০৩ মার্চ ২০২১
`

কড়াইল বস্তিবাসীর পাশে জামায়াত

কড়াইল বস্তিবাসীর পাশে জামায়াত - নয়া দিগন্ত

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন মঙ্গলবার রাজধানীর গুলশানের কড়াইল বস্তি সফর করেন। এ সময় তিনি এলাকার সুবধিাবঞ্চিত ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সাথে একান্তে কথা বলেন এবং তাদের সার্বিক খোঁজ-খবর নেন। বস্তিবাসী মহানগরী আমীরের সাথে অন্তরঙ্গভাবে কথা বলার সুযোগ পান এবং তারা তাদের সমস্যার কথা খুলে বলেন। তিনি বস্তিবাসাীর কথা ধৈর্য ও আন্তরিকতার সাথে শোনেন। সেলিম উদ্দিন সর্বাবস্থায় আল্লাহর প্রতি তাওয়াক্কুল ও ধৈর্য ধারণের জন্য সবাইকে পরামর্শ দেন। পরে তিনি ‘আসুন শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াই’ স্লোগানকে সামনে রেখে গুলশান পশ্চিম থানা আয়োজিত শীতবস্ত্র প্রদান কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

এ সময় থানা আমীর ইয়াছিন আরাফাতের সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন থানা সেক্রেটারি মুহাম্মদ ইসমাইল, গুলশান পূর্ব থানার নায়েবে আমীর মাহমুদুর রহমান আজাদ ও যুবনেতা আলতাফ হোসেন প্রমুখ।

এ সময় মহানগরী উত্তর আমীর বলেন, আল্লাহ তায়ালা মানুষের পরীক্ষা নেয়ার জন্যই ধনী ও দরিদ্র সৃষ্টি করেছেন। যারা দারিদ্রকে অভিশাপ মনে না করে তারা সবর করেন, হাদিসে তাদের জন্য সুসংবাদ দেয়া হয়েছে। হাদিস শরীফে বর্ণিত হয়েছে, দরিদ্ররা ধনীদের পাঁচ শ’ বছর আগে জান্নাতে প্রবশে করবেন। তাই দারিদ্রতায় অধৈর্য না হয়ে আল্লাহর ওপর ভরসা রেখে এবং সবরের মাধ্যমে বৈষয়িক সকল সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করতে হবে। আল্লাহ তাদের প্রতি সহায় হবেন। তিনি বাস্তবজীবনে সবাইকে ইসলামের পুরোপুরি অনুসারী হওয়ার আহ্বান জানান।

সেলিম উদ্দিন বলেন, ‘জামায়াতে ইসলামী একটি আদর্শবাদী, গণমুখী ও কল্যাণকামী রাজনৈতিক সংগঠন। আমরা দেশ ও জাতির যেকোনো দুর্যোগের সাধ্যমত সাধারণ মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। আজকের শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠান উদ্বোধন ওই নিয়মিত কাজের অংশ। জামায়াত সমাজের সুবিধাবঞ্চিত ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সাথে অতীতে ছিল, এখনো আছে এবং আগামী দিনেও থাকবে-ইনশা আল্লাহ।’

এ সময় তিনি সাধারণ মানুষের কল্যাণে এগিয়ে আসতে সরকার, সকল রাজনৈতিক দল, সমাজের বিত্তবান মানুষসহ নগরীর সর্বস্তরের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি



আরো সংবাদ