২১ অক্টোবর ২০২০

সাংবাদিক আরিফুলের মুক্তি ও দায়ীদের শাস্তি দাবী বিএফইউজে-ডিইউজে’র


কুড়িগ্রামে ‘বাংলা ট্রিবিউন’ পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামকে মধ্যরাতে বাসা থেকে তুলে নিয়ে নির্যাতন ও এক বছরের কারাদণ্ড দিয়ে জেলে পাঠানোর ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ, বিস্ময় ও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন-বিএফইউজে ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) নেতৃব্ন্দৃ।

এক যুক্ত বিবৃতিতে বিএফইউজের সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, মহাসচিব এম আবদুল্লাহ ও ডিইউজের সভাপতি কাদের গনি চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলাম সাংবাদিক আরিফুল ইসলামকে অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দেয়ার পাশাপাশি তাকে নির্যাতনের সঙ্গে জড়িত কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীনকে অনতিবিলম্বে অপসারণ ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়ার দাবী জানান।

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, সংবাদ প্রকাশের জেরে ক্ষুব্ধ হয়ে সাংবাদিককে রাতের অন্ধকারে বাসা থেকে তুলে এনে বিবস্ত্র করে নির্যাতন এবং বানোয়াট মাদক মামলায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে কারাদণ্ড দেওয়ার ঘটনা সাংবাদিক সমাজকে স্তম্ভিত করেছে। একজন সরকারি কর্মকর্তা কি করে ব্যক্তিগত আক্রোশ চরিতার্থ করার জন্য এতটা ঘৃণ্য পথ বেছে নিতে পারেন তা দেশের বিবেকবান মানুষের সঙ্গে সর্বস্তরের সাংবাদিকদের কাছে এক বড় প্রশ্ন। কোন সভ্য সমাজে এটা কল্পনাও করা যায় না।

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, অবিলম্বে জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভিনসহ সাংবাদিক আরিফুলকে নির্যাতনের সঙ্গে জড়িত সকলকে ফৌজদারি অপরাধে আইনের আওতায় এনে শাস্তির মুখোমুখি করতে হবে। প্রেস রিলিজ।


আরো সংবাদ