০৭ জুন ২০২০

তালেবানের সাথে চুক্তি না হলে সব মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহার

আফগান নেতাদের প্রতি পম্পেও
-

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও দুই সপ্তাহ আগে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছ থেকে কঠিন বার্তা নিয়ে কাবুল সফর করেছিলেন। হোয়াইট হাউজে তিন বছরের বেশি সময় ধরে অবস্থানের সময় তিনি তার পররাষ্ট্রনীতিতে অন্যতম যে অর্জনটি (তথা আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠা) হাসিল করেছেন, সেটি সমুন্নত রাখতে চান, এই বার্তাই তিনি দিতে চেয়েছেন।
ট্রাম্পের বার্তা আফগান সরকারের বিবদমান নেতৃত্বের কাছে পৌঁছে দিয়ে পম্পেও বলেছেন, তাদের উচিত হবে তাদের বিরোধ মিটিয়ে ফেলা ও শান্তিচুক্তিটি অনুসরণ করা। তিনি তাদের বলে দিয়েছেন যে তারা যদি তা না করে তবে আফগানিস্তানে কেবল এক বিলিয়ন ডলার সাহায্যই হ্রাস পাবে না, সেই সাথে দেশটি থেকে সব সৈন্যও প্রত্যাহার করা হবে। সাবেক এক সিনিয়র কর্মকর্তা ও এক বিদেশী কূটনীতিবিদ এই তথ্য প্রকাশ করেছেন।
ট্রাম্প আগেও সৈন্য প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছিলেন। আসলে আফগান নেতারা ঐক্যবদ্ধ হতে অক্ষম বলেই মনে করেন তিনি। কাবুল সরকারের মধ্যে বিভাজনের ফলে তালেবানের সাথে শান্তিচুক্তির পরবর্তী করণীয়গুলো করা হচ্ছে না। ওয়াশিংটন ও তার মিত্ররা আশঙ্কা করছে যে এসব শর্ত পালন না করা হলে শান্তিচুক্তি স্থিতিশীল হবে না। আর কাবুল সরকারের মধ্যে বিভাজনের সুযোগ নিয়ে তালেবান আলোচনার টেবিলে ও রণাঙ্গনে তাদের অবস্থান মজবুত করবে।
কর্মকর্তারা বলছেন, কাবুলে অচলাবস্থা ট্রাম্পকে হতাশ করেছে। তিনি আশা করছেন যে, ২০১৬ সালে নির্বাচনী প্রচারণার সময় আফগানিস্তানে শান্তিচুক্তি করবেন বলে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, এই চুক্তির মাধ্যমে তার মুখ রক্ষা হয়েছে। করোনাভাইরাসের থাবা বিস্তার করার আগে তিনি একে তার নির্বাচনী প্রচারণায় কাজে লাগানোর উদ্যোগ গ্রহণ নিয়েছিলেন। কিন্তু কাবুলের কর্মকর্তারা তার উদ্যোগের প্রতি তেমনভাবে সাড়া না দেয়ায় কঠিন বার্তা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ট্রাম্প। ট্রাম্পের বার্তা নিয়ে কাবুল গিয়ে আশরাফ গনি ও আবদুল্লাহ আবদুল্লাহকে একসাথে মিলে কাজ করতে বলেছেন পম্পেও।
উল্লেখ্য, উভয়েই নির্বাচনে জয়ী হওয়ার দাবি করে একই দিনে প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ গ্রহণ করেছেন। আবদুল্লাহকে পম্পেও বলেছেন যে তাকে অবশ্যই গনিকে সমর্থন দিতে হবে। হোয়াইট হাউজ আশা করেছে, পম্পেও ঠিক মতোই বার্তাটি পৌঁছে দিয়েছেন। কিন্তু তবুও আশরাফ গনি ও আবদুল্লাহ ভিন্ন অবস্থানেই রয়েছেন। তারা কেউ ওয়াশিংটনের হুমকিতে তাদের অবস্থান ত্যাগ করছেন না। এ দিকে ২৭ মার্চ তালেবানের সাথে আলোচনার জন্য যে ২১ সদস্যের প্রতিনিধিদলের কথা ঘোষণা করেছেন গনি, তা তালেবান প্রত্যাখ্যান করেছে। মজার ব্যাপার হলো, তালেবানের এই প্রত্যাখ্যানের পর আবদুল্লাহ বলেছেন, এই দল আন্তঃআফগান আলোচনার পথে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।

 


আরো সংবাদ

প্রতিষ্ঠান খুলে শিক্ষার্থীদের বিপদে ফেলতে চাই না : প্রধানমন্ত্রী (২৩৯৮২)নুতন মেসি লুকা রোমেরো (১৩০৬৪)ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর স্বাস্থ্যের অবনতি (১৩০৬২)গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র উদ্ভাবিত করোনা টেস্ট কিট অনুমোদনে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে লিগ্যাল নোটিশ (১১০৭৩)শরীরে করোনা উপসর্গ, ভর্তি নিল না কেউ, স্ত্রীর কোলে ছটফট করে স্বামীর মৃত্যু (৭৪০৭)মোহাম্মদ নাসিমের অবস্থার অবনতি, জরুরি অস্ত্রোপচার চলছে (৭৩৪৫)সাবধান! ভুলেও এই ছবিটি স্মার্টফোনের ওয়ালপেপার করবেন না (৬৩৮৪)যে কারণে 'এ পজিটিভ' রক্তে করোনা আক্রান্তের ঝুঁকি বেশি (৬২৮৭)বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্ত ৬০ হাজার ছাড়ালো, নতুন মৃত্যু ৩০ (৬২১১)কেরালায় আনারস খেয়ে গর্ভবতী হাতির মৃত্যু নিয়ে সবশেষ যা জানা গেছে (৬০৬১)




justin tv