০৯ এপ্রিল ২০২০

ফেসবুকে বিপজ্জনক বিষয়বস্তু বন্ধে কঠোর আইন চান জাকারবার্গ

-

ফেসবুকে বিপজ্জনক অনলাইন কন্টেন্ট বন্ধের জন্য বিভিন্ন রাষ্ট্রের প্রতি আরও কঠোর আইন করার আহ্বান জানিয়েছেন ফেসবুকের প্রধান মার্ক জাকারবার্গ। জার্মানির মিউনিখে নিরাপত্তা বিষয়ক এক সম্মেলনে এ আহ্বান জানান তিনি।
রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন বিষয়ে ফেসবুকের নীতির কারণে তার এই ফেসবুক ব্যাপক সমালোচনার শিকার হয়েছে। এ নিয়ে অনেক সমালোচনা শুনতে হয়েছে তাকে। এরই পরিপ্রেেিত তিনি বলেন, কোনো বক্তব্য আইনসম্মত ও বৈধ কি না তা বিচার করা ফেসবুকের মতো কোনো প্রতিষ্ঠানের কাজ হতে পারে না। তবে একই সাথে সামাজিক মাধ্যম নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত কড়াকড়ি করা হলে সেটি মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে ুণœ করবে বলে উল্লেখ করেন তিনি। এ বিষয়ে জাকারবার্গ চীনের উদাহরণ দেন।
সাম্প্রতিক বছরগুলোতে অনলাইনে মিথ্যা খবর ও গুজব ছড়ানো বন্ধের জন্য ফেসবুকের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর ওপর চাপ বাড়ছে। ফেসবুক ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রে এবং পরের বছর সারা বিশ্বের জন্য রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন বিষয়ে নতুন নীতিমালা চালু করে। নীতিমালার মধ্যে অন্যতম ছিল, নির্দিষ্ট ওই প্রচারণার জন্য অর্থ প্রদানকারীর নাম-পরিচয় বিজ্ঞাপনে উল্লেখ করতে হয় এবং ওই বিজ্ঞাপনের একটি কপি পাবলিকলি সার্চ করা যায় এমন ডাটাবেজে পরবর্তী সাত বছর পর্যন্ত সংরণ করা হয়। কিন্তু এ সপ্তাহে ফেসবুক ঘোষণা দিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ার তারকাদের স্পন্সর করা রাজনৈতিক পোস্ট সংস্থাটির ডাটাবেজে আর সংরণ করা হবে না। তা ছাড়া কোম্পানির নীতি অনুযায়ী রাজনীতিবিদদের পোস্টগুলোর সত্য-মিথ্যাও সব সময় যাচাই করা হয় না; যে কারণে ওই সম্মেলনে জাকারবার্গ আইন কঠোর করার গুরুত্ব তুলে ধরেন।


আরো সংবাদ

গরম পড়লে কি করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমে যাবে? সৌদি রাজ পরিবারের ১৫০ সদস্য করোনায় আক্রান্ত সাঈদীর মুক্তি চেয়ে সাতকানিয়ার শতাধিক সামাজিক সংগঠনের বিবৃতি ভারতের গোয়েন্দা ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি করল পাকিস্তান ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে নারীর শরীরে করোনা শনাক্ত নারায়ণগঞ্জ ফেরত যুবকের শরীরে করোনা, সৈয়দপুরে ২০ বাড়ি লকডাউন চীনের অভিজ্ঞতা থেকে শিখছে বাংলাদেশ : প্রধানমন্ত্রী চান্দিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২, আহত ১ ব্রিটেনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশী চিকিৎসকের মৃত্যু পাবনার আইসোলেশন থেকে পালানো রোগী দিনাজপুরে উদ্ধার করোনাভাইরাসের কারণে অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশ সফর স্থগিত

সকল