২৯ মে ২০২০

শুধু ইমার্জেন্সি রোগীদের করোনা টেস্ট করবে গণস্বাস্থ্য

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী - সংগৃহীত

মঙ্গলবার থেকে গণস্বাস্থ্যের আবিষ্কৃত করোনা টেষ্টিং কিট দিয়ে কেবল ইমার্জেন্সি রোগীদের করোনা টেস্ট করবে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। শনিবার বিকালে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী নয়া দিগন্তকে এ কথা জানান। তিনি বলেন, আমরা কেবল যে সকল ইমার্জেন্সি রোগী আছে তাদের টেষ্ট করবো। যেমন প্রেগনেন্সির সময় যদি কারো জ্বর থাকে এবং ডাক্তার যদি টেস্ট করার পরামর্শ দেয়া হয়, তবে আমরা তার টেস্ট করব। এরকম আরো অন্য যে সকল ইমারজেন্সি রোগী আছে আমরা তাদের টেস্ট করব। কিন্তু কেউ যদি এসে বলে, আমি টেস্ট করে দেখতে চাই যে আমার করোনা আছে কিনা, সে ক্ষেত্রে আমরা তার টেষ্ট করবো না।

সীমিত আকারে পরীক্ষা চালাবেন কেন- এমন প্রশ্নের জবাবে ডাক্তার জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, সরকার আমাদের কোনো সহায়তা করছে না। তাই আমাদের সীমাবদ্ধতার মাঝে কাজ করতে হচ্ছে। সরকারের সহয়তা পেলে আমাদের কার্যক্রম আরো গতিশীল হতো। এতে করে দেশের লক্ষ লক্ষ মানুষ উপকৃত হতো। সরকারের উচিত ছিল দেশের স্বার্থে, দেশের জনগণের স্বার্থে আমাদেরকে সহযোগিতা করা। আমি বলব কিছু অর্বাচীন আমলা একটি স্বার্থান্বেষী মহলকে ব্যবসায়িক সুবিধা দেয়ার উদ্দেশ্যে সরকারকে মিসগাইড করেছেন।

উল্লেখ্য, আজ সকালেই সরকারের অনুমোদন না পেলেও আগামী মঙ্গলবার থেকে নিজেদের উদ্ভাবিত কিট দিয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ পরীক্ষা শুরু করার কথা জানান গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এসময় তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) আমাদেরকে কিটের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমোদন দিয়েছে। তাই আগামী মঙ্গলবার থেকে আমরা রাজধানীর ধানমণ্ডি ও সাভারের গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র নগর হাসপাতালে নিজেদের উদ্ভাবিত ‘জিআর র‌্যাপিড ডট ব্লট’ কিট দিয়ে করোনা পরীক্ষা শুরু করবো।
তিনি আরো বলেন, রোগীদের এন্টিবডি ও এন্টিজেন দুটিই পরীক্ষা করা হবে। এর জন্য রোগীদের রক্ত ও লালা দুটিই লাগবে। এন্টিবডি পরীক্ষার জন্য ৩০০ টাকা এবং এন্টিজেন পরীক্ষার জন্য রোগীদের কাছ থেকে ৪০০ টাকা করে নেয়া হবে। তবে হাসপাতালে শুধু করোনা শনাক্তের পরীক্ষা করা হবে, এর চিকিৎসা দেয়া হবে না।


আরো সংবাদ

ঝালকাঠিতে কলেজ ছাত্রী ধর্ষণের পর মুক্তিপণ দাবি, দুই নারীসহ গ্রেপ্তার ৬ নাগরপুরে আরও একজন করোনায় আক্রান্ত লকডাউনের মূল উদ্দেশ্য সফল হয়েছে কিনা সরকারকে ব্যাখ্যা দিতে হবে : আ স ম রব তালিকায় সই না করেও বরখাস্ত! সিরাজদিখানে অস্থায়ী বাসিন্দাদের ‘বাইতে রেদোয়ান’র খাদ্য সামগ্রী বিতরণ এবার ৫২টি ডিম দিয়েছে জুলিয়েট দেশের সব সঙ্কটে শহীদ জিয়ার নেতৃত্ব অবিস্মরণীয় : মির্জা ফখরুল ঝালকাঠিতে নারীকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা, বসতঘর ভাংচুর দুই সন্তানের পিতা প্রেমিকের লাশ উদ্ধার, আটক বিবাহিতা প্রেমিকা দেশের কয়েক’টি অঞ্চলে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে পুলিশের টিকটক ভিডিও দেখে ছেলে খুঁজে পেল তার নিখোঁজ বাবাকে

সকল

পাকিস্তান, নেপাল সীমান্তেও অতিরিক্ত সৈন্য পাঠাচ্ছে ভারত (৯৭২৯)ভারতে গেলেই গ্রেফতার! নোবেলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ত্রিপুরায় (৯০৩৮)হামলা হতে পারে চীনে, সেনাবাহিনীকে ব্যাপক যুদ্ধপ্রস্তুতির নির্দেশ (৭১২৪)আমার বন্দী কবুতরটি ছেড়ে দিন, মোদী কাছে এক পাকিস্তানির আবেদন (৫৮৬৯)এবার লিবিয়ায় যুদ্ধবিমান ‘পাঠালো’ রাশিয়া (৫৭৮৪)রাতে নৌকার ছাদে জানাজা পড়ে লাশ ফেলা হতো সাগরে : খোদেজা বেগমের দুঃসাহসিক সমুদ্রযাত্রা (৫৬১৪)ভারতীয় ড্রোন ভূপাতিত করল পাকিস্তান (৫৫৮২)এশিয়ায় ভারতকে পেছনে ফেলে শীর্ষে তুরস্ক (৫০৪২)‘আপনার স্ত্রী দেশদ্রোহী, অনুষ্কাকে তালাক দিন' (৪৯৪২)দেশে এক দিনে করোনায় আক্রান্ত ২০০০ ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ (৪৫৫৫)