০৭ এপ্রিল ২০২০

কাশ্মিরবিরোধ নিষ্পত্তিতে গুতেরেসের মধ্যস্থতার প্রস্তাবে ভারতের ‘না’

কাশ্মির নিয়ে ভারত-পাকিস্তানের উত্তেজনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ ; ভারতকে ‘মানবাধিকার এবং মৌলিক স্বাধীনতার প্রতি সম্মান দেখানোর আহ্বান
ইসলামাবাদে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে করমর্দন করছেন গুতেরেস ও কুরেশি হএএপপি -

জাতিসঙ্ঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস কাশ্মির নিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার প্রতিবেশী দেশ ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে তীব্র উত্তেজনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং এই অঞ্চলে অসন্তোষ নিয়ে কাজ করার সময় ভারতকে ‘মানবাধিকার এবং মৌলিক স্বাধীনতা’র প্রতি সম্মান দেখানোর আহ্বান জানিয়েছেন।
গত রোববার পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশির সাথে বৈঠক শেষে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে অ্যান্তোনিও গুতেরেস এই মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘আমি বারবার সর্বাধিক সংযম অনুশীলন এবং সামরিক ও মৌখিক উভয় ক্ষেত্রেই কার্যক্রম ধাপে ধাপে কমিয়ে আনার পদক্ষেপের গুরুত্বের ওপর জোর দিয়েছি।’ এ সময় গুতেরেস আরো বলেন, ‘মধ্যস্থতার প্রস্তাবে দুই দেশ যদি রাজি থাকে, তাহলে আমার অফিস এ বিষয়ে সহায়তা করতে প্রস্তুত।’
এ দিকে গতকাল সোমবার শরণার্থীবিষয়ক আন্তর্জাতিক একটি সম্মেলনে দেয়া বক্তব্যে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান গুতেরেসের এ মন্তব্যকে স্বাগত জানিয়েছেন এবং কাশ্মির ইস্যুতে মধ্যস্থতার জন্য জাতিসঙ্ঘকে আরো বেশি কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন। পাকিস্তান দীর্ঘ দিন ধরেই কাশ্মিরবিরোধ নিষ্পত্তি করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে সম্পৃক্ত হওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়ে আসছে। অন্য দিকে ভারত বলেছে এটি দ্বিপক্ষীয় ইস্যু।
কাশ্মির নিয়ে পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে প্রায় যুদ্ধ পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ার পর গত ফেব্রুয়ারি থেকে দুই দেশ কোনো আলোচনায় বসেনি।
এ দিকে জম্মু ও কাশ্মির ইস্যুতে জাতিসঙ্ঘ মহাসচিবের দেয়া মধ্যস্থতার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে ভারত। রাববার দিল্লির তরফে বলা হয়েছে, এর বদলে পাকিস্তান ‘অবৈধভাবে ও জোর করে’ যেসব এলাকা দখল করে রেখেছে তা খালি করে দেয়ার দিকে মনোযোগ দেয়া উচিত।
ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাবিশ কুমার বলেন, ‘ভারতের অবস্থান বদল হয়নি। জম্মু ও কাশ্মির ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ ছিল, আছে এবং থাকবে। যে ইস্যুতে আলোচনার দরকার সেটি হলো পাকিস্তান অবৈধভাবে ও জোর করে যেসব এলাকা দখল করে আছে সেসব এলাকা খালি করা।’ তিনি বলেন, ‘এ ছাড়া অন্য কোনো ইস্যু যদি থাকে তাহলে আমরা দ্বিপক্ষীয়ভাবে আলোচনা করব। তৃতীয় কোনো পক্ষের মধ্যস্থতার কোনো সুযোগ বা ভূমিকা নেই।’ রাবিশ কুমার বলেন, ‘ভারত আশা করে দিল্লির বিরুদ্ধে পাকিস্তান যে আন্তঃসীমান্ত সন্ত্রাস চালাচ্ছে তার ওপর জোর দেবেন জাতিসঙ্ঘ মহাসচিব।’
জাতিসঙ্ঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস অতীতেও বিভিন্ন সময়ে প্রতিবেশী এ দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে একাধিকবার মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছেন। সর্বশেষ গত বছরের আগস্টে ভারত অধিকৃত কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধংদেহী অবস্থা তৈরি হলে নতুন করে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দেন তিনি। সেই সময় ভারতের ক্ষমতাসীন সরকার গুতেরেসের প্রস্তাব নাকচ করে দেয়।
জাতিসঙ্ঘ মহাসচিব ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বেশ কয়েকবার কাশ্মির সঙ্কটে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। তার প্রস্তাবও প্রত্যাখ্যান করে নয়া দিল্লি। আগামী সপ্তাহে ভারত সফরে আসার কথা রয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্টের।
গতকাল ইসলামাবাদে জাতিসঙ্ঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর ও পাক সরকারের আয়োজনে আফগান শরণার্থীবিষয়ক সম্মেলনে যোগ দেন অ্যান্তোনিও গুতেরেস। প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন।

 


আরো সংবাদ

দীর্ঘদিন জেলখাটা আসামিদের মুক্তির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর (২৭৯১৩)করোনা ছড়ানোয় চীনকে যে ভয়ঙ্কর শাস্তি দেয়ার দাবি উঠল জাতিসংঘে (১৭৬৭৩)গাদ্দাফিকে উৎখাতকারী জিবরিলের করোনায় মৃত্যু (১৫৭৯০)রমজান মাসে অফিসের সময়সূচি নির্ধারণ (১৪৩১৪)উকুন মারার ওষুধে ৪৮ ঘণ্টায় খতম করোনা (১৩৯১৮)করোনায় মৃতদের জানাজা-দাফনে প্রস্তুত এক ঝাঁক আলেম (১২৯১২)এবার করোনায় আক্রান্ত বাঘ (১০৬৬১)৩ ঘণ্টার রাস্তা পাড়ি দিয়েছেন ২ দিন, খরচ হয়েছে ৪ হাজার টাকা! (১০৫১৮)'মেয়েকে কোলেও নিতে পারছি না!' দূর থেকে ভেজা চোখে তাকিয়ে পুলিশ অফিসার (১০০৭২)করোনার চিকিৎসায় তুরস্কের অভূতপূর্ব পদক্ষেপ, পাল্টে যাচ্ছে চিকিৎসা পদ্ধতি (৯৭০৬)