০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯, ৬ রবিউল আওয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

৪ পাতার গাছের নিলামে দাম সাড়ে ৪ লাখ টাকা!‌

৪ পাতার গাছের নিলামে দাম সাড়ে ৪ লাখ টাকা!‌ - ছবি : সংগৃহীত

চার লাখ ৬৩ হাজার টাকা। হ্যাঁ, এই অর্থের বিনিময়ে কিনে ফেলতে পারবেন একটি গাড়ি। কিংবা বিদেশে ঘুরতেও যেতে পারেন। কিন্তু কখনো কেবল একটি গাছ কিনতে এত টাকা খরচ করবেন? তাও আবার গাছে রয়েছে মাত্র চারটি পাতা!‌‌ শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই কিন্তু ঘটেছে নিউজিল্যান্ডে। অনলাইন নিলামে মাত্র চারটি পাতা বিশিষ্ট গাছটি কেনা হয়েছে বাংলাদেশী মুদ্রায় চার লাখ ৬৩ হাজার টাকায়।

কিন্তু কী এমন বিশেষত্ব গাছটির?‌ জানা গিয়েছে, গাছটি হলো বিরল প্রজাতির র‌্যাফিডোফোরা টেট্রাসপেরমা (Rhaphidophora Tetrasperma)। যা কি না আবার ফিলোডেন্ড্রন মিনিমা নামেও পরিচিত। স্থানীয় মুদ্রায় যার দাম ৮,১৫০ নিউজিল্যান্ড ডলার।

আসলে ঘরের মধ্যে রাখা যায়, সেরকমই ছোট গাছ এটি। কিন্তু নিলাম হওয়া গাছটির বিশেষত্ব হলো, এর চারটি পাতার প্রত্যেকটিতে দু’‌টি পৃথক রং। প্রতিটি পাতায় অদ্ভুতভাবে হলুদ রঙের ছোপ রয়েছে। তাও আবার একেবারে মাঝখান দিয়ে। পাতার অর্ধেকটা সবুজ আর ঠিক অর্ধেকটা হলুদ। এমন রং এই গাছে কখনো দেখা যায় না। ‘ট্রেড মি’ বলে একটি অনলাইন ট্রেডিং সাইটে এই গাছটি নিলামে ওঠে। দেখতে দেখতে সেটির দাম এতটা বেড়ে যায়। এই গাছটি প্রসঙ্গে এক পরিবেশবিদ জানান, এই ধরনের গাছের সবুজ অংশে সালোকসংশ্লেষ হয় এবং হলুদ অংশে শর্করা তৈরি হয়।

এদিকে, জানা গেছে, মোট তিনজন মিলে এই গাছটি কিনেছেন। তাদেরই একজন জানান, ‘‌‘‌আমরা আসলে তিনজনে মিলে এই গাছটি কিনেছি। এরপর একটি সুন্দর ট্রপিক্যাল বাগান তৈরি করা হবে। তাতে এরকম বিরল প্রজাতির গাছ থাকবে। এছাড়া পাখি ও প্রজাপতিও থাকবে। আর সেই বাগানের মাঝে থাকবে একটি রেস্তরাঁ। শুধু নিউজিল্যান্ডে নয়, গোটা বিশ্বে এরকম ট্রপিক্যাল বাগান আর কোথাও হয়তো দেখা যাবে না।’‌’

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

 


আরো সংবাদ


premium cement