০৩ জুন ২০২০

আরো ৪ বাঘের শরীরে করোনাভাইরাস

আরো ৪ বাঘের শরীরে করোনাভাইরাস - সংগৃহীত

ফের নিউ ইয়র্কের ব্রঙ্কস চিড়িয়াখানায় হানা দিলো করোনাভাইরাস। এবার চারটি বাঘ এবং তিনটি সিংহের শরীরে মিলল কোভিড-১৯ জীবাণু। চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকেই এই খবর ঘোষণা করা হয়েছে। এর আগে এই চিড়িয়াখানাতেই একটি বাঘিনি ও ছ’টি বনবিড়ালের শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা গিয়েছিল।

একটি বিবৃতিতে মার্কিন কৃষিবিভাগ জানিয়েছে, ব্রঙ্কস চিড়িয়াখানায় এক কর্মীর শরীর থেকে বাঘটি সংক্রমিত হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। ওই চিড়িয়াখানার বেশ কিছু সিংহ ও বাঘের মধ্যে শ্বাসজনিত কষ্টের উপসর্গ দেখা গিয়েছে। জেনারেল অ্যানাস্থেসিয়া সম্পর্কিত ঝুঁকি থাকার ফলে অন্যদের পরীক্ষা করা যায়নি। কয়েক দিন আগেই নিউ ইয়র্কের চিড়িয়াখানায় চার বছরের বাঘ নাদিয়া কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়েছিল। লক্ষণ প্রকাশ না পাওয়া কোনও চিড়িয়াখানার কর্মীর থেকেই বাঘটি আক্রান্ত হয়েছে বলে, ধারণা কর্তৃপক্ষের। প্রাণীদের দেহ থেকে মানবদেহে করোনা ভাইরাস সংক্রমিত হয় না, বলে মত বিশেষজ্ঞদের। কিন্তু মানবদেহ থেকে তা ছড়িয়ে প্রাণীদের মধ্যে সংক্রমণ ঘটাতে পারে।

উল্লেখ্য, করোনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে নিউ ইয়র্ক শহর। এই মারণ রোগের কবলে পড়ে এপর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। পাশাপাশি, সংক্রমণ ঘটেছে পশুদের মধ্যেও। আমেরিকার চিকিৎসকরা বলছেন, এই পশুগুলো মানুষের শরীর থেকেই সংক্রমিত হতে পারে। এক পশু থেকে অন্য পশুর শরীরেও সংক্রমণ হতে পারে।

তবে, কোনো পশুর বা পোষাপ্রাণীর শরীর থেকে মানুষের শরীরে সংক্রমণের প্রমাণ এখনো মেলেনি। মানুষের থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর এই সম্ভাবনাই চিন্তায় রাখছে চিকিৎসকদের। তাঁরা বলছেন, এই পরিস্থিতিতে পোষাপ্রাণীর জন্য সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত। কোনো সংক্রমিত ব্যক্তি বা পশু থেকে এদের দূরে রাখতে হবে। অপ্রয়োজনে এদেরও বাড়ির বাইরে বের করবেন না।
সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

 


আরো সংবাদ