২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনাভাইরাস সচেতনতায় বাধা দেয়ার জামায়াতের নিন্দা

করোনাভাইরাস সচেতনতায় বাধা দেয়ার জামায়াতের নিন্দা - সংগৃহীত

করোনাভাইরাস সংক্রান্ত সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণে বাধা প্রদান ও নির্যাতন করায় নিন্দা জানিয়েছেন ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ জামায়াত আমীর। রোববার জামায়াতের ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের প্রচার সহকারী মুহাম্মাদ আব্দুল্লাহ সাইফ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ নিন্দা জানানো হয়।

ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত শুক্রবার করোনাভাইরাসের সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণের সময় হাজারীবাগ থানার রয়েল ট্যানারি মসজিদে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর স্থানীয় কর্মী আলী হোসেন কতিপয় যুবলীগ নামধারী সন্ত্রাসীদের দ্বারা আক্রান্ত হয়। পরে সন্ত্রাসীরা আলী হোসেনকে ধরে নিয়ে একটা রুমের ভিতরে আটকে রেখে মাথা ওয়ালের সাথে আঘাত করে নাকে মুখে ঘুষি মেরে নির্মমভাবে জখম করে, সাধারণ মুসল্লিগণ ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ করে তাকে উদ্ধার করে একটি হাসপাতালে নিয়ে যায়। যে ঘটনায় মুসল্লি ও সাধারণ জনগনের মনে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি করে।

জামায়াত আমির বলেন, এরকম একটি স্পর্শকাতর ইস্যুতে জন সচেতনতার মতো গুরুত্বপূর্ণ কাজে সরকার দলীয় সন্ত্রাসীমূলক বাধা প্রদানের ঘটনায় মুসল্লী ও সাধারণ মানুষের পাশাপাশি আমিও গভীরভাবে উদ্বিগ্ন ও বিস্মিত। যা বিরাজমান পরিস্থিতিতেই নয়ই কোন অবস্থাতেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

এদিকে লালবাগের ছাপরা মসজিদেও লিফলেট বিতরণকালে পুলিশ বাধা প্রদান করে লিফলেট ছিনিয়ে নেয়। যা রাষ্ট্রীয় নির্দেশনার সাথে সম্পূর্ণ সাংঘর্ষিক। কতিপয় পুলিশ সদস্য ও সরকার দলীয় সন্ত্রাসীদের এহেন নেক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এক বিবৃতিতে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের আমীর নুরুল ইসলাম বুলবুল এ কথা বলেন।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, যখন ঐক্যবদ্ধভাবে আমাদের এ বৈশ্বিক এ মহামারি মোকাবেলা করার কথা তখন প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসাবে জনগণের জানমালের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কতিপয় পুলিশ সদস্য যে কাণ্ডজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়েছে তা জনগনের মধ্যে রীতিমতো প্রশ্নের সৃষ্টি করেছে সরকার এ পরিস্থিতি সামাল দিতে আদৌ আন্তরিক কিনা? আর সরকার দলীয় সন্তর কর্মকাণ্ডে আবারো প্রমাণিত হয়েছে যে, সংকীর্ণ রাজনৈতিক চিন্তারই প্রতিফলন। বিভাজনের এ রাজনীতি এত বড় সংকট মোকাবেলায় শুধু অসহযোগিতাই করবে না বরং গোটা মানব জাতিকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিবে।

তিনি পুলিশ প্রশাসন ও সরকারকে দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, কতিপয় চিহ্নিত এ পুলিশ সদস্য ও সরকার দলীয় সন্ত্রাসীদের এহেন ন্যাক্কারজনক ঘটনার জন্য জবাবদিহিতা ও আইনের শাসনের আওতায় নিয়ে আসা প্রয়োজন। বৈশ্বিক এ মহামারি উত্তোরনে তিনি সকলকে বিভাজনের উর্ধ্বে উঠে আন্তরিকভাবে ভূমিকা পালনের আহবান জানান।


আরো সংবাদ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত মন্ত্রণালয়ের (১২৯৪২)ড. কামাল ও আসিফ নজরুল ঢাবি এলাকায় অবা‌ঞ্ছিত : সন‌জিত (১১৭২৪)‘সনজিতকে ক্যাম্পাসে দেখতে চায় না ঢাবি শিক্ষার্থীরা’ (১০৩২০)এমসি কলেজে গণধর্ষণ : সাইফুরের যত অপকর্ম (৯০২০)আজারবাইজান ৬টি গ্রাম আর্মেনিয়ার দখল মুক্ত করেছে (৮৩৪১)নতুন বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সামনে আনলো ইরান (৫৭১১)যে কারণে এই শীতেই ভারত-চীন মারাত্মক যুদ্ধের আশঙ্কা রয়েছে (৫৬৫০)অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের জানাজা অনুষ্ঠিত (৫২২৯)আজারবাইজান-আর্মেনিয়ার মধ্যে সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৯ (৫১৬৭)ছাত্রলীগের ঢাবি সভাপতি বক্তব্য স্পষ্টত সন্ত্রাসবাদের বহিঃপ্রকাশ (৫১৫০)