১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে কয়েকজন নেতা রাস্তায় নামলে লাখো জনতা আসবে : খন্দকার মাহবুব

খন্দকার মাহবুব হোসেন - ছবি : নয়া দিগন্ত

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহাবুব হোসেন বলেছেন, আমি শুরু থেকেই বলছি বেগম খালেদা জিয়াকে কোনো দুর্নীতির মামলায় আটক করা হয়নি। তাকে আটক করা হয়েছে সম্পূর্ণ রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে এবং রাজনৈতিক আন্দোলন ছাড়া তাকে মুক্ত করা সম্ভব না। রাজনৈতিক আন্দোলনের মাধ্যমেই তাকে মুক্ত করতে হবে। আর এ আন্দোলনে কর্মীর অভাব হবে না।

আজ শনিবার সুপ্রিম কোর্ট মিলনায়তনে বাংলাদেশ নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের উদ্যোগে আয়োজিত ‘আগ্রাসী শক্তির বিরুদ্ধে প্রথম প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর শহীদ আবরার ফাহাদ এবং সকল নির্যাতনের বিরুদ্ধে’ বিষয়ক এক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন।

খন্দকার মাহবুব বলেন, দীর্ঘদিন আমরা একটি অবৈধ সরকারের অধীনে রয়েছি। আমরা ব্যর্থ হয়েছি এই অবৈধ সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে। যদি নারী নির্যাতন বলতে হয় তবে সবচেয়ে বড় নির্যাতিত নারী বেগম খালেদা জিয়া। অত্যন্ত দুঃখ হয়, কষ্ট হয় আন্দোলনের মাধ্যমে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে আমরা ব্যর্থ হয়েছি।

তিনি বলেন, আমরা হয় মারা যাবো না হয় বেগম জিয়াকে মুক্ত করবো। আসুন আন্দোলনে নামি।

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘কয় লক্ষ লোক তারা কারাগারে নিবে? এরকম সাহসী নেতৃত্ব না থাকলে বেগম জিয়ার মুক্তি হবে না।’

প্রবীণ এই আইনজীবী বলেন, বেগম খালেদা জিয়া মুমূর্ষু অবস্থায় আছেন। যে কোনো মুহূর্তে যে কোনো কিছু হয়ে যেতে পারে এবং সরকার সেটা করার জন্যই বদ্ধপরিকর।

তিনি বলেন, ‘যারা আমাদের নেতা আছেন সাহস নিয়ে মাঠে নামেন বক্তব্য দিয়ে কোনো লাভ হবে না। আপনারা কয়েকজন নেতা রাস্তায় নামলে লক্ষ জনতা আসবে। খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে কর্মীর অভাব হবে না। ইনশাআল্লাহ জাতীয়তাবাদী শক্তিকে কোনো অপশক্তি দমাতে পারবে না।’

বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ও বাংলাদেশ নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের আহ্বায়ক বেগম সেলিমা রহমানের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরো উপস্থিত আছেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই চন্দ্র রায়, অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদিন, ডা. এ জেড এম জাহিদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক আসিফ নজরুল, বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল প্রমুখ।


আরো সংবাদ