২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

সিইএসের চমক

-

প্রতিবছর কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকস শো (সিইএস) প্রদর্শনী থেকেই ধারণা পাওয়া যায়, বছরজুড়ে প্রযুক্তিপণ্যের হালচাল কেমন হবে। বিশ্বজুড়ে প্রযুক্তি জগতের ব্যবসায়ী, উদ্ভাবক, শীর্ষ কর্মকর্তা, নীতিনির্ধারক, বিশ্লেষকদের মিলনমেলা বসে এই আয়োজনে। ৭ থেকে ১০ জানুয়ারি এবারের সিইএস আসর বসেছিল যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে। এবারের মঞ্চে নতুন প্রযুক্তিপণ্য দর্শনার্থীদের নজর কেড়েছে।
স্মার্ট টুথব্রাশ
এবারের সিইএস মঞ্চে নতুন দুটি স্মার্ট টুথব্রাশ এনেছে ওরাল-বি ও কোলগেট। ওরাল-বির স্মার্ট টুথব্রাশটির নাম ওরাল-বি আইও। এটি একবার চার্জ দিয়ে ১২ দিনের বেশি একনাগাড়ে ব্যবহার করা যাবে। স্মার্ট টুথব্রাশটিতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) ব্যবহার করা হয়েছে, যা দাঁতের সর্বোচ্চ সুরক্ষা নিশ্চিতে ব্যবহারকারীকে সহায়তা করবে। পণ্যটির দাম ২২০ ডলার। অন্য দিকে, কোলগেটের পণ্যটির নাম প্লাগলেস প্রো। আপনার দাঁত কতটা পরিষ্কার তা সাফ জানিয়ে দিতে পারবে কোলগেটের তৈরি ‘প্লাগলেস প্রো’ স্মার্ট ইলেকট্রিক টুথব্রাশ। ব্রাশটিতে ক্ষুদ্রাকৃতির একটি সেন্সর আছে।
ল্যাপটপ
টেক জায়ান্ট আসুস নতুন একটি গেমিং ল্যাপটপ প্রদর্শন করেছে। আরওজি জেফ্রাস জি১৪ মডেলের এ ল্যাপটপ ১৭ দশমিক ৯ মিলিমিটার পাতলা। ওজন ১ দশমিক ৬ কেজি। ফলে এটি সহজেই বহন করা যাবে। এতে ব্যবহার করা হয়েছে সর্বাধুনিক এলইডি প্রযুক্তি। বছরের মাঝামাঝি সময়ে ল্যাপটপটি কিনতে পারবেন ক্রেতারা। প্রাথমিকভাবে সাদা ও ধূসর এ দুটি রঙে পাওয়া যাবে আরওজি জেফ্রাস জি১৪।
এবারের আসরের দ্বিতীয় দিন দুটি বিশেষ মডেলের ল্যাপটপ প্রদর্শন করেছে ডেল। দুটি মডেলই ফোল্ডেবল বা ভাঁজ করা যায়। একটির নাম ডেল কনসেপ্ট ওরি। এটা অনেকটাই লেনোভোর ফোল্ডিং ল্যাপটপের মতো। রয়েছে হাই রেজুলুশনের ফোল্ডিং ওএলইডি ডিসপ্লেযুক্ত ১৩ ইঞ্চির পর্দা। অন্য ডিভাইসটির নাম ডেল কনসেপ্ট ডুয়েট। এটির পর্দার মাপ ১৩ দশমিক ৪ ইঞ্চি। দুটো মডেলের ল্যাপটপেই টাচ-বেজড কিবোর্ড যুক্ত করেছে ডেল। জুলাই-ডিসেম্বর মাসে এ দুটি মডেলের ল্যাপটপ বাজারে ছাড়া হতে পারে।
ক্রোমবুক
প্রথমবারের মতো গ্যালাক্সি সিরিজের ক্রোমবুক প্রদর্শন করেছে স্যামসাং। সিইএস মঞ্চে দক্ষিণ কোরীয় টেক জায়ান্ট স্যামসাংয়ের পণ্যটি নিয়ে আগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি। গ্যালাক্সি ক্রোমবুকে ১৩ দশমিক ৩ ইঞ্চির অ্যামোলেড টাচস্ক্রিন ডিসপ্লে যুক্ত করেছে স্যামসাং। রয়েছে দশম প্রজন্মের ইন্টেল কোর আই-৫ প্রসেসর। ডিভাইসটি ৯ দশমিক ৯ মিলিমিটার পাতলা। ফলে ক্রোমবুকটি দেখতে বেশ আকর্ষণীয়। রয়েছে এস পেন। ওজন ১ দশমিক শূন্য ৪ কেজি। চলতি বছরের জানুয়ারি-মার্চ মাসের মধ্যে পণ্যটি বাণিজ্যিকভাবে বাজারে আসতে পারে। দাম হতে পারে ৯৯৯ ডলার।
ডিএসএলআর ক্যামেরা
এবার ক্যামেরা ক্যাটাগরিতে আলোচনার জন্ম দিয়েছে জাপানি কোম্পানি নিকন। ফটোগ্রাফারদের কাছে বিশ্বের জনপ্রিয় প্রতিষ্ঠান নিকন প্রদর্শন করেছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির নিকন ডি৭৮০ ফুল ফ্রেম ডিএসএলআর ক্যামেরা। এতে যুক্ত করা হয়েছে অন-সেন্সর ফেস ডিটেকশন অটোফোকাস (পিডিএএফ) প্রযুক্তি। রয়েছে ২৪ দশমিক ৫ মেগাপিক্সেল বিএসআই সিএমওএস সেন্সর ও নিকন এক্সপিড ৬ ইমেজ প্রসেসর, যা ছবিতে মুখমণ্ডল ও চোখকে আরো নিখুঁতভাবে শনাক্ত করতে পারবে। রয়েছে ৪কে ভিডিও প্রযুক্তি। লেন্সসহ একেকটি নিকন ডি৭৮০ ডিএসএলআর ক্যামেরা কিনতে ক্রেতাদের পাঁচ হাজার ডলারের বেশি গুনতে হবে। এছাড়া নিকন নিয়ে এসেছে জেড-মাউন্ট ও এফ-মাউন্ট নামের নতুন দুটি লেন্স।
ইলেকট্রিক গাড়ি
সিইএস আসরের প্রথম দিন ল্যাপটপ, স্মার্টটিভি, ক্যামেরা নিয়ে আলোচনা তুঙ্গে থাকলেও দ্বিতীয় দিন আলোচনার কেন্দ্রে উঠে এসেছে ইলেকট্রিক গাড়ি। এদিন জাপানি জায়ান্ট সনি ও জার্মান প্রতিষ্ঠান মার্সিডিজ বেঞ্জ দুটি ইলেকট্রিক গাড়ির মডেল মঞ্চে প্রদর্শন করেছে। ভিশন-এস নামের ইলেকট্রিক গাড়ির এ মডেল নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছে সনি। এটি কোম্পানিটির আইকনিক প্রজেক্ট বলা যায়। এ মডেলে গাড়ির সর্বাধুনিক প্রযুক্তি যুক্ত করেছে সনি। রয়েছে ৩৬০ ডিগ্রি সাউন্ড সিস্টেমসহ অসংখ্য স্মার্ট ফিচার। অন্য দিকে মার্সিডিজের ইলেকট্রিক গাড়িতে রয়েছে অনবদ্য লাইটিং ফ্যাসিলিটি। চলতি বছরের কোনো একসময় এ দুটি ইলেকট্রিক গাড়ি বাজারে ছাড়তে পারে সনি ও মার্সিডিজ।
পাওয়ারবাডস
চীনা জায়ান্ট শাওমির নতুন সংযোজন অ্যামাজফিট পাওয়ারবাডস। এ পণ্যটি এবারের সিইএস আসরে নজর কেড়েছে। এটি দিয়ে গান শোনার পাশাপাশি ফোন কল রিসিভ করা যাবে। একই সাথে হার্টরেট যাচাইয়ের সুবিধা রয়েছে এ পাওয়ারবাডসে। ব্যবহারকারীর হৃদস্পন্দন হঠাৎ করে কমে কিংবা বেড়ে গেলে এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে নোটিফিকেশন প্রদান করবে। এতে আইপি৫৫ ওয়াটার ও ডাস্ট রেজিস্টেন্স প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। রয়েছে ৪৫০ এমএএইচ ব্যাটারি। ফলে একবার চার্জ পূর্ণ করে এ পরিধেয় প্রযুক্তি পণ্যটি একনাগারে ৮ ঘণ্টা ব্যবহার করা যাবে। তবে অ্যামাজফিট পাওয়ারবাডস কবে নাগাদ বাজারে পাওয়া যাবে কিংবা দাম কত হবে এসব ব্যাপারে ধারণা দেয়া হয়নি। কালো, হলুদ ও সাদা এ তিন রঙের থ্রিডি প্যাটার্নের পাওয়ারবাডস প্রদর্শন করেছে কোম্পানিটি।
স্মার্টওয়াচ
সিইএস আসরে নতুন স্মার্টওয়াচ দিয়ে নজর কেড়েছে চীনা কোম্পানি শাওমি। অ্যামাজফিট টি-রেক্স নামের এ পরিধেয় প্রযুক্তি পণ্যটি সর্বোচ্চ ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে সর্বনি¤œ মাইনাস ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে। এর গোলাকৃতি ডায়াল, জলপাই রঙের মেটালের আর্মি আউটলুক স্মার্টওয়াচটির প্রতি মানুষের মনোযোগ কেড়েছে।
এতে রয়েছে ১ দশমিক ৩ ইঞ্চির অ্যামোলেড ডিসপ্লে। রয়েছে গরিলা গ্লাস ৩ প্রটেকশন। স্মার্টওয়াচটিতে যুক্ত করা হয়েছে ৫এটিএম ওয়াটার রেজিস্ট্যান্স সুবিধা। এ সুবিধা পানির ৫০ মিটার পর্যন্ত গভীরে গিয়েও কার্যকর থাকবে। স্মার্টওয়াচটিতে ৩৯০ এমএএইচ ব্যাটারি যুক্ত করা হয়েছে। ফলে একবার চার্জ পূর্ণ করলে টানা ২০ দিনের বেশি ব্যবহার করা যাবে।
গেমিং ডিভাইস
সিইএস আসরের দ্বিতীয় দিনে প্রদর্শন করা হয়েছে প্লেস্টেশন ৫ গেমিং ডিভাইস। পণ্যটি প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় দিন দর্শকদের মনোযোগ কেড়েছে জাপানি ইলেকট্রিক পণ্য নির্মাতা সনি। এ গেমিং ডিভাইসটি সনির প্লেস্টেশন ৪ ডিভাইসের আধুনিক সংস্করণ। এতে ৮কে গেমিংয়ের অনুভূতি পাবেন ব্যবহারকারীরা। আরো রয়েছে দ্রুতগতির এসএসডি। এ প্লেস্টেশনটি ব্যবহারের জন্য এইট-কোর সিপিইউ প্রয়োজন হবে। চলতি বছরের মাঝামাঝি সময়ে প্লেস্টেশন ৫ গেমিং ডিভাইসটি বাজারে পাওয়া যেতে পারে।
ফাইভজি চিপসেট
মিড রেঞ্জের ফোনের জন্য ফাইভজি চিপসেট উন্মোচন করেছে তাইওয়ানিজ প্রতিষ্ঠান মিডিয়াটেক। ‘ডাইমেনসিটি ৮০০’ সিরিজের চিপসেটটিতে ফাইভজির শক্তিশালী সিস্টেম অন চিপ বা এসওসিএস দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।


আরো সংবাদ