০৯ এপ্রিল ২০২০

খালেদা জিয়ার জামিন খারিজে বিএনপির প্রতিক্রিয়া

শনিবার ঢাকাসহ দেশজুড়ে বিক্ষোভ
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন রুহুল কবির রিজভী। - ছবি : নয়া দিগন্ত

বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের নির্দেশেই সাবেক প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে বিএনপি। দলটির দাবি- বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করে দেয়ার মধ্য দিয়ে সরকারের হিংসাশ্রয়ী নীতিরই বহিঃপ্রকাশ ঘটলো। যেনো ক্ষমতাসীন সরকার দেশনেত্রী মুক্তিপণ আদায়ের মতো অবৈধ ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার জন্য তাকে কারাগারে বন্দি রেখেছে।

আজ জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় দীর্ঘ দুই বছরের বেশি সময় ধরে কারাবন্দি ও অসুস্থ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার করা জামিনের আবেদন আদালত খারিজ করে দেয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বর্তমান অবৈধ আওয়ামী লীগ সরকারের কাছে ন্যায়বিচার পাওয়া সুদূরপরাহত। বেগম খালেদা জিয়ার অসুস্থতাকে হিংসার চরিতার্থ করতে টার্গেট হিসেবে বেছে নিয়েছে। কিন্তু দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জীবন ও জামিন নিয়ে ছিনিমিনি খেলার কঠিন মাশুল সরকারকে একদিন দিতে হবে। জামিন আবেদন নামঞ্জুর করায় বিএনপির পক্ষে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান রিজভী।

এদিকে, খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করে দেয়ার প্রতিবাদে আগামী শনিবার ঢাকা মহানগরীর থানায় থানায় এবং দেশব্যাপী জেলা ও মহানগরে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হবে। একইদিন ঢাকার নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ সভা হবে বলে জানান রিজভী।

নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন দলের যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, হাবিব উন নবী খান সোহেল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, হারুন অর রশিদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য কাজী মফিজুর রহমান, তাঁতীদলের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ, যুবদলের নুরুল ইসলাম, ছাত্রদলের সাবেক নেতা কাজী ইফতেখারুজ্জামান শিমুল, স্বেচ্ছাসেবক দলের মোর্শেদ আলম প্রমুখ।

দেখুন:

আরো সংবাদ