০৩ জুন ২০২০
অধ্যক্ষ কামালুদ্দীন জাফরী ও আল্লামা মামুনুল হকসহ বরেণ্য ওলামাদের দাবি

মানবিক বিবেচনায় সাঈদীকে মুক্তি দিন

আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী - সংগৃহীত

মানবিক, ধর্মীয় ও বয়স বিবেচনায় প্রখ্যাত মুফাসসিরে কুরআন আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তি দাবি করেছেন বাংলাদেশ ওলামা কাউন্সিলের কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যক্ষ সাইয়্যেদ কামালুদ্দীন জাফরীসহ অন্য আলেমগণ।

গতকাল শনিবার দেশবরেণ্য আলেমদের পক্ষ থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে তারা বলেন, করোনাভাইরাসের এই সঙ্কটময় মুহূর্তে পবিত্র কাবার মধ্যে সেজদাকারী বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন ও সাবেক এমপি আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে মুক্তির ব্যবস্থা করা সময়ের দাবি। কেননা তিনি একেবারে বার্ধক্যে উপনীত হয়েছেন। ৮১ বছর বয়সের এই আলেম দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে ডায়বেটিস-সহ নানান জটিল রোগে আক্রান্ত। তার হার্টে পাঁচটি রিং বসানো। তিনি দীর্ঘ ১১ বছর ধরে কারাগারে আছেন। এ অবস্থায় অন্যের সাহায্য ছাড়া ওঠা-বসা, চলাচল বা নিত্যদিনের কাজ করা তার পক্ষে একেবারেই অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

তারা আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে যে উদারতার পরিচয় দিয়েছেন তা ভুলবার নয়। আমরা আশা করছি, সেই সাথে মানবিক বিবেচনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা আল্লামা সাঈদীকে মুক্তির মাধ্যমে গোটা জাতির কাছে আজীবন স্মরণীয় হয়ে থাকবেন, ইনশা আল্লøাহ। তারা বলেন, সাবেক সংসদ সদস্য আল্লামা সাঈদী দীর্ঘ পঞ্চাশ বছর ধরে কুরআনের খেদমত করে আসছেন। তা ছাড়া তিনি দেশে-বিদেশে অসংখ্য মসজিদ-মাদরাসাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। পৃথিবীজুড়ে এক মহামারী ভাইরাসের এই সঙ্কটময় মুহূর্তে যাতে তিনি করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত থেকে পরিবারের কাছে দিন কাটাতে পারেন সে জন্য মানবিক, ধর্মীয় ও বার্ধক্য বিবেচনায় তাকে মুক্তি দেয়া ঈমানের অপরিহার্য দাবি বলে জানান দেশের শীর্ষ ওলামায়েকেরাম।

বাংলাদেশের শীর্ষ আলেম আল্লামা আজিজুল হক (রহ:)-এর ছেলে বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ মামুনুল হক, লক্ষ্মীপুরের প্রবীণ মুফাসসিরে কুরআন ড. মাওলানা লুৎফুর রহমান, ঢাকার আল্লামা তারিক মুনাওয়ার, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়য়ের প্রফেসর ডক্টর আব্দুস সালাম মাদানী, বরিশালের অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক, সিলেটের হজরত মাওলানা আবুদল মতিন শাহবাগী, মাওলানা আব্দুস সালাম মাদানী, চট্টগ্রামের মাওলানা হারুনুর রশিদ, প্রফেসর ড. বি এম মফিজুর রহমান আজহারী, খুলনার হজরত মাওলানা মনোয়ার হোসেন মাদানী, কুষ্টিয়ার এনামুল হক শাফি, রংপুরের মাওলানা আতাউল গনী ওসমানী, চরমোনাইর মরহুম পীর সাহেব মাওলানা ইসহাক (রহ:)-এর সাহেবজাদা সাইয়েদ ফেরদাউস বিন ইসহাক, ছারছীনার ছোট পীর শাহ আরিফ বিল্লাহ সিদ্দিকী, মিরেরসরাই পীর মাওলানা আব্দুল মোমেন নাছিরী, টেকেরহাটের পীর আল্লামা সাইয়েদ কামরুল ইসলাম সাঈদ আনসারী, মুফাসসিরে কুরআন মাওলানা রাফি বিন মনির সিফাত হাসান, মাওলানা সাইমুম সাদী, জমিয়াতুল মুফাসসিরিনের সভাপতি মাওলানা আব্দুস সোবাহান, বাংলাদেশ জাতিয় মুফাসসির পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাদ্দিস আমিরুল ইসলাম বেলালী, মুফাসসিরে কুরআন মাওলানা আবুল কালাম আজাদ বাশার, মাওলানা আব্দুল্লাহ আল আমিন, মুফতি মাওলানা আমির হামজা, অধ্যক্ষ এইচ এম শহিদুল ইসলাম, মাওলানা মোশাররফ হোসাইন, মাওলানা কাজি মারুফ বিল্লাহ, মাওলানা নাসির উদ্দীন হেলালী, শেখ আবুল কালাম আজাদ আজহারী, মাওলানা সাদিকুর রহমান আজহারী, শাইখ জামাল উদ্দিন, মাওলানা মাহমুদুর রহমান দেলোয়ার, মাওলানা সাদিক সিকান্দার, মুফতি এ কে এম ফারুক সিদ্দিকী আবু হানিফা নোমান, মুফতি মাওলানা ডাক্তার এম এ সালাম, অধ্যাপক তৈয়বুর রহমান, মাওলানা গোলজার হোসাইনসহ দেশের শীর্ষ ওলামা হজরত ও পীর-বুজুর্গ বিভিন্ন মাধ্যমে আল্লামা সাঈদীর মুক্তি দাবি করেন।

ন্যাশনাল ডক্টরস ফোরাম : এ দিকে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তির আবেদন করেছে চিকিৎসকদের পেশাজীবী সংগঠন ন্যাশনাল ডক্টরস ফোরাম। গতকাল শনিবার এক বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক মো: নজরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে করোনাভাইরাস মারাত্মক আকার ধারণ করেছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার বয়স্কদের মধ্যে অনেক বেশি। বর্তমানে কারাবন্দী এবং ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য, নন্দিত আলেম ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মোফাসসিরে কুরআন মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী পচাত্তরোর্ধ একজন বৃদ্ধ। এ ছাড়াও তিনি একজন ডায়াবেটিস রোগী, একই সাথে তিনি একজন হার্টের রোগী। তার হার্টে একাধিক রিং পরানো আছে। উপরন্তু তার রয়েছে ফ্রোজেন শোল্ডার সমস্যা। ডায়াবেটিস ও হার্ট ডিজিজে আক্রান্তদের মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কা অনেক বেশি। অধ্যাপক নজরুল ইসলাম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ‘এসব মানবিক দিক বিবেচনা করে করোনার ঝুঁকিতে থাকা অসুস্থ মাওলানা সাঈদীর কারামুক্তির আবেদন করেন।’ বিজ্ঞপ্তি।


আরো সংবাদ