১১ জুলাই ২০২০

ট্রাম্প-রাশিয়া সংক্রান্ত রিপোর্ট প্রকাশে সুপ্রিম কোর্টের বাধা

-

বিগত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার সাথে ট্রাম্পের আঁতাতের অভিযোগ তদন্তের রিপোর্ট আপাতত প্রকাশ না করার নির্দেশ দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আদালত। সুপ্রিম কোর্টের এ নির্দেশে ট্রাম্প বিরোধীরা হতাশ। ২০১৬ সালের নির্বাচনে থ‘ট্রাম্প টিম’ ও রাশিয়ার মধ্যে অবৈধ যোগাযোগের অভিযোগ উঠেছিল। রাশিয়ার হ্যাকারোা ট্রাম্পের হয়ে কাজ করেছে এবং তার প্রভাব পড়েছে নির্বাচনের ফলাফলে; এমন অভিযোগও বিব্রতকর অবস্থায় ফেলেছিল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে। তবে সুপ্রিম কোর্টের এমন নির্দেশে সেই অভিযোগ থেকে ট্রাম্প টিম মুক্তি না পেলেও এর ফলে চলতি বছরের নভেম্বরে অনুষ্ঠেয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন পর্যন্ত বড় ধরনের অস্বস্তি এড়ানোর সুযোগ পেয়ে যেতে পারেন রিপাবলিকান দলীয় ডোনাল্ড ট্রাম্প।
ট্রাম্প টিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ টানা ২২ মাস ধরে তদন্ত করে ২০১৯ সালের মার্চ মাসে যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার-এর কাছে রিপোর্ট জমা দিয়েছিলেন রবার্ট মুলার। একমাস পর কিছু অংশ বাদে বাকিটা প্রকাশ করা হয়।
মার্কিন কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার (এফবিআই) সাবেক প্রধান রবার্ট মুলারের প্রতিবেদনের অপ্রকাশিত অংশ প্রকাশ করার দাবি জানিয়েছিল বিরোধী ডেমোক্র্যাট নিয়ন্ত্রিত দেশটির প্রতিনিধি পরিষদ। বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট এক রায়ে তা প্রকাশে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এর ফলে আপিল করার জন্য জুন পর্যন্ত সময় পেলো ট্রাম্প প্রশাসন। আপিল এবং আপিলের শুনানি হলে প্রতিবেদনের অপ্রকাশিত অংশ প্রকাশ নভেম্বরে অনুষ্ঠেয় নির্বাচন পর্যন্ত ঠেকিয়ে দিতে পারে ট্রাম্প প্রশাসন। ট্রাম্প-রাশিয়া আঁতাত নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের প্রতিক্রিয়ায় তীব্র হতাশা ব্যক্ত করেছেন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ও ডেমোক্র্যাট দলীয় বর্ষীয়ান নেত্রী ন্যান্সি পেলোসি। এ ছাড়া সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ে ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান দলের বিরোধী শিবিরকেও হতাশ করেছে।


আরো সংবাদ