০৬ আগস্ট ২০২০

বয়স্ক, শিশু ও অসুস্থরা কোরবানির পশুর হাটে আসবেন না : ডিএনসিসি মেয়র

মো: আতিকুল ইসলাম
মো: আতিকুল ইসলাম - ছবি : সংগৃহীত
24tkt

করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে নিরাপদ থাকতে বয়স্ক, শিশু ও অসুস্থদের পশুর হাটে যাওয়া থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো: আতিকুল ইসলাম। রোববার কোরবানির পশুর হাট ও কোরবানির পশুর বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত এক অনলাইন সভায় মেয়র এ আহ্বান জানান।

মেয়র জনগণের জীবন রক্ষার্থে নাগরিকদেরকে সরকার নির্ধারিত স্বাস্থ্যবিধি ও সিটি করপোরেশনের সকল নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানান। করোনাভাইরাস মহামারির এই সময়ে জনসাধারণের স্বতঃস্ফুর্ত সহযোগিতা ছাড়া পশুর হাটের ব্যবস্থাপনা অত্যন্ত দূরুহ উল্লেখ করে মেয়র বলেন, শিশু ও বয়স্করা যারা বিগত বছরে পছন্দের পশুটি কিনতে বিভিন্ন হাটে গরু দেখতে যেতেন, আমি অনুরোধ করবো এ বছর আপনারা এভাবে গরুর হাটে যাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

তিনি বলেন, আপনারা জানেন করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে আমরা এ বছর ঢাকা শহরের ভিতরের বড় বড় কয়েকটি হাট শহরের প্রান্তসীমায় নিয়ে যাচ্ছি। এতে অনেক আর্থিক ক্ষতি হয়েছে, আসলে এর ফলে আমাদের সিটি করপোরেশনের স্মরণকালের সবচেয়ে বেশি টাকা আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হলাম। কিন্তু তারপরও জনগণের স্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে আমরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

আতিকুল ইসলাম বলেন, হাটের ইজারাদারদেরকে অবশ্যই আমাদের নির্দেশনা মতো নিয়ম মেনে হাট পরিচালনা করতে হবে, তা না হলে তাদের যে সিকিউরিটি মানি থাকবে সেটি কিন্তু বাজেয়াপ্ত হয়ে যাবে। সেখানে স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী দূরত্ব নিশ্চিত, পর্যাপ্ত হাত ধোয়ার ব্যবস্থা, এবং সচেতনতামূলক মাইকিং থাকবে। এসব হাট আমাদের কাউন্সিলর ও ম্যজিস্ট্রেটবৃন্দ সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণে রাখবেন।

কোরবানির পশু সিটি করপোরেশন নির্ধারিত স্থানে কোরবানি দেয়ার আহ্বান জানিয়ে মেয়র বলেন, আমরা এবারও আশা করছি কোরবানির বর্জ্য ২৪ ঘণ্টার আগেই অপসারণ করতে সক্ষম হবো। এটি নিশ্চিত করার জন্য আমাদের সকল কাউন্সিলর, সংরক্ষিত কাউন্সিলর, সিটি করপোরেশনের সকল কর্মকর্তাসহ আমি নিজেও মাঠে থাকবো।

মেয়র বলেন, কেবল সচেতনতাই পারে আমাদেরকে, আমাদের পরিবারকে, এই শহরকে এবং এই দেশকে মহামারি থেকে বাঁচাতে। তাই আসুন আমরা সাবধান হই, মহামারি থেকে বাঁচতে সরকার ঘোষিত সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি।

সভায় ডিএনসিসির সকল কাউন্সিলর, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর, ডিনসিসির প্রধান নিবার্হী কর্মকর্তা, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা, প্রধান প্রকৌশলীসহ সকল আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও অন্য কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন।


আরো সংবাদ

বগুড়ায় করোনা উপসর্গে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালকের মৃত্যু ব্রেক্সিট গণভোটের পর থেকে ইইউ দেশগুলোতে ব্রিটিশ অভিবাসন বেড়েছে ৩০ শতাংশ কুমিল্লায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ৪৮ বৈরুত বিস্ফোরণে নিহত কুমিল্লার রেজাউলের পরিবারে শোকের মাতম বাবরী মসজিদের স্থলে মন্দির নির্মাণের প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মানববন্ধন আমতলীতে ৪১ জন প্রতিবন্ধীকে চিকিৎসা সহায়তার চেক প্রদান বগুড়ায় তারেক রহমানের শ্বশুরের শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে কোরআনখানি অনুষ্ঠিত কক্সবাজারে সেনাবাহিনী ও পুলিশের যৌথ টহল চলবে : আইএসপিআর আইপিএল থেকে বাদ পড়লো চীনা কোম্পানি বগুড়ায় শ্লীলতাহানীর অভিযোগে আটককৃত ছেলেকে উদ্ধারে বাধা দেয়ায় যুবককে খুন প্রদীপসহ ৩ পুলিশ সদস্যের ৭ দিনের রিমান্ড

সকল