০৫ এপ্রিল ২০২০

সাড়ে ১২ লাখ অবৈধ গ্যাস বার্নার বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে : প্রতিমন্ত্রী

মজুত গ্যাসে ২০৩০ সাল পর্যন্ত চলবে
জ্বালানিমন্ত্রী সংসদকে জানিয়েছেন মজুদ গ্যাসে ২০৩০ সাল পর্যন্ত চলবে। - ফাইল ছবি

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ জানিয়েছেন, ২০১৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত ২ হাজার ৫৮৫ কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস বিতরণ পাইপলাইন এবং ১২ লাখ ৪৯ হাজার ৯০০টি গ্যাস বার্নারের অবৈধ আবাসিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন থানায় ১০৪টি মামলা ও ১৪৮টি জিডি করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত অপরাধের জরিমানা বাবদ ১ কোটি ২৫ লাখ ৭৬ হাজার ১০০ টাকা আদায় করা হয়েছে।

সংসদে প্রশ্নোত্তরে মঙ্গলবার জাতীয় পার্টির ফখরুল ইমামের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

বিকেলে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকের শুরুতে প্রশ্নোত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

মন্ত্রীর দেয়া তালিকা অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জে ৭৮টি স্পটে ১ লাখ ৭৯ হাজার ৩০০ মিটার, মুন্সিগঞ্জে ৯টি স্পটে ৩১ হাজার মিটার, গাজীপুরে ৯টি স্পটে ১৪৫০ মিটার, ঢাকা জেলায় ২৪টি স্পটে ১৮ হাজার ৫০০ মিটার, ঢাকা মহানগরে একটি স্পটে ১ হাজার ৪৬০ মিটার অবৈধ গ্যাস পাইপলাইন বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

মজুত গ্যাসে ২০৩০ সাল পর্যন্ত চলবে :
মামুনুর রশীদ কিরনের এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, দেশে বর্তমানে মোট ১০ দশমিক ৬৩ ট্রিলিয়ন ঘনফুট উত্তোলনযোগ্য গ্যাসের মজুদ রয়েছে, যা ২০৩০ সাল পর্যন্ত ব্যবহার সম্ভব।

তিনি জানান, বর্তমানে দৈনিক ২৫৭০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উৎপাদিত হয়, এর সাথে ৫৯০ মিলিয়ন ঘনফুট আমদানীকৃত গ্যাস (এলএনজি) মিলিয়ে বর্তমানে দৈনিক ৩১৬০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করা হচ্ছে। গ্যাসের ক্রমবর্ধমান চাহিদার প্রেক্ষিতে সম্ভাব্য স্থানে গ্যাস কূপ খননের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী জানান, পরিকল্পনা অনুযায়ী বাপেক্স ২০১৯-২০২১ সাল নাগাদ দুটি অনুসন্ধান কূপ, ২০২২-২০৩০ সাল নাগাদ ১৩টি অনুসন্ধান কূপ এবং ২০৩১-২০৪১ সাল নাগাদ ২০টি অনুসন্ধান কূপ খননের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এছাড়া দৈনিক হাজার মিলিয়ন ঘনফুট ক্ষমতাসম্পন্ন একটি ল্যান্ড বেইসড এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণের জন্য পিজিবিলিটি স্টাডি ও টার্মিনাল ডেভেলপমেন্ট সিলেকশন কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আরো জানান, পেট্রোবাংলার সাথে বিভিন্ন আঞ্চলিক তেল কোম্পানির সম্পাদিত উৎপাদন বণ্টন চুক্তির (পিএসসি) আওতায় অগভীর সমুদ্রের ব্লক এস এস ০৪, এস এস ০৯, এস এস ১১ এবং গভীর সমুদ্র অঞ্চলের ব্লক ডিএস ১২ এ নতুন গ্যাসক্ষেত্র অনুসন্ধান কার্যক্রম চলমান রয়েছে। চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে অগভীর সমুদ্রের ব্লক ০৪ এ একটি অনুসন্ধান কূপ খনন শুরু হবে।

নসরুল হামিদ জানান, সম্প্রতি আবিষ্কৃত গ্যাস ফিল্ড ভোলা নর্থ-এ গ্যাস উত্তোলনের জন্য একটি উন্নয়ন কুপ খনন, প্রসেস প্লান্ট স্থাপন এবং পাইপ লাইন নির্মাণের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

দেখুন:

আরো সংবাদ

আত্মহত্যার আগে মায়ের কাছে স্কুলছাত্রীর আবেগঘন চিঠি (১৩৫৩০)সিসিকের খাদ্য ফান্ডে খালেদা জিয়ার অনুদান (১২৬০৬)করোনা নিয়ে উদ্বিগ্ন খালেদা জিয়া, শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল (৯৩১৫)ভারতে তাবলিগিদের 'মানবতার শত্রু ' অভিহিত করে জাতীয় নিরাপত্তা আইন প্রয়োগ (৮৪৯০)করোনায় নিশ্চিহ্ন হয়ে গেল ইতালির একটি পরিবার (৭৮৬৪)করোনার মধ্যেও ইরান-যুক্তরাষ্ট্র আরেক যুদ্ধ (৭১৪০)করোনায় আটকে গেছে সাড়ে চার লাখ শিক্ষকের বেতন (৬৯৩১)ইসরাইলে গোঁড়া ইহুদির শহরে সবচেয়ে বেশি করোনার সংক্রমণ (৬৮৯০)ঢাকায় টিভি সাংবাদিক আক্রান্ত, একই চ্যানেলের ৪৭ জন কোয়ারান্টাইনে (৬৭৬১)করোনাভাইরাস ভয় : ইতালিতে প্রেমিকাকে হত্যা করল প্রেমিক (৬২৯৬)