২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১
`

ওবায়দুল কাদেরের ‘মরা গাঙ’ প্রসঙ্গে যা বললেন রিজভী

ওবায়দুল কাদেরের ‘মরা গাঙ’ প্রসঙ্গে যা বললেন রিজভী - ছবি : সংগৃহীত

‘বিএনপির মরা গাঙে আর জোয়ার আসবে না’, রোববার দেয়া আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘আওয়ী লীগ সাধারণ সম্পাদক অত্যন্ত সুরক্ষিত গৃহ থাকেন, যেখানে করোনাভাইরাস ঢুকবে না। সেই গৃহ থেকে তিনি বলছেন, বিএনপির মরা গাঙ্গে আর জোয়ার আসবে না। মরা গাঙ তো আপনারাই তৈরি করেছেন। যাদের সাথে আপনাদের রক্তের সম্পর্ক, তারাই তো বাংলাদেশের গাঙ, নদী-নালান পানি প্রবাহ বন্ধ করে দিয়েছে। আপনি ঠিকই বলেছেন ওবায়দুল কাদের সাহেব, বিএনপি’র মরা গাঙ্গে জোয়ার আসবে না। কারণ, মরা গাঙ্গে এখন রক্তের স্রোত বয়, বিরোধীদলকে গুম খুন করে যে রক্ত ঝরিয়েছেন, সেই রক্তের স্রোত এখন শুকনা নদীতে প্রবাহিত হয়।’

রোববার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম আয়োজিত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে এক প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে রিজভী আরো বলেন, ‘আপনারা এখন প্রতিপক্ষ না পেয়ে নিজেরা নিজেরাই মারামারি করছেন, আপনার ছোট ভাইকে আপনি সামাল দিতে পারেন না। আপনার ছোট ভাই এখন বিবেকের তাড়নায় হোক অথবা পরিবারের মধ্যে লেনদেন নিয়ে কোন ঘাটতির কারণে হোক, সত্য কথাগুলো বলে দিচ্ছেন।

তিনি বলছেন যে নির্বাচন ফেয়ার হয়নি, দিনের ভোট রাতে হয়েছে এটা কাদের মির্জা বলছেন যিনি আপনার ছোট ভাই। আমরা যে কথাগুলো প্রতিদিন বলছি জনগণ যে কথাটি নিজের চোখে দেখেছে সেই কথা এখন আওয়ামী লীগের নেতারা নিজেরাই বলছেন। তাদের এই ঝগড়াঝাঁটির মধ্যে নিরীহ সাংবাদিক মুজাককিরকে জীবন দিতে হলো। কাদের সাহেব আপনিতো প্রতিদিন বিএনপি’র বিরুদ্ধে বিষোদগার করেন এর উত্তর আপনি কি দিবেন? আপনার ভাই এবং আওয়ামী লীগের এক নেতার মধ্যে সংঘর্ষের সময় নিরীহ সাংবাদিক নিহত হলো এখন কোথায় মুখ লুকাবেন?

রিজভী বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া কিন্তু এখনো বন্দি, তারপরও নড়াইলের একটি আদালতে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। প্রতিহিংসার আগুনের শিখা এতই লেলিহান, এটা যেন এই সরকার এবং সরকার প্রধানের মন থেকে নিভেই না। যাকে কারাগার থেকে নিয়ে বাসায় বন্দি করে রাখা হয়েছে, তার সমস্ত মানবিক অধিকার হরণ করা হয়েছে। তারপরও নড়াইলের একটি আদালতে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। এটা একটা পৈশাচিক সরকার ছাড়া কেউ করত না। হিটলার মুসোলিনি সাদ্দাম এরা এই কাজগুলোই করতেন। বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করার জন্য যত ধরনের প্রথা পদ্ধতি দরকার, তারা প্রয়োগ করতেন। ঠিক একই কায়দায় এই অবৈধ সরকারও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে তা করছে।’

দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতার ও মামলা দেওয়া প্রসঙ্গে বিএনপি’র এই নেতা বলেন, আপনাদের কথা বলতে দেয়া হবে না। এই অধিকার তোমাদের নেই, এই অধিকার এখন কাদের আছে? যারা মাফিয়াতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছে, যারা লুটপাটের সাথে জড়িত, যারা বাংলাদেশ ব্যাংক লুট করেছে, সোনালী ব্যাংক লুট করেছে, বেসিক ব্যাংক লুট করেছে, যারা ক্যাসিনোর রাজত্ব করে তুলেছে তাদের অধিকার আছে। কিন্তু গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য যারা লড়াই-সংগ্রাম করবে তাদের অধিকার নেই। প্রেসক্লাবের সামনে বিনা উস্কানিতে বিএনপি’র নেতাকর্মীদের উপর আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী আক্রমন চালালো।’

তিনি আরো বলেন, ‘আওয়ামী লীগ হলো ধান ভাঙানোর কলের মতো। মুজিবের হত্যাকারীরা যদি আওয়ামী লীগ করে তাহলে তারা বৈধ হয়ে যাবে। কোন রাজাকার যদি আওয়ামী লীগ করে তারা বৈধ হয়ে যায়। নুরু রাজাকারকে মন্ত্রী বানিয়েছে এই আওয়ামী লীগই।’

আয়োজক সংগঠনের সদস্য এবং ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আজিজুল বারী হেলালের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরীর সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সভায় বিএনপি’র স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, ঢাকা জেলা বিএনপি’র সভাপতি ডাক্তার দেওয়ান সালাউদ্দিন বাবু, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক প্রমুখ বক্তব্য দেন।



আরো সংবাদ


কুমিল্লায় ট্রেনে কাটা পড়ে মা ও শিশু নিহত রান্নার মাধ্যমে ইসলাম ও আরব সংস্কৃতি তুলে ধরছেন ব্রাজিলের সেরা রাঁধুনী ৪৮ হাজার প্রাথমিক শিক্ষকের `টাইম স্কেল' ফেরতের রিটের রায় রোববার ক্ষমতায় গেলে পিলখানা হত্যার পুনর্বিচারের উদ্যোগ নেবে বিএনপি জনসনের টিকা এক ডোজই যথেষ্ট ভাষা দিবস উপলক্ষে নারী অধিকার আন্দোলনের আলোচনা সভা ঢাকা-নিউ জলপাইগুড়ি রুটে ট্রেন, চলবে সপ্তাহে দুদিন আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ চায় সেনাবাহিনী পিলখানা হত্যাযজ্ঞ দেশ ও জাতির বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ : গোলাম পরওয়ার ‘হারফি’র ৫ম আউটলেট ধানমন্ডিতে, উদ্বোধন করলেন সৌদি রাষ্ট্রদূত রুটের দুরন্ত ঘূর্ণি, ১৪৫ রানে গুটিয়ে গেল ভারত

সকল