০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ন ১৪২৯, ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

ইভিএমের পক্ষে অবস্থান নিলেন রওশন এরশাদ

রওশন এরশাদ - ছবি : সংগৃহীত

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিরোধিতাসহ বিভিন্ন বিষয়ে সরকারের কঠোর সমালোচনা করছে জাতীয় পার্টি (জাপা)। তবে দলের প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ হঠাৎ করেই ইভিএম নিয়ে সরকার ও নির্বাচন কমিশনের পক্ষে অবস্থান নিলেন।

থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে চিকিৎসাধীন রওশন এক ভিডিও বার্তায় বলেছেন, সারা বিশ্বে ইভিএমে নির্বাচন চলছে। তিনিও ইভিএমের মাধ্যমে নির্বাচন করবেন।

রওশনের ধারণ করা ভিডিও বার্তাটি গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর পুরানা পল্টনের একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে প্রচার করেন তার অনুসারীরা।

এর আগে গত ৩০ আগস্ট রওশন নিজেকে জাপার সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক ঘোষণা করেন, যা দলে ব্যাপক বিতর্ক ও বিভক্তির সৃষ্টি করেছে। এর জের ধরে তাকে জাতীয় সংসদে বিরোধীদলীয় নেতার পদ থেকে সরিয়ে উপনেতা জি এম কাদেরকে স্থলাভিষিক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয় জাপার সংসদীয় দল। এ সিদ্ধান্ত ১ সেপ্টেম্বর স্পিকারকে জানায় জাপা। তবে মাস পার হয়ে গেলেও সেটি এখনো কার্যকর হয়নি। এর মধ্যেই ভিডিও বার্তায় রওশন জানান, তিনি এখন ‘অনেকটা সুস্থ’, চলতি অক্টোবর মাসেই দেশে ফিরবেন।

রওশন ব্যাংককের হাসপাতাল থেকে গণমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে আগামী ২৬ নভেম্বর জাপার যে সম্মেলন আহ্বান করেছেন, সে বিষয়ে কথা বলতে তার রাজনৈতিক সচিব গোলাম মসীহ গতকাল সংবাদ সম্মেলন করেন। এতে জাপার সাবেক নেতা দেলোয়ার হোসেন খান, এস এম এম আলম, জিয়াউল হক মৃধা, এম এ গোফরান, জাফর ইকবাল সিদ্দিকী, নুরুল ইসলাম, ফখরুজ্জামান জাহাঙ্গীর, ইকবাল হোসেন ও কাজী মামুনুর রশীদ উপস্থিত ছিলেন। এসব নেতার কেউই অনেক দিন ধরে জাপার কোনো পদে নেই।

ব্যাংককে চিকিৎসাধীন রওশন এরশাদ ভিডিও বার্তায় বলেছেন, ‘আগামী নির্বাচন অবশ্যই করব। জাতীয় পার্টি কখনো নির্বাচন বর্জন করে নাই। ইভিএম হলেও নির্বাচন করব। সারা বিশ্বে এখন ইভিএমে নির্বাচন চলছে। আমাদের দেশে ইভিএমে (নির্বাচন) হবে, এটা তো নতুন কথা নয়। অবশ্যই ইভিএমের মাধ্যমে নির্বাচন করব।’

আগামী নির্বাচন প্রসঙ্গে রওশন এরশাদ বলেন, ‘আমি জানি, নির্বাচন দেয়া হবে, ভালো নির্বাচন হবে এবং দেশটা এগিয়ে যাওয়ার জন্য তারা কাজ করবে- যারা জিতে আসবে। দেশবাসী নিশ্চয়ই ভালো থাকবে।’

যদিও জি এম কাদেরের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি ইভিএমে ভোট গ্রহণের বিষয়ে বিরোধিতা করে আসছে। গতকালও ইভিএম নিয়ে ভয়ের কথা জানান জাপার চেয়ারম্যান জি এম কাদের। লালমনিরহাটে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ইভিএম মেশিনের ভোটকে আস্থায় নেয়া সম্ভব নয়। ইভিএমে ভোট চুরির আশঙ্কা আছে। কারণ, ইভিএম মেশিনের পেছনে যারা কাজ করবেন, তারা সরকারের নির্দেশের বাইরে যেতে পারবেন না। সরকার যে ধরনের চাইবে, সে ধরনের ফলাফল তারা প্রকাশ করার চেষ্টা করতে পারে।’


আরো সংবাদ


premium cement
‘প্যাকেজিং-ফিনিশিংয়ে দক্ষতার নতুন মাত্রা তৈরি করেছে উত্তরণ’ বেলজিয়ামের দুর্দশা, আছে কঠিন সমীকরণ ফ্রান্সে হিজাব পরা নারীকে রেস্টুরেন্টে প্রবেশে বাধা, মালিকের জরিমানা লালমোহনে নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা আশুলিয়ায় পাওনা পরিশোধের দাবিতে শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি বেলজিয়ামকে হারাতে আত্মবিশ্বাসী ক্রোয়েশিয়ান কোচ সুনামগঞ্জে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের মোটরসাইকেল শোডাউন আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী তাপমাত্রা হ্রাস পেতে পারে ৯৪ বার পেছাল সাগর-রুনির তদন্ত প্রতিবেদন রসিক নির্বাচনে মেয়র পদে ১০ জনের মনোনয়ন বৈধ ঘোঘণা আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ফুটবলের রাজা

সকল