১৩ মে ২০২১
`

মিয়ানমারে বিক্ষোভকারীদের লাশের জন্যও টাকা নিচ্ছে সেনাবাহিনী

সু চির বিরুদ্ধে নতুন মামলা
-

মিয়ানমারে নিহত বিক্ষোভকারীদের লাশ নিতেও সেনাবাহিনীকে অর্থ পরিশোধ করতে হচ্ছে নিহতদের স্বজনদের। গত শুক্রবার নিরাপত্তাবাহিনীর তাণ্ডবে নিহতদের লাশের জন্য জনপ্রতি ৮৫ ডলার করে নিচ্ছে তারা। বাংলাদেশী মুদ্রায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় সাত হাজার ১৮৯ টাকা। মানবাধিকার সংগঠনগুলো এ খবর জানিয়েছে। এ দিকে জান্তা সরকার সে দেশের ক্ষমতাচ্যুত বেসামরিক নেতা অং সান সু চির বিরুদ্ধে সোমবার নতুন ফৌজদারি অভিযোগ এনেছে।
জান্তাবিরোধী বিক্ষোভকারীদের গড়ে তোলা ব্যারিকেড অপসারণ করতে গিয়ে শুক্রবার মধ্যাঞ্চলীয় শহর বাগোতে ব্যাপক তাণ্ডব চালায় বর্মি বাহিনী। পর্যবেক্ষক সংস্থা অ্যাসিস্টেন্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনার্স (এএপিপি) জানিয়েছে, এ দিন অন্তত ৮২ বিক্ষোভকারীকে হত্যা করেছে নিরাপত্তাবাহিনী। তাদের লাশ নিতে এখন অর্থ পরিশোধ করতে হচ্ছে স্বজনদের।
বাগো ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস ইউনিয়নের এক ফেসবুক পোস্টে বলা হয়েছে, শুক্রবার নিহতদের লাশের জন্য নিহতদের স্বজনদের কাছ থেকে এক লাখ ২০ হাজার কিয়াত (৮৫ ডলার) করে নিচ্ছে সেনাবাহিনী। একই রকমের খবর দিয়েছে সংবাদমাধ্যম রেডিও ফ্রি এশিয়ার বার্মিজ সার্ভিস। তবে সিএনএনের পক্ষে স্বতন্ত্রভাবে বিষয়টি যাচাই করা সম্ভব হয়নি।
এএপিপি জানিয়েছে, ২০২১ সালের ১ ফেব্রুয়ারি সামরিক অভ্যুত্থানের পর এখন পর্যন্ত কয়েক ডজন শিশুসহ সাত শতাধিক মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। আটক করে রাখা হয়েছে হাজার হাজার মানুষকে। তবে জান্তা সরকারের মুখপাত্র মেজর জেনারেল জাও মিন তুন এ সপ্তাহে এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, তারা ২৪৮ বেসামরিক এবং ১০ পুলিশ সদস্য নিহতের ঘটনা রেকর্ড করেছে। শুক্রবারের বর্বরোচিত হত্যাযজ্ঞকে গণহত্যার সাথে তুলনা করেছেন বিক্ষোভকারীদের একজন সংগঠক ইয়ে হিট।
এ দিকে মিয়ানমারের জান্তা সরকার সে দেশের ক্ষমতাচ্যুত বেসামরিক নেতা অং সান সু চির বিরুদ্ধে সোমবার নতুন ফৌজদারি অভিযোগ এনেছে। সু চির আইনজীবীকে উদ্ধৃত করে এএফপি জানিয়েছে, সর্বশেষ অভিযোগ আনা হয়েছে প্রাকৃতিক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইনে। গত ১ ফেব্রুয়ারি সু চির নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসির (এনএলডি) নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। দেশটিতে এক বছরের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করা হয়। আইনপ্রণেতারা রয়েছেন গৃহবন্দী অবস্থায়। আর সু চিসহ এনএলডির শীর্ষ নেতারা আটকাবস্থায়। একের পর এক মামলা দেয়া হচ্ছে সু চির বিরুদ্ধে।
‘এবার সু চির বিরুদ্ধে প্রাকৃতিক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইনের ২৫ ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।’ আইনজীবী মিন মিন সোয়ে এএফপিকে বলেন, সব মিলিয়ে তার বিরুদ্ধে ছয়টি অভিযোগ আনা হয়েছে। এর মধ্যে পঁাঁচটি নেইপিডোতে আর একটি ইয়াঙ্গুনে। এর মধ্যে সব থেকে গুরুতর অভিযোগ আনা হয়েছে দাফতরিক গোপনীয়তা আইনে। মিন মিন সোয়ে নিশ্চিত করেছেন, যে সু চির স্বাস্থ্য ভালো আছে। তবে মিয়ানমারে যে উত্তাল বিক্ষোভ আর ভয়াবহ নিধনযজ্ঞ চলছে; সে ব্যাপারে সু চি অবগত কি না, তা নিয়ে সন্দিহান তিনি।



আরো সংবাদ


কোম্পানীগঞ্জে বাদলের অনুসারীদের লক্ষ্য করে মির্জা অনুসারীদের গুলি, পালাতে গিয়ে আহত ৫ হাজারতম ম্যাচে হারলেন সেরেনা নিখোঁজ অমিত শাহ’র খোঁজে দিল্লি পুলিশের কাছে মিসিং ডায়েরি মাগুরায় ২ মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ১ বাউফলে গভীর নলকূপ স্থাপন ও দুস্থদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করলেন ড. মাসুদ ইসরাইলি সন্ত্রাস বন্ধে পদক্ষেপ নিতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি বাবুনগরীর আহ্বান এবারের মতো ক্ষতির শিকার ইসরাইল আর কখনো হয়নি : হামাস ঈদ উদযাপন যাতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বৃদ্ধির উপলক্ষ না হয়ে উঠে : প্রধানমন্ত্রী করোনা : ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের ফেরার ব্যবস্থা ঈদের পর পয়েন্ট হারাল বাংলাদেশ গণজমায়েত এড়িয়ে ঈদের আনন্দ উপভোগ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

সকল