২৪ নভেম্বর ২০২০

কাঁচা চামড়া দ্রুত রপ্তানীর পরামর্শ জি এম কাদেরের

কাঁচা চামড়া দ্রুত রপ্তানীর পরামর্শ জি এম কাদেরের - ছবি : সংগৃহীত

কাঁচা চামড়া দ্রুত রপ্তানীর পরামর্শ দিয়েছেন সংসদের বিরোধী দলীয় উপনেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের। তিনি বলেছেন, গত বছরে আমরা দেখেছি চামড়ার কোনো দাম কেউ পায়নি। বিশেষ করে ফকির- মিসকিনরা বা সমজিদ, এতিমখানা গুলো চামড়া বিক্রি করতে পারেনি। অনেকেই চামড়া ফেলে দেয় বা পচে নষ্ট হয়। তাই এবার কোরবানি ঈদের আগেই উদ্যোগ নিতে হবে।

বৃহস্পতিবার সংসদে বাজেট অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, এক ধরনের অসাধু চামড়া ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে চামড়ার এই মূল্য কমিয়ে ছোট ছোট চামড়া বিক্রেতাদের জিম্মি করে থাকে। রপ্তানীর সুযোগ-বাজার উম্মুক্ত রেখে দেশের মুনাফালোভী বড় বড় চামড়া ব্যবসায়ীরা মূক্ত বাজার থেকে প্রতিযোগিতার মাধ্যমে যাতে চামড়া কেনে সে ব্যবস্থা করতে হবে। তিনি আরো বলেন, ছোট ছোট ব্যবসায়ী, সমজিদ ভিত্তিক এতিম খানা, ফকির মিসকিন, বিভিন্ন এতিমখানা যারা চামড়া ফ্রিতে সংগ্রহ করে বিক্রি করে অন্নসংস্থান করে থাকে। তারা যাতে সঠিক মূল্য পায় সেজন্য ঈদের আগে চামড়ার যথাযথ মূল্য নির্ধারণ করতে হবে।

দূর্ঘটনা বন্ধে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানিয়ে জি এম কাদের বলেন, দেশে প্রচুর নৌদুর্ঘটনা ঘটছে। কিন্তু আইনের ফাঁক দিয়ে আসামীরা বেরিয়ে যাচ্ছে। আবার সঠিক তদন্ত না হওয়ায় বিচারে ছাড়া পেয়ে যাচ্ছে। সড়ক দূর্ঘটনার ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটছে। ফলে দুর্ঘটনা কমছে না। তিনি দূর্ঘটনার সঠিক তদন্ত ও ন্যায় বিচার নিশ্চিত করার দাবি জানান।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, করোনা কতদিনে শেষ হবে কেউ জানে না। তাই করোনার সাথে বসবাস করেই অর্থনীতিকে সচল করতে হবে। কৃষিখাত সচল থাকলে পৃথিবীর কারো কোনো সহযোগিতা ছাড়া বাংলাদেশ বেঁচে থাকবে, তাই কৃষিখাতে বিশেষ নজর দিতে হবে। তিনি আরো বলেন, বাজেটেরও বেশি টাকা বাংলাদেশ থেকে পাচার হয়ে গেছে, এই পাচার থামছে না। পাচারকৃত টাকা ফেরত আনতে হবে।


আরো সংবাদ