১২ জুলাই ২০২০

করোনারোধে বাজেট অধিবেশন ঘিরে নানা কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার নির্দেশনা

করোনারোধে বাজেট অধিবেশন ঘিরে নানা কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার নির্দেশনা - সংগৃহীত

করোনা সংক্রমণ রোথে আগামী ১০ জুন অনুষ্ঠিতব্য সংসদের বাজেট অধিবেশনকে ঘিরে কঠোর নিরপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সংস্পর্শে যারা আসবেন তাদেরকে আগাম করোনা পরীক্ষা, অন্যান্য সকল স্বাস্থ্যবিধি শতভাগ মানার ব্যবস্থা এবং সাংবাদিক ও দর্শনাশীদের সংসদে প্রবেশের অনুমতি না দেয়া তার অন্যতম।

২০২০-২১ অর্থবছরের এই বাজেট অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অংশ নেবেন। অধিবেশনে সংসদ সদস্য উপস্থিতি সীমিত রাখা হবে। অধিকতর বয়স্ক এবং ঢাকার বাইরে যাওয়ার সংসদ সদস্য ও সংসদের কর্মকর্তা কর্মচারিদের সংসদের প্রবেশে বিধি নিষেধ আরোপেরও পরিকল্পনা রয়েছে।

জানা গেছে, অধিবেশন শুরুর পর দিন ১১ জুন বেলা তিনটায় ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত জাতীয় বাজেট উত্থাপন হব। ৩০ জুন বাজেট পাস হওয়ার কথা। অধিবেশনে কর্মদিবসও ১০/১২ এর মধ্যে সীমিত রাখা হতে পারে।

সংসদ সূত্রে জানা গেছে, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে অধিবেশনের জন্য প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় থেকে ১২টি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ১৩ দফা সুপারিশ এসেছে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ থেকে।

নির্দেশনায় জানানো হয়, অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী যোগ দেবেন। তাঁদের নিরাপত্তার পাশাপাশি করোনা সংক্রমন প্রতিরোধের বিষয় সমানভাবে গুরুত্ব দিতে হবে।

অধিবেশন চলাকালীন সর্বনিম্ন সংখ্যক ব্যক্তিবর্গকে অধিবেশনের কাজে নিয়োজিত করা, যেসব কর্মকর্তা-কর্মচারী রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সংস্পর্শে আসার সম্ভাবনা রয়েছে তাদের চিহ্নিত করা, চিহ্নিত ব্যক্তিদের কোভিড-১৯ পরীক্ষার মাধ্যমে করোনায় আক্রান্ত নয় তা নিশ্চিত করা, পরীক্ষার মাধ্যমে চিহ্নিত সুস্থ্যদের জন্য অধিবেশন শেষ না হওয়া পর্যন্ত কোয়ারেন্টাইন অবস্থান নিশ্চিত করা, সংসদ অধিবেশনে নিয়োজিতদের যন বহিরাগত বা অপ্রয়োজনীয় দর্শনার্থীর সাথে মেলামেশা করতে না পারে, তা নিশ্চিত করতে হবে।

সংসদ চলাকালীন দর্শনার্থী প্রবেশ নিরৎসাহিত করা, সীমিতসংখ্যক সংবাদকর্মীদের নিজ নিজ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে কোভিড-১৯ পরীক্ষা করে করোনা আক্রান্ত নয়- নিশ্চিত হয়ে নিয়োজিত করা, তথ্যপ্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহারের মাধ্যমে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হবে।

অধিবেশন কার্যকরের জন্য প্রয়োজনীয় জনবল ব্যতীত অন্যান্য ব্যক্তিদের সংসদ চলাকালীন সংসদে গমনাগমন নিরুৎসাহিত করা, সংসদ সদস্যদের ব্যক্তিগত গানম্যান, সহকারী ও ব্যক্তিগত কর্মকর্তাসহ সকলকে সংসদ ভবনে গমনাগমনে নিরুৎসাহিত করা, সংসদ সদস্যদের বহনকারী যানবাহনসমূহ নিরাপদ দূরত্বে পার্কিং নিশ্চিত করা, সংসদ সদস্যদের গাড়িচালকদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

এতে আরো বলা হয়, অধিবেশন শুরুর পূর্বে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা ও সহায়তা প্রদানকারী সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীর কোভিড-১৯ পরীক্ষার মাধ্যমে সুস্থতা নিশ্চিত করা, কোনো সদস্য বা ব্যক্তির অসুস্থতা সংক্রান্ত বিষয়াদি অত্র সংস্থাকে দ্রুত অবহিত করা, সংসদে কমরত কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং সংসদ সদস্যরা যারা সরকার কর্তৃক ঘোষিত লকডাউন এলাকায় বসবাস করছেন, তাদের সংসদে গমনাগমন রহিত করা, স্বাস্থ্য অধিদফতর ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মোতাবেক আক্রান্ত ব্যক্তি ও তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিবর্গের কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা, নিয়মিতভাবে সংসদ সচিবালয়ের মাধ্যমে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের তথ্যাদি অত্র সংস্থায় প্রেরণ করতে হবে।

সংসদের বাজেট অধিবেশন সাধারণত দীর্ঘ হয়ে থাকে। গত বছরের বাজেট অধিবেশন ২১ দিন। মোট ২৬৯ জন সংসদ সদস্য বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে ৫৫ ঘণ্টা ৩৬ মিনিট আলোচনা করেন। এবার কার্যদিবস ও আলোচনার সময় উভয়ই কমিয়ে আনার পরিকল্পনা রয়েছে।


আরো সংবাদ

বেসরকারি ব্যাংকে আতঙ্ক (১৯৬৬৬)যুবলীগ নেত্রীর টর্চার সেল নিয়ে টঙ্গীতে তোলপাড় (৯২২৭)আয়া সোফিয়া নিয়ে এবার খ্রিষ্টানদের উদ্দেশ্যে যা বলল তুরস্ক (৭০৪৮)স্ত্রীর সামনেই আত্মহত্যা করলেন আফগান ফেরত মার্কিন সৈন্য (৬৭৭৯)যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি চীনের হঠাৎ ‘আপস বার্তা’র নেপথ্যে (৬৪১১)বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্নতার আশঙ্কা বাংলাদেশের সামনে? (৫৯৫৩)শিক্ষকের যৌন হয়রানির ভিডিও ভাইরাল, সর্বত্র তোলপাড় (৫৮৭৩)‘আয়া সুফিয়া’কে মসজিদ ঘোষণা এরদোগানের, আজান-তাকবিরে মুখরিত ইস্তাম্বুল (ভিডিও) (৫৮৫৫)স্বামী হত্যার লোমহর্ষক বর্ণনা দিলেন স্ত্রী (৫৪৫৫)দেখুন ৮৬ বছর পর আয়া সোফিয়ায় আজান শুনে যা করল ইস্তাম্বুলবাসী (ভিডিও) (৫২০৮)