২৬ জানুয়ারি ২০২১
`

চীনে প্লেগ আক্রান্ত রোগীর সন্ধান

-

করোনাভাইরাসের পর এবার চীনে সম্ভাব্য বিউবনিক প্লেগে আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে। ওই ব্যক্তি বেইজিংয়ের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত মঙ্গোলিয়ার বায়ান্নুর শহরের বাসিন্দা। গত রোববার (৫ জুলাই) শহরজুড়ে জারি করা হয়েছে ৩ মাত্রার প্লেগ প্রতিরোধ সতর্কতা। প্রশাসনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ২০২০ সালের শেষ পর্যন্ত এই সতর্কতা জারি থাকবে। রোগটি মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ।
প্লেগের তিনটি ধরনের একটি হলো বিউবনিক প্লেগ। বন্য ইঁদুর এবং ইঁদুরজাতীয় প্রাণীর শরীরে এক ধরনের পোকা জন্মায়। সেই পোকার মাধ্যমেই বিউবনিক প্লেগের ব্যাকটেরিয়া সংক্রমিত হয় বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, দ্রুত এই ব্যাকটেরিয়া একজনের শরীর থেকে অন্যের শরীরে ছড়ানোর আশঙ্কা থাকে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইনেও সতর্ক করে বলা হয়েছে, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে চিকিৎসা না হলে এই রোগ থেকে মৃত্যু হতে পারে। গত শনিবার মঙ্গোলিয়ার একটি হাসপাতালে অজানা রোগ নিয়ে ভর্তি হন এক রোগী। শনিবার সন্ধ্যায় চিকিৎসকরা বুঝতে পারেন, ওই রোগী বিউবনিক প্লেগে আক্রান্ত হয়েছেন। এটি একটি সংক্রমক এবং ভয়াবহ অসুখ। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যু হতে পারে। বিউবনিক প্লেগ বোঝার পরেই চিকিৎসকরা স্থানীয় প্রশাসনকে খবর দেন। আর গত রোববার প্রশাসন তৃতীয় স্তরের হাই অ্যালার্ট জারি করে। মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমণের ঝুঁকি ঠেকাতে বাড়তি সতর্কতা নেয়ার জন্য স্থানীয়দের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বায়ান্নুর স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ।

 



আরো সংবাদ