০৬ এপ্রিল ২০২০

বিজয় দিবস উপলক্ষে ঢাকা মহানগরী জামায়াতের আলোচনা সভা

-

সাম্য, গণতন্ত্র, আইনের শাসন, সামাজিক ন্যায়বিচার ও অর্থনৈতিক মুক্তিই ছিল স্বাধীনতা যুদ্ধের মূল চেতনা। মহান মুক্তিযুদ্ধের এই চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে শোষণ-বঞ্চনামুক্ত গণতান্ত্রিক ও ন্যায়-ইনসাফ ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন।

এসময় তিনি বীর মুক্তিযোদ্ধাদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ, যুদ্ধাহত ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন এবং নগরবাসীকে বিজয়ের শুভেচ্ছা জানান।

শনিবার রাজধানীর একটি মিলনায়তনে জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী উত্তর আয়োজিত মহান বিজয় দিবসের আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। সভায় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের সেক্রেটারি ড. মুহাম্মদ রেজাউল করিম, কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের সহকারি সেক্রেটারি জনাব লস্কর মো. তসলিম এবং কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরা সদস্য ও মহানগরী উত্তরের কর্মপরিষদ সদস্য জনাব নাজিম উদ্দীন মোল্লা প্রমূখ।

সেলিম উদ্দিন বলেন, ক্ষমতাসীনদের উপর্যুপরি ব্যর্থতা, দুঃশাসনের কারণেই স্বাধীনতার প্রায় ৫ দশক পরেও আমরা বিজয়ের সুফলগুলো পুরোপুরি ঘরে তুলতে পারিনি। যা কোন স্বাধীন, সার্বভৌম ও গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের বৈশিষ্ট্য হতে পারেনা। তাই স্বাধীনতা ও মহান বিজয়কে অর্থবহ করতে হলে দল-মত নির্বিশেষে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সবার আগে জনগণের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম করতে হবে।

বক্তৃতায় তিনি দৈনিক সংগ্রাম অফিসে হামলার নিন্দা জানান এবং সংগ্রামের সম্পাদক বর্ষীয়ান সাংবাদিক আবুল আসাদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি


আরো সংবাদ