রেতাদের গরু-ছাগল নিয়ে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে হাটে অবস্থান করা, বিক্রির টাকার নিরাপত্তাসহ রয়েছে নানা সমস্যা। এবারের করোনা পরিস্থিতিতে সংক্রমণের ঝুঁঁকি এড়াতে কোরবানির হাট মাঠে নয়- অনলাইনে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। অনলাইনে গরু ছাগলের হাট নিয়ে লিখেছেন মামুন আল করিম।
ঈদুল আজহার আর কয়েক দিন বাকি থাকলেও করোনাভাইরাসের কারণে গরুর হাটে যেতে অনেকের অনীহা রয়েছে। ঢাকা, চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ এবং গাজীপুরে যাতে কোনো ধরনের পশুর হাট বসানো না হয়- সেজন্য জোরালো পরামর্শ দিয়েছে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটি। বয়স্ক, শিশু ও অসুস্থদের হাটে না যাওয়ার জন্যও পরামর্শ দিয়েছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। আর এই সমস্যার সমাধানে এগিয়ে এসেছে অনলাইন শপ। ঘরে বসেই ওয়েবসাইটে ঠুকে পছন্দ করা যাচ্ছে নানা দামের কোরবানির পশু।

সরকারের ‘ডিজিটাল হাট’
করোনাভাইরাস মহামারীকালে কোরবানির পশু কেনাবেচার অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ‘ডিজিটাল হাট’ গত শনিবার যাত্রা শুরু করেছে। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে কোরবানির পশু বিক্রির অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ‘ডিজিটাল হাট’ চালু হয়েছে। করোনা সংক্রমণ মোকাবেলায় উত্তর সিটি করপোরেশনের সাথে সরকারের তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ ডেইরি ফার্ম অ্যাসোসিয়েশন যৌথভাবে এই ডিজিটাল হাট বাস্তবায়ন করছে। ডিজিটাল হাট প্ল্যাটফর্মের ঠিকানা (ফরমরঃধষযধধঃ.হবঃ)।
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানিয়েছেন, মহামারীকালে সংক্রমণ প্রতিরোধে ক্রেতা-বিক্রেতাদের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপনে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। অনলাইনে ক্রেতাদের আগ্রহ বাড়ছে। অনলাইনে বেশি দাম হাঁকার অভিযোগের বিষয়ে পলক বলেন, এখানে অভ্যাসটা তৈরি করতে হবে। ব্যবসায়ীদের বলা হয়েছে, তারা যেন অযৌক্তিক দাম না বলেন, তাহলে ক্রেতা পাবেন না। কারণ বিকল্প হিসেবে তাদের হাট রয়েছে।
ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ই-ক্যাব) সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াহেদ তমাল জানিয়েছেন, ই-কমার্স সদস্যদের মাধ্যমে পশু কিনলে ক্রেতারা নিশ্চয়তা পাচ্ছেন এবং পশুর স্বাস্থ্য নিশ্চিত করেই বিক্রি করা হবে। এখানে প্রতারণার কোনো সুযোগ নেই। দাম বেশি রাখার কোনো সুযোগ নেই, খুব কম লাভে ই-কমার্স সাইটগুলো গরু বিক্রির উদ্যোগ নিয়েছে। সম্প্রতি যাত্রা শুরু করা ‘ডিজিটাল হাট’-এ বর্তমানে আটটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান পশু বিক্রি শুরু করলেও কয়েক দিনের মধ্যে ৫০টি প্রতিষ্ঠান বিক্রি শুরু করবে। এ হাট থেকে গরু কিনলে ঢাকা মহানগরের ভেতর গরুর ডেলিভারি চার্জ ২ হাজার ৫০০ টাকা এবং খাসির ক্ষেত্রে ৫০০ টাকা। গরু বা খাসি অর্ডারের ক্ষেত্রে ১০% অগ্রিম পরিশোধ প্রযোজ্য, বাকি ৯০% পেমেন্ট ডেলিভারির সময় নেয়া হবে। ক্যান্সেল করলে ১০% অগ্রিম পেমেন্ট ফেরতযোগ্য নয় বলেও জানান তমাল।

গরুহাট ডটকম
ঘরে বসেই গরুহাট থেকে পরিবারের সব সদস্যকে দেখিয়েই কিনতে পারবেন এবারের কোরবানির পশুটি। এরই পরিপ্রেক্ষিতে কোরবানির পশু কেনাবেচার জন্য ক্রেতা-বিক্রেতা উভয়ের জন্য সুবিধাজনক পরিস্থিতি সৃষ্টি করবে ‘গরুহাটডটকম (এড়ৎঁঐধধঃ.পড়স)। প্রান্তিক খামারিদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা গরু ও ছাগল দিয়ে অনলাইন কোরবানি হাটে সাজিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটি। গরুহাট থেকে কেউ কোরবানির পশু কিনলে সেটি বাড়ি পৌঁছে দেয়ার প্রতিশ্র“তি দেয়া হয়েছে এই প্রতিষ্ঠান থেকে। কেনার পর বাসায় নিয়ে যাওয়ার ঝক্কিও পোহাতে হবে না ক্রেতাকে। ইতোমধ্যে কোন কোন গরু বিক্রি করা হবে, সেগুলো ঠিক করা হয়েছে।এখানে পশুর ছবিসহ দাম, উচ্চতা ও ওজন দেয়া আছে।
এই বিষয়ে গরুহাট ডটকম-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহীন বলেন, করোনাভাইরাস আমাদের স্বাভাবিক কাজকে স্থির করে দিয়েছে, কিন্তু কাজকে তো আর থামিয়ে রাখা যাবে না, ভাবতে হবে সঠিক সমাধান। ঝুঁকি নিয়ে হাটে না গিয়ে মানুষ যেন ঘরে বসেই কোরবানির সবকিছু করতে পারে তাই আমাদের এই অনলাইন হাটের আয়োজন। যারা অনলাইনে আমাদের কাছ থেকে অর্ডার দেবেন আমরা সঠিক সময়ের মধ্যেই ক্রেতার বাসায় কোরবানির পশু পৌঁছে দেবো। ক্রেতা চাইলেই আমরা ইসলামী শরিয়ার সব নিয়মনীতি মেনে গরু/ছাগল কোরবানি করে গোশত প্যাকেট করে বাসায় পৌঁছে দেবো।

দেশীগরুবিডি ডটকম
কোরবানি পশুর ভার্চুয়াল হাটের আয়োজন করেছে দেশীগরুবিডি ডটকম (যঃঃঢ়://ফবংযরমড়ৎঁনফ.পড়স)। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী টিটো রহমান বলেন, দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে সম্পূর্ণ অর্গানিক গরু আমরা সংগ্রহ করছি। যারা বুকিং দিচ্ছেন, ঈদের দু’দিন আগে তাদের বাসায় গরু পৌঁছে দেয়া হবে। গ্রাহকদের সুবিধার্থে দেশীগরুবিডি ডটকমে গরুর দামের ৫০ ভাগ অগ্রিম দিয়ে বুকিং দিলে গরু ডেলিভারি দেয়ার সময় অবশিষ্ট টাকা দিয়ে গরু বুঝে নিতে পারবেন। তিনি দাবি করেন, দেশীগরুবিডি ডটকম প্ল্যাটফর্মে অসংখ্য দেশী গরু আছে, এতে গ্রাহক তার সাধ আর সাধ্যের মধ্যে কিনতে পারেন।

বেঙ্গল মিট
বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে হাটে গিয়ে গরু কেনার স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা মাথায় রেখে নিশ্চিন্তে নিরাপদ ও পরিচ্ছন্ন কোরবানির প্রতিজ্ঞা নিয়ে টানা ষষ্ঠবারের মতো দেশের সর্ববৃহৎ অনলাইন কোরবানির হাটের আয়োজন করেছে বেঙ্গল মিট। যঃঃঢ়ং://য়ঁৎনধহর.নবহমধষসবধঃ.পড়স সাইট থেকে ক্রেতারা সহজেই স্টেরয়েড, এফএমডি, এনথ্রাক্স ও গ্রোথ হরমোনমুক্ত সম্পূর্ণ নিরাপদ ও সুস্থ কোরবানির গরু কিনতে পারবেন। এছাড়াও উন্মুক্ত স্থানে কোরবানি ও স্বাস্থ্যকর পরিবেশে প্রসেসিংয়ের পরিষেবায় গ্রাহকদের জন্য রয়েছে হালাল কোরবানি ও বিশ্বমানের নিরাপদ খাদ্য নীতিমালা অনুযায়ী গোশত প্রসেসিং এবং ডোর-স্টেপ ডেলিভারি সুবিধা।


আরো সংবাদ

সীমান্তে মাইন, মুংডুতে ৩৪ ট্যাংক (১০০৯৮)কেন বন্ধু প্রতিবেশীরা ভারতকে ছেড়ে যাচ্ছে? (৭৭১৩)সৌদি রাজতন্ত্রকে চ্যালেঞ্জ করে সৌদি আরবে বিরোধী দল গঠন (৭৪৪২)৫৪,০০০ রোহিঙ্গাকে পাসপোর্ট দিতে সৌদি চাপ : কী করবে বাংলাদেশ (৪৯৩৫)কাশ্মিরিরা নিজেদের ভারতীয় বলে মনে করে না : ফারুক আবদুল্লাহ (৪৩৪০)ঐক্যবদ্ধ হামাস-ফাতাহ, ১৫ বছর পর ফিলিস্তিনে ভোট (৪০৯১)আ’লীগ দলীয় প্রার্থী যোগ দিলেন স্বতন্ত্র এমপির সাথে (৪০৬৯)শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া ১৫ দিন পর এইচএসসি পরীক্ষা (৩৭৮৩)কক্সবাজারের প্রায় ১৪০০ পুলিশ সদস্যকে একযোগে বদলি (৩৬৪৭)বিরাট-অনুস্কাকে নিয়ে কুৎসিত মন্তব্য গাভাস্কারের, ভারত জুড়ে তোলপাড় (৩৬১২)