০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

উইঘুর মুসলিম নির্যাতন বন্ধে বিশ্বের প্রতি চীনকে চাপ দেয়ার আহ্বান


চীনের উইঘুর মুসলিম নির্যাতন বন্ধে বেইজিংকে জোরালো চাপ দিতে মুসলিম বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশের আলেমরা। পাশাপাশি চীনা পণ্য বয়কটের জন্য দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

শনিবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর রুনি মিলনায়তনে এক প্রতিবাদ ও আলোচনা সভায় বক্তারা এ আহ্বান জানান।

ইসলামিক মুভমেন্ট বাংলাদেশ আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় সমমনা ১৩টি ইসলামী দলের রাজনৈতিক জোট সম্মিলিত ইসলামী ঐক্যজোটের শীর্ষ নেতারা বক্তব্য রাখেন।

প্রতিবাদ সভায় লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ‘আজ চীনের ৭৩তম জাতীয় দিবসে ‘ইসলামিক মুভমেন্ট বাংলাদেশ’ চীন কর্তৃক ২২ লাখ তুর্কি ও উইঘুর মুসলিমদের দীর্ঘদিন ধরে গণহত্যা, ধর্ষণ, নির্যাতন, যৌন নিপীড়ন, জোরপূর্বক আটকে রাখার প্রতিবাদে এই ‘প্রতিবাদ ও আলোচনা সভার’ আয়োজন করেছে।’

লিখিত বক্তব্যে আরো বলা হয়, ‘চীনা সরকার মিডিয়ার সকল কর্মকাণ্ড স্তব্ধ রেখে বছরের পর বছর ২২ লাখ মুসলিমকে বিভিন্ন ডিটেনশন ক্যাম্পে আটকে রেখে প্রতিনিধির মাধ্যমে নির্যাতন, যৌন নিপীড়ন, হত্যাসহ অপরাধ কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে।’

চীনা সরকার মানবাধিকার কর্মী, সংবাদকর্মী, জাতিসংঘের কর্মকর্তা এমনকি সংবাদ সংগ্রহে আগ্রহী এমন কাউকে উইঘুরে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, ‘পুরো পৃথিবীকে অন্ধকারে রেখে চীনা সরকার এই সকল অপরাধ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। তারপরও কিছু কিছু সংবাদ বিবিসি, আল-জাজিরাসহ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। তা দেখে ও শুনে আমরা হতবাক হয়েছি। পুরো বিশ্বের মানুষ এটা মেনে নিতে পারেনি। আমরা চীনা সরকারের এ ধরনের গর্হিত কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

বক্তারা বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ মিত্ররা চীনের উপর নামমাত্র অবরোধ আরোপ করে দায়সারা দায়িত্ব পালন করেছে। কিন্তু চীনের দানব সরকার এই সামান্য অবরোধ ও চাপে ক্ষ্যান্ত হয়নি এবং হবেও না। তাকে থামাতে হলে বিশ্বের সকল দেশ মিলে জাতিসংঘে প্রস্তাব পাশ করিয়ে চীনের উপর ব্যাপক ভিত্তিক অবরোধ আরোপের মাধ্যমে চাপ তৈরি করতে হবে।’

প্রতিবাদ ও আলোচনা সভায় সম্মিলিত ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবু জাফর কাসেমি, ইসলামী মুভমেন্ট বাংলাদেশের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খায়রুল আহসান, নেজামে ইসলাম বাংলাদেশের চেয়ারম্যান মাওলানা হারিসুল হক, বাংলাদেশে খেলাফত আন্দোলনের নায়েবে আমির মাওলানা আবুল কাশেম কাসেমি, সেক্রেটারি আলহাজ আজম খান, নেজামে ইসলাম বাংলাদেশের সেক্রেটারি মুফতি আহসান উল্লাহ সালামি, বাংলাদেশ ইসলামী মুভমেন্টের যুগ্ম সম্পাদক নুর ই হেলাল, মুফতি রফিকুল ইসলামসহ সম্মিলিত ইসলামী ঐক্যজোটের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।


আরো সংবাদ


premium cement