২০ আগস্ট ২০২২
`

থাইল্যান্ডের চিকিৎসাধীন সময় পার্টির কেউ আমার খোঁজ নেয়নি : রওশন এরশাদ

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন রওশন এরশাদ। - ছবি : নয়া দিগন্ত

সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ বলেছেন, দীর্ঘ ছয় মাস আমি থাইল্যান্ডের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলাম। এ সময় পার্টির কেউ খোঁজ নেয়নি। আজকে যারা এই সভায় উপস্থিত হয়েছেন তারাই পার্টির প্রকৃত নেতাকর্মী। আজ পল্লীবন্ধু এরশাদ নেই। উনি থাকলে পার্টি অন্যরকম হতো। উনি নেই, তাই জাতীয় পার্টি আজ এলোমেলো হয়ে গেছে।

শনিবার দুপুরে গুলশানের ওয়েস্টিন হোটেলে পার্টির বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদেরসহ শীর্ষনেতাদের দাওয়াত করা হলেও তারা কেউ আসেননি।

সভায় বক্তারা জাতীয় পার্টিতে স্বেচ্ছাচারিতা চলছে বলে অভিযোগ করে জাতীয় পার্টি নেতৃত্ব রওশন এরশাদকে নেয়ার জন্য আহ্বান জানান।

রওশন এরশাদ সভায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘দীর্ঘ ছয় মাস আমি থাইল্যান্ডের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলাম। পার্টির কেউ খোঁজ নেয়নি আমার। আমি সবার খোঁজ নিয়েছি। অথচ যাদেরকে দল থেকে বের করে দেয়া হয়েছে তারাই আমার নিয়মিত খোঁজ রেখেছেন। মসজিদ, মাজারসহ বিভিন্ন উপাসনালয়ে দোয়া প্রার্থনা করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘অনেক ভালো ভালো নেতাকর্মী দলের বাইরে আছে, তাদেরকে আনতে হবে। নতুন প্রজন্মকে দলে আনতে হবে। কাজী জাফর, শাহ্ মোয়াজ্জেম, আনোয়ার হোসেন মঞ্জুসহ অনেক সিনিয়র নেতা পার্টি ছেড়ে চলে গেছে তাদের ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করতে হবে। দলকে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সমকক্ষ বানাতে হবে। নতুবা রাজনীতির টিকে থাকতে পারবো না।’

বিরোধীদলীয় নেতা বলেন, ‘পার্টি শক্তিশালী করার প্রয়োজনে যা যা করার দরকার তাই করবো। এরশাদ তিলে তিলে এই দলটা গড়েছেন। সকলকে নিয়েই কাজ করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘বিমানবন্দরে আমি আসার দিন এত মানুষ আমাকে যে অভ্যর্থনা জানিয়েছে তা দেখে আমার দু’চোখে পানি এসে গেছে।’

মরহুম এরশাদকে স্মরণ করে রওশন এরশাদ বলেন, ‘এরশাদ ওপারে ভালো আছেন। মৃত্যুর আগের রাতে তিনি আমাকে বলেছিলেন, আল্লাহর রাসূল আমার পাশে এসে দাঁড়িয়ে থাকে। সকালে শুনি উনি ইন্তেকাল করেছেন। উনি জান্নাতবাসী হবেন। কারণ, তিনি ইসলামের খাদেম ছিলেন। ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম করেছিলেন, পবিত্র শুক্রবার ছুটি ঘোষণা করেন। মসজিদ-মন্দিরসহ সকল উপাসনালয়ের পানি ও বিদ্যুৎ বিল মওকুফ করেছিলেন।’

তিনি বলেন, ‘যাদের দল থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে তাদেরকে ফিরিয়ে নিতে হবে। যারা চলে গেছে তাদেরকেও ফিরিয়ে আনতে হবে। নতুবা আমরা অনেক পিছিয়ে যাবো।’

সভায় উপস্থিত ছিলেন রওশন-পুত্র রাহগীর আল মাহি (সাদ এরশাদ), রওশন এরশাদের রাজনৈতিক সচিব গোলাম মসিহ, জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য হাবিবুর রহমান হবি, ক্বারী হাবিবুল্লাহ বেলালী, জাপার সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য এম এ সাত্তার, প্রফেসর দেলোয়ার হোসেন খান, কাজী মামুনুর রশীদ, জাফর ইকবাল সিদ্দিকী, নুরুল ইসলাম মিলন, ফখরুজ্জামান জাহাঙ্গীর, নরুল ইসলাম নুরু, ইকবাল হোসেন রাজু, মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক, আশরাফ সিদ্দিকী প্রমুখ।


আরো সংবাদ


premium cement
২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা : মামলা হাইকোর্টে শুনানির উদ্যোগ মোগাদিসুতে হোটেলে হামলায় ৮ বেসামরিক নাগরিক নিহত নামাজ পড়তে গিয়ে নিখোঁজ ২ ভাইয়ের লাশ উদ্ধার বগুড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ক্রেনের চালকের মৃত্যু ইউক্রেন নিয়ে যা জানালেন জাতিসঙ্ঘ শরণার্থী সংস্থার প্রধান ডাকাতের আতঙ্ক, ৯৯৯-এ ফোন করে রক্ষা পেলেন ঢাবির ১০ শিক্ষার্থী ইবোলার ওষুধ অনুমোদন করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা মেয়ের বিয়ের আগে ফিলিস্তিনি বাবাকে গুলি করে হত্যা করল ইসরাইল ভারতে দুর্ঘটনায় ৬ তীর্থযাত্রী নিহত, আহত ২০ মেক্সিকোয় ৪৩ ছাত্র নিখোঁজের ঘটনায় সাবেক প্রসিকিউটর গ্রেফতার ইডেন কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি তামান্নার অডিও ফাঁস

সকল