২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

বিপুল লাভ সত্ত্বেও কেন হাজার হাজার ছাঁটাই? গুগলের বিরুদ্ধে সোচ্চার কর্মী সংগঠন

বিপুল লাভ সত্ত্বেও কেন হাজার হাজার ছাঁটাই? গুগলের বিরুদ্ধে সোচ্চার কর্মী সংগঠন - ছবি : সংগৃহীত

শিগগিরই চাকরি যেতে চলেছে গুগলের ১২ হাজার কর্মীর। আলফাবেটের পক্ষ থেকে সম্প্রতি এমনই ঘোষণা করা হয়েছে। কর্মীছাঁটাইয়ের সব দায় নিজের কাঁধে নিয়ে ক্ষমাও চেয়েছেন গুগল সিইও সুন্দর পিচাই। আর এই নিয়েই এবার ক্ষোভ উগরে দিয়েছে আলফাবেট কর্মী ইউনিয়ন। তাদের অভিযোগ, বিপুল অর্থ লাভ হচ্ছে কোম্পানির। তা সত্ত্বেও কর্মী ছেঁটে হাজার হাজার তরুণ-তরুণীকে অন্ধকারের দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। এটি একেবারেই কাম্য নয়।

আলফাবেট কর্মী সংগঠনের এডব্লিউইউয়ের তরফে গুগলের সিদ্ধান্তকে একহাত নিয়ে বলা হয়, কর্মীদের প্রতি এহেন আচরণ মেনে নেয়া যায় না। গত বছরই এই কোম্পানি ১৭ বিলিয়ন ডলার লাভ করেছে। সেখানে ১২ হাজার ছাঁটাই করে স্বস্তি খোঁজার চেষ্টা করছে তারা। এগার শ'রও বেশি সদস্য নিয়ে তৈরি বেসরকারি এই শ্রমিক সংগঠনের আরো দাবি, আলফাবেট কর্মীদের দিয়ে প্রচুর কাজ করায়। অক্লান্ত পরিশ্রম করতে হয় তাদের। তা সত্ত্বেও তাদের নিরাপত্তা নিয়ে বিন্দুমাত্র চিন্তা করা হয় না। আগামী দিনে শেয়ারহোল্ডারদের সুবিধা করে দিতেই এমন অমানবিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে গুগল বলেও সরব শ্রমিক সংগঠন। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, 'এই খবরই সংস্থার কাজের পরিবেশকে উন্নততম করার ক্ষেত্রে আমাদের আরও ঐক্যবদ্ধ করে তুলল।'

সম্প্রতি বিল গেটসের কোম্পানি মাইক্রোসফটের তরফে প্রায় ১১ হাজার কর্মী কমিয়ে ফেলার খবর এসেছিল। তারপরই গুগল সিইও সুন্দর পিচাই ই-মেইল করে কর্মীদের দুঃসংবাদ দেন। বলেন, 'অত্যন্ত দুঃখের সাথে জানাচ্ছি, আমরা আনুমানিক ১২ হাজার কর্মী কমিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বিভিন্ন বিভাগের কর্মীদের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতেই এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। ইতিমধ্যেই মার্কিন মুলুকের কর্মীদের ই-মেইল মারফৎ এই খবর পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। অন্য দেশের কর্মীরাও শিগগিরই ই-মেইল পাবেন। সেখানকার নিয়মকানুন মেনে ই-মেইল করা হবে বলে খানিকটা বেশি সময় লাগছে।'

১২ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের অর্থ মোট কর্মী সংখ্যার ৬ শতাংশ কমিয়ে ফেলা। আগামী দিনের প্রতিযোগিতার বাজারের কথা মাথায় রেখেই এহেন সিদ্ধান্ত বলেও জানায় গুগল। কিন্তু এত পরিমাণ লাভের পরও কেন কর্মীদের বেকারত্বের দিকে ঠেলে দেয়া হলো, তা নিয়েই প্রশ্ন তুলল কর্মী সংগঠন। যদিও কোম্পানির তরফে এ প্রশ্নের এখনো কোনো সদুত্তর মেলেনি।
সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন


আরো সংবাদ


premium cement