০৩ এপ্রিল ২০২০

রূপনগরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে জামায়াত

রূপনগরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে জামায়াত - সংগৃহীত

মিরপুরের রূপনগরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটস্থল পরিদর্শন করেছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। বুধবার বিকালে দলটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ক্ষতিগ্রস্থদের প্রতি সহমর্মীতা জানান।

ঘটনাস্থল ঘুরে ঘুরে দেখেন এবং স্থানীয় জনগণসহ দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থদের সাথে কথা বলেন। তিনি এই বিপদে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের ভরসা রেখে ও সবরের সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে ক্ষতিগ্রস্থদের পরামর্শ এবং জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থদের যথাসম্ভব সহযোগিতার আশ্বাসও প্রদান করেন। তিনি নগরীতে প্রতিনিয়ত এ ধরনের রহস্যজনক অগ্নিকান্ডের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে ঘটনার কারণ অনুসন্ধান ও পুনরাবৃত্তি রোধে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন তদন্ত কমিশন গঠনের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনের পর মহানগরী আমীর এক বিবৃতিতে বলেন, আমাদের দেশে বিশেষ করে ঢাকা সিটিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা রহস্যজনকভাবে বেড়েছে। কিন্তু এসব অগ্নিকাণ্ড নিয়ন্ত্রণে সরকার বা সংশ্লিষ্ট বিভাগের আগাম কোন প্রস্তুতি থাকে না। ফলে অনাকাঙ্খিত অগ্নিকান্ডে প্রতিবছরই জানমালের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে। গত বছরের আগস্ট মাসেও রূপনগরের চলন্তিকা বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ২ হাজারেরও বেশি ঘর ভষ্মীভূত ও ৫০ হাজার মানুষ আশ্রয়হীন হয়ে পড়েছিল। সে ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে আবারও এই ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। সংশ্লিষ্ট বিভাগ আগের ঘটনায় সতর্কতা অবলম্বন করলে এখন এই ধরনের দুঃখজনক ঘটনার পূনরাবৃত্তি ঘটতো না।

তিনি বলেন, দেশে প্রভূত উন্নয়ন হয়েছে বলে সরকার পক্ষ দাবি করলেও আমাদের দেশে অগ্নিনির্বাপন প্রযুক্তি এখনও সেকেলে পর্যায়েই রয়ে গেছে। তাই যেকোন অগ্নিদুর্ঘটনায় দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা সম্ভব হয় না। অগ্নিনির্বাপনসহ যেকোন দুর্যোগ মোকাবেলায় সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিত করা গেলে জানমালের ক্ষয়ক্ষতি সীমিত ও সহনীয় পর্যায়ে রাখা সম্ভব। কিন্তু এ বিষয়ে সরকারের উদাসীনতা ও নির্লিপ্ততার কারণেই প্রতিবছরই আমাদের দেশে অগ্নিকাণ্ডে ব্যাপকভাবে জানমালের ক্ষতি হয়ে আসছে। যা কাঙ্খিত নয়। তিনি অগ্নিনির্বাপনে আধুনিক যন্ত্রপাতি সংগ্রহের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।

মহানগরী আমীর রূপনগরের ‘ত’ ব্লকের অগ্নিদুর্গতদের যথাযথ ক্ষতিপূরণসহ তাদের পুনর্বাসন এবং ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান এবং স্থানীয় সংগঠনের নেতাকর্মীদের দুর্গত মানুষের দুর্দশা লাঘবে সম্ভব সকল ধরনের সহযোগিতা করার অনুরোধ করেন।

এ সময় তার সাথে নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের সহকারি সেক্রেটারি মাহফুজুর রহমান, রূপনগর থানা আমীর নাসির উদ্দীন, কাফরুল উত্তর থানা আমীর আব্দুল মতিন খান, জামায়াত নেতা জামাল উদ্দীন ও লিয়াকত আলী প্রমূখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি


আরো সংবাদ

অসহায়দের মাঝে খাবার বিতরণ করলেন ক্রিকেটার সালমা ৭ বছর ধরে নিখোঁজ শিবির নেতার সন্ধান দাবি কুষ্টিয়ায় জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে রিকশাচালক আইসোলেশনে ৭ বছর ধরে নিখোঁজ নেতার সন্ধান চেয়ে ছাত্র শিবিরের বিবৃতি বিশ্বব্যাপী করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়েছে বিদেশে আটকেপড়া বাংলাদেশীদের সমস্যা সমাধানে দৃষ্টি রাখছে মন্ত্রণালয় করোনা রোগীর সংস্পর্শে আসা এক হাসপাতালের চিকিৎসকসহ ৭ জন হোম কোয়ারেন্টিনে দেশের কোথাও কোথাও শিলা বৃষ্টি হতে পারে করোনা নিয়ে উদ্বিগ্ন খালেদা জিয়া, শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল প্রধানমন্ত্রীর ৩১ দফা মেনে চলুন: কাদের করোনা সামলাতে পারলে ৭.৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হবে

সকল