১৯ এপ্রিল ২০২১
`

কৌশলে উইঘুর মুসলিমদের সংখ্যা কমাচ্ছে চীন

-

চীনের জিনজিয়ান অঞ্চলের জনমিতি বদলে দিতে কৌশলে কাজ করছে শি জিনপিংয়ের সরকার। এর অংশ হিসেবে তারা ব্যাপকভিত্তিক কর্মপ্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এই কর্মপ্রকল্প জিনজিয়ানে সংখ্যালঘু মুসলিম উইঘুর সম্প্রদায়ের জনঘনত্ব কমাচ্ছে। উচ্চপর্যায়ের একটি গবেষণায় এমন তথ্য উঠে এসেছে। চীনা গবেষণাটির তথ্যের আলোকে জানা যায়, উইঘুর ও অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের হাজারো মানুষকে অন্যত্র স্থানান্তরের একটি নীতি বাস্তবায়ন করছে চীন সরকার। ব্যাপকভিত্তিক কর্মসংস্থান প্রকল্পের আওতায় লোকজনকে জিনজিয়ান থেকে দূরের স্থানে স্থানান্তর করা হচ্ছে। ফলে জিনজিয়ানে তাদের লোকসংখ্যা কমছে।
তবে জিনজিয়ান অঞ্চলের জনমিতি বদলে দেয়ার চেষ্টার অভিযোগ অস্বীকার করছে চীন সরকার। তাদের ভাষ্য, লোকজনের আয় বৃদ্ধি, দীর্ঘস্থায়ী গ্রামীণ বেকারত্ব ও দারিদ্র্য দূরীকরণের লক্ষ্যে জিনজিয়ান থেকে লোকজনকে অন্যত্র স্থানান্তর করা হচ্ছে। তবে চীন সরকারের দাবির বিপরীতে তথ্য-প্রমাণ ইঙ্গিত দিচ্ছে, কর্মপ্রকল্পের ওই নীতি বাস্তবায়নের সাথে জিনজিয়ানের সংখ্যালঘুদের জীবনযাপন ও চিন্তাভাবনা বদলে দিতে কর্তৃপক্ষের নেয়া বিভিন্ন কার্যক্রমের মিল রয়েছে। কর্মপ্রকল্পের এই নীতিটি জোরজবরদস্তিমূলক।
উইঘুরসহ অন্য সংখ্যালঘুদের জন্য জিনজিয়ানে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে অনেক ‘পুনঃশিক্ষণ’ শিবির তৈরি করা হয়েছে। এসব শিবিরে মগজ ধোলাই থেকে শুরু করে মানবতাবিরোধী অপরাধ সঙ্ঘটনের অভিযোগ রয়েছে। ২০১৭ সালের দিকে জিনজিয়ান থেকে শ্রম স্থানান্তরের নীতিটি জোরদার হতে শুরু করে। এ নিয়ে তখন চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে খবরও প্রচার করা হয়। ভিডিও রিপোর্টে জিনজিয়ান থেকে লোকজনকে অন্যত্র চাকরির জন্য নেয়ার বিষয়টি উঠে আসে। পুরনো সেই ভিডিও রিপোর্টেই স্পষ্ট যে জিনজিয়ানের লোকজন চাকরির জন্য স্বেচ্ছায় অন্যত্র যেতে ইচ্ছুক নন। তারা জবরদস্তির মুখে অন্যত্র যেতে বাধ্য হন।

 



আরো সংবাদ