২৯ মে ২০২০

ডাকসু নির্বাচন : পরাজয় মেনে নিলেন ছাত্রলীগ সভাপতি

ডাকসু নির্বাচন
ডাকসু নির্বাচনে পরাজয় মেনে নিয়েছেন ভিপি প্রার্থী ছাত্রলীগ সভাপতি - ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে ভিপি পদে নিজের পরাজয় মেনে নিয়েছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন। একইসাথে তিনি নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নূরের পাশে থেকে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে ঢাবি ভিসির বাসভবনের সামনে আন্দোলনরত নিজ সংগঠনের কর্মীদের উদ্দেশে ছাত্রলীগ সভাপতি এসব কথা জানান।

এ সময় তিনি সবপক্ষকে আন্দোলন তুলে নিয়ে ক্লাসে ফেরার আহ্বান জানান।

এরপর ভিসির বাসভবনের সামনে থেকে ছাত্রলীগের কর্মীরা তাদের অবস্থান কর্মসূচি তুলে নেয়।

শোভন বলেন, ‘ছাত্রলীগ দেশের সবচেয়ে বড় সংগঠন। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ নষ্ট করতে চাই না। ডাকসু নির্বাচন যারা পরিচালনা করেছেন, তারা আমাদেরই শিক্ষক। তাদের প্রতি সম্মান দেখিয়ে আমি আমার পরাজয় মেনে নিচ্ছি। তারা যে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন, মাথা পেতে নিচ্ছি।’

নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘তোমরা আমার পরাজয়ে ব্যথিত হয়েছো। আমার জন্যই আন্দোলন করতে চাও। আমিই তোমাদের বলছি— তোমরা হলে ফিরে যাও। ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নাও।’

নেতার আহ্বানে এ সময় ছাত্রলীগের আন্দোলনরত নেতা-কর্মীরা কান্নায় ভেঙে পড়েন।

শোভন বলেন, ‘ভোটাররা ভিপি পদে নুরুল হক নূরকে বেছে নিয়েছেন। তাদের রায়ের প্রতি আমি সম্মান জানাচ্ছি। তার সাথে আছি, তাকে নিয়েই শিক্ষার্থীদের যে কোনো অধিকার আদায়ে কাজ করব।’

দীর্ঘ ২৮ বছর পর গতকাল সোমবার ডাকসু নির্বাচনের ভোট হয়। রাতে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এতে ভিপি পদে জয়লাভ করেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা নূরুল হক নূর। তিনি ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে পরাজিত করেন।

রাত তিনটায় ভিসি মো: আখতারুজ্জামান এ ফল ঘোষণার পর থেকেই বিক্ষোভ দেখিয়ে যাচ্ছে ছাত্রলীগ। তারা এ পদে পুনরায় নির্বাচন দাবি করেছেন।

ভিপি পদে বিজয়ী হিসেবে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা নূরুল হক নূরের নাম ঘোষণার সাথে সাথেই বিক্ষোভ শুরু করেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এ সময় ‘ভুয়া’, ‘ভুয়া’ বলে চিৎকার করতে থাকেন তারা।

ছাত্রলীগকর্মীদের বিক্ষোভ, হৈ চৈ-এ ফল ঘোষণায় বিরতি দিতে বাধ্য হন ভিসি।

এক পর্যায়ে সেখানে উপস্থিত ছাত্রলীগ সভাপতি ও সংগঠনটির প্যানেল থেকে ভিপি প্রার্থী রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের ইশারায় বিক্ষোভে বিরতি দেন সংগঠনটির বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা।

এরপর সাধারণ সম্পাদকসহ বাকি পদগুলোতে ভোটের ফলাফল ঘোষণা করেন ভিসি। সাধারণ সম্পাদকসহ বাকি ২৪টি পদের একটি বাদে অন্যগুলোতে ছাত্রলীগের প্যানেলের (সম্মিলিত শিক্ষার্থী পরিষদ) প্রার্থীরাই জয়ী হয়েছেন।

ফলাফল ঘোষণা শেষ হলে আবারো বিক্ষোভ শুরু করেন ছাত্রলীগকর্মীরা। এ সময় ‘ভুয়া’, ‘ভুয়া’ স্লোগানের পাশাপাশি শিবিরবিরোধী বিভিন্ন স্লোগান দেন তারা।

প্রায় আধা ঘণ্টা বিক্ষোভের পর ছাত্রলীগ সভাপতি শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী ভিসির পাশে যান। এ সময় ভিসির কাছে নূরকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি করেন রাব্বানী।

নূর ছাত্রলীগের বর্তমান কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক শোভনকে ১ হাজার ৯৩৩ ভোটে পরাজিত করেছেন।

নূর পেয়েছেন ১১ হাজার ৬২ ভোট। আরতার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শোভন পেয়েছেন ৯ হাজার ১২৯ ভোট।

নূর ছাড়া তার প্যানেল থেকে সমাজসেবা সম্পাদক পদে আখতার হোসেন ৯ হাজার ১৯০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

এর বাইরে জিএস, এজিএসসহ বাকি ২৩ পদেই জয় পেয়েছে ছাত্রলীগ প্যানেল। এর মধ্যে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী জিএস পদে ১০ হাজার ৪৮৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। আর এজিএস পদে সাদ্দাম হোসেন সর্বোচ্চ ১৫ হাজার ৩০১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

ব্যাপক কারচুপি ও অনিয়মের অভিযোগ এনে এই নির্বাচন বাতিলের দাবি জানিয়েছে ছাত্রদল, বাম প্রগতিশীল জোট এবং অন্যান্য সব প্যানেলের প্রার্থীরাও। আজ পৃথক স্থানে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে তারা।


আরো সংবাদ

লিবিয়ায় মানব পাচারকারীদের গুলিতে ২৬ বাংলাদেশী নিহত লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশীকে গুলি করে হত্যা মা-ছেলেকে পিটিয়ে আহত : গ্রাম্য সালিশে সাড়ে ছয় লাখ টাকা জরিমানা সোনারগাঁওয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ইউপি সদস্যসহ ৫ জন আহত করোন উপসর্গ নিয়ে চট্টগ্রামে মৃত্যু, মাগুরায় দাফন বোয়ালমারীতে পৃথক সংঘর্ষে আহত অর্ধশত, ভাংচুর লুটপাট আটক ১০ ঝালকাঠিতে নতুন করে ৩ জন করোনায় আক্রান্ত বাংলাদেশ বৈশ্বিক চাহিদা মেটাতে সক্ষম : পররাষ্ট্রমন্ত্রী কাজিপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে শ্রমিকের মৃত্যু আখাউড়া চেকপোস্ট দিয়ে ফিরে গেলেন আটকে পড়া ১০৬ ভারতীয় নাগরিক করোনা তাড়াতে নরবলি ভারতে, মন্দিরে এক কোপে মাথা আলাদা

সকল