২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩
`

তাজমেরী ইসলামকে গ্রেফতারে ইউট্যাবের নিন্দা

অধ্যাপক ড. তাজমেরী এস এ ইসলাম - ফাইল ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের সাবেক অধ্যাপক এবং বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য অধ্যাপক ড. তাজমেরী এস এ ইসলামকে গ্রেফতারে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের সংগঠন ইউনিভার্সিটি টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইউট্যাব)।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে নিন্দা জানায় সংগঠনটি। একইসাথে এটাকে উদ্বেগজনক আখ্যায়িত করে অবিলম্বে তার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছে ইউট্যাব।

যৌথ বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম ও মহাসচিব অধ্যাপক ড. মো: মোর্শেদ হাসান খান বলেন, ‘একটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় অধ্যাপক তাজমেরী এস এ ইসলামকে তার বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারের পর বৃহস্পতিবার আদালতে নেয়া হলে তার জামিন আবেদন নাকচ করে উল্টো তাকে কারাগারে পাঠানো অত্যন্ত লজ্জাজনক এবং উদ্বেগজনক। আমরা শিক্ষক সমাজ এই কাজে তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

তারা আরো বলেন, ‘ক্ষমতাসীন আওয়ামী সরকার ক্ষমতার জন্য সর্বনাশা নীতি অবলম্বন করছে। এই নীতির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যই হচ্ছে হুকুমবাদ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে চিরদিনের জন্য বিরোধী দল ও ভিন্ন মতের অস্তিত্বের অবসান ঘটানো। এই সরকার বিরোধীদল দমনে হয়রানি, জুলুম-নির্যাতন, মিথ্যা মামলা, গ্রেফতার ইত্যাদিকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে। তাদের লক্ষ্য পূরণে বিএনপিসহ বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদেরকে গ্রেফতারের ধারাবাহিকতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের খ্যাতিমান শিক্ষক অধ্যাপক ড. তাজমেরী এস এ ইসলামকে বানোয়াট মামলায় গ্রেফতার ও জামিন বাতিল করে কারাগারে পাঠানো হলো।’

তারা বলেন, জোর করে ক্ষমতা ধরে রাখতে গিয়ে সরকার বিকারগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। দেশের জনগণের কাছ থেকে এবং আন্তর্জাতিকভাবে বিচ্ছিন্ন এই সরকার আরো বেশি লাগামহীন হয়ে উঠেছে।

আর তাজমেরী ইসলামের বিএনপির রাজনীতি করাকেই সরকার অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করে তাকে গ্রেফতার করেছে বলে দাবি করেন ওই দুই নেতা। তারা বলেন, ‘তাজমেরী ইসলামের বিএনপির রাজনীতি করাটাই সরকারের কাছে অপরাধ। এজন্যই তাকে বানোয়াট ও ভিত্তিহীন মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। দেশে গণতন্ত্রের লেশমাত্র নেই। বর্তমান সরকার অনেক আগেই মৌলিক ও মানবাধিকারকে নির্বাসনে পাঠিয়েছে। শাসকগোষ্ঠী দেশে এক অস্বস্তিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। তবে সেদিন বেশি দূরে নয় যেদিন এই সরকারকে জনগণের সামনে জবাব দিতে হবে।’


আরো সংবাদ


premium cement
আইসিবি এএমসিএল পেনশন হোল্ডারসথ ইউনিট ফান্ডের ১০ টাকা লভ্যাংশ ঘোষণা জুমার নামাজ শেষে মসজিদে দোয়ার আহ্বান হেফাজতের সাংবাদিক এমদাদুল হক খানের ওপর সন্ত্রাসী হামলা ইউক্রেন নিয়ে অবস্থান ব্যাখ্যা করল রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র দুবাইয়ে খেলবেন জোকোভিচ জাতীয় উশুতে এসএ গেমস স্কোয়াড বাছাই ইরাককে হারিয়ে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলার সুযোগ পেল ইরান পোশাক শিল্পে নারী শ্রমিকদের হার কমে যাওয়ার কারণ কী? কোটি ডলার ব্যয়ের উৎস বিএনপিকে ব্যাখ্যা করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী বিটকয়েন : ক্রিপ্টোকারেন্সি তৈরিতে যেভাবে খনি হয়ে উঠেছে কাজাখস্তান দেশের অধস্তন আদালত তদারকিতে ৮ বিচারপতির মনিটরিং কমিটি

সকল