২৮ অক্টোবর ২০২০

বাংলাদেশে মহামারীর উৎসব চলছে : নজরুল ইসলাম খান

বাংলাদেশে মহামারীর উৎসব চলছে : নজরুল ইসলাম খান - ছবি : নয়া দিগন্ত

বাংলাদেশে শুধু করোনা মহামারী না মহামারীর উৎসব চলছে মন্তব্য করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, কানাডার বেগম পাল্লী কাদের বাড়ি এই তালিকা কেউ দিচ্ছে না। তাদের ধরা অসম্ভব? বেগম পাড়া কারা করেছে বাহিরে? তাহলে কি বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদিত টাকা নিয়ে করেনি না কালো টাকা দিয়ে করা হয়েছে।

তিনি বলেন, সারাবিশ্ব আজ কোভিড-১৯ এ বিপর্যস্ত। বাংলাদেশে শুধু করোনা মহামারী না মহামারীর উৎসব চলছে। এদেশে দুর্নিতির মহামারী চলছে, বাংলাদেশে নারী নির্যাতনের মহামারী চলছে এই মহামারী থেকে আমাদেরকে রক্ষা পেতে হবে, জনগনকে রক্ষা করতে হবে।

সোমবার নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে প্রয়োজনীয় ভোগ্য মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। নারী শিশু অধিকার ফোরামের সদস্য আজিজুল বারী হেলালের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব নিপুন রায় এর সঞ্চলনায় এাময় আরো বক্তব্য রাখেন, বিএনপির সিনিয়র যুগ্ন মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ন মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম প্রমুখ।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, বাংলাদেশ এই অপূর্ব দেশটি আমরা মহান মুক্তিযুদ্ধে লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জন করেছি। এই দেশকে স্বাধীন করার যে লড়াই সেই লড়াইয়ে আমাদের মা বোন বা তাদের মর্যাদা হারিয়েছেন, বহু পরিবার নিঃস্ব হয়ে গেছে। আর আজকে বাংলাদেশে রাজপথে দাঁড়িয়ে আমরা এমন সব সমস্যা সমাধানের দাবিতে আন্দোলন করছি যেসব সমস্যা এমন একটা দেশে থাকার কথা ছিল না।

এমন সমস্যা যে সমস্যা সমাধান সম্ভব। একটু আন্তরিক হলে যারা এই সমস্যা সমাধানের দায়িত্ব প্রাপ্ত তাদেরকে নির্ভিগ্নে কাজ করতে দিলে এই সমস্যাতো হওয়ার কথা না।

তিনি বলেন, অসংখ্য দুর্নীতিবাজ এদেশে কিন্তু আমরা সবার নাম জানিনা। যাদের নাম নিয়ে আমরা আজ বক্তিতা করি তাদেরকেতো ধরেছে। আমাদের এই পুলিশ ভাইয়েরা র্যাবের ভাইয়েরা তারাইতো ধরেছে। তাদেরকে যদি নির্ভিগ্নে কাজ করতে দেয়া হতো তাহলে এরকম আরো যারা পাপি আছে, যেসব দুর্নিতিবাজ আছে তারাও ধরা পরতো। কিন্তু সেটা করতে দেয়া হবে না কারণ তারা নিজেদের লোক। কোভিড-১৯ জিবানুটা চোখে দেখা যায় না কিন্তু অতি ভয়ঙ্কর। আক্রান্ত হলে মৃত্যু হতে পারে।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, এমসি কলেজের প্রিন্সিপাল সাহেব সাংবাদিকদের বলেছেন আমি অসহায়। প্রিন্সিপাল সাহেব আপনি অসহায় আছেন কিন্তু যাদের সমর্থ আছে তারাতো নামতে পারে ময়দানে। ৬৯ গণঅভ্যুত্থানে যারা মাঠে নেমেছে, ৭১ এর মুক্তিযোদ্ধে যারা মাঠে নেমেছে, ৯০ এর স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে যারা মাঠে নেমেছে সেই জনগন মাঠে নামবে। এটাই নিয়ম, এটাই ইতিহাস, এটাই বাস্তবতা, এটাই বারবার প্রমাণিত।


আরো সংবাদ