১৫ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১, ৮ মহররম ১৪৪৬
`

একসাথে ৬ বাচ্চা প্রসব সাদা বেঙ্গল টাইগারের

একসাথে ৬ বাচ্চা প্রসব সাদা বেঙ্গল টাইগারের - ছবি : সংগৃহীত

আর কয়েক দিনেই মধ্যেই সাদা হোয়াইট বেঙ্গল টাইগারে-শাবকের দেখা পাবে চীনের নাগরিকরা। তাও একটা নয়, একসাথে ছয় ছয়টি হোয়াইট বেঙ্গল টাইগারের দেখা পাবে চিড়িয়াখানায় আসা সে দেশের নাগরিকরা। সম্প্রতি এনজয়ল্যান্ড কনজারভেশন অ্যান্ড এডুকেশন সেন্টারেই জন্ম হয়েছে এই বিরল প্রজাতির বাঘের। চীনের হেনান প্রদেশের ঝেনঝউয়ে এই অ্যানিমাল পার্কটি অবস্থিত। তবে এই বাঘ বেশ কয়েকটি কারণে বিরল। সাধারণত মরসুমের হোয়াইট বেঙ্গল টাইগার একসাথে সর্বোচ্চ চারটি বাচ্চার জন্ম দেয়। সেদিক থেকে একসাথে ছয়টি বাচ্চার জন্ম দেয়া বিরল ঘটনা। এর মধ্যে দুটি ছেলে ও বাকি চারটি মেয়ে বাঘ।

হোয়াইট বেঙ্গল টাইগার আদতে আমাদের পরিচিত বেঙ্গল টাইগারের একটি বিশেষ ধরন। এদের রং আলাদা হওয়ার মূল কারণ জিনের সমস্যা। জিনের এই সমস্যা মায়ের থেকে সন্তানের মধ্যেও পৌঁছে যায়। গায়ের রং সাদা বলে বনে জঙ্গলে বাঁচার জন্য বেশ লড়াই করতে হয় এদের। সুরক্ষামূলক হলুদ রঙের অভাবে এই সমস্যা হয়। তবে একসাথে ছয়টি বাচ্চাকে সামলানো ও বড় করাও চিড়িয়াখানার কর্মীদের জন্য বেশ চ্যালেঞ্জের কাজ।

বন্যপ্রাণ বিভাগের প্রধান জু ফু সংবাদমাধ্যমকে বলেন, সাদা বাঘের ছয়টি বাচ্চা হওয়া পুরোপুরি বিরল ব্যাপার। তাকে একা এতগুলো বাচ্চার খেয়াল রাখতে হলে সে বেশ ক্লান্ত হয়ে পড়বে। তাই বাচ্চা জন্মানোর সাথে সাথেই কৃত্রিম ব্রিডিংয়ের পদ্ধতি নেয়া হয়েছে। ছয়টি বাচ্চাকে নার্সারিতে নিয়ে গিয়ে রাখা হয়েছে। সেখানেই আপাতত চিড়িয়াখানা কর্মীদের তত্ত্বাবধানে রয়েছে তারা।

বর্তমানে তাদের দেখভাল করতে ইনকিউবেটর ব্যবহার করা হচ্ছে। সেখানেই ২৬ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড উষ্ণতায় রাখা হয়েছে সদ্যজাত বাচ্চাগুলোকে। প্রতিদিনই তাদের ওজন মাপা হচ্ছে। প্রতি দুই ঘণ্টায় একবার করে দুধ খাওয়ানো হচ্ছে। এর পাশাপাশি ম্যাসাজও করে দেয়া হচ্ছে। খাবার যাতে হজম হয়, তাই পেটের কাছে ম্যাসাজ করে দেওয়া জরুরি।

হোয়াইট বেঙ্গল টাইগারকে চীনে বিরল ও বিপন্ন প্রজাতির প্রাণী হিসেবে গণ্য করা হয়। সেখানে প্রথম শ্রেণির নাগরিকের মর্যাদা পায় এই বিশেষ বাঘ।
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস


আরো সংবাদ



premium cement