০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ৪ জিলহজ ১৪৪৩
`

এরপর কোকা কোলা কিনবেন মাস্ক!

এরপর কোকা কোলা কিনবেন মাস্ক! - ছবি : সংগ্রহ

টুইটারের পর কি এবার ঠান্ডা পানীয় প্রস্তুতকারী সংস্থা কোকা কোলার দিকে নজর দিলেন আমেরিকার ধনকুবের ইলন মাস্ক? সদ্য একটি টুইট করে তেমনই শোরগোল ফেলে দিলেন টেসলা মহাকর্তা মাস্ক। বৃহস্পতিবার ভোরে নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে মাস্ক লেখেন এর পর ‘কোকা কোলা কিনতে চলেছেন’ তিনি। শুধু তাই নয়, কোকা কোলা ক্রয় করে তাতে ‘ফের কোকেন মিশিয়ে দেবেন’ বলেও জানান তিনি।

প্রকাশের সাথে সাথেই ভাইরাল মাস্কের টুইট। ইতিমধ্যেই প্রায় ১৫ লাখ মানুষ পছন্দ করেছেন টুইটটি, রিটুইট হয়েছে প্রায় সাড়ে তিন লাখ বার। জল্পনা শুরু হওয়ার কিছু ক্ষণ পরই ফের টুইট করে টুইটারকে মজার জায়গা করে তোলার আহ্বান জানান মাস্ক। তবে মাস্ক যে সব সময় ঠাট্টা করেন না, সদ্য টুইটারের মালিকানা দখলই তার প্রমাণ।

মাস্ক-ভক্তরা মনে করিয়ে দিচ্ছেন, ২০১৭ সালে একইভাবে টুইটারের দাম জিজ্ঞেস করেছিলেন তিনি। তখন ঠাট্টা মনে হলেও ৫ বছর পর ৪৪০০ বিলিয়ন ডলারে টুইটার কিনে মাস্ক প্রমাণ করেন যে তিনি আদৌ ঠাট্টা করছিলেন না। তবে কেউ কেউ বলছেন টুইটার কিনতে পারলেও কোকা কোলা কেনা সম্ভব নয় মাস্কের পক্ষে। কারণ বর্তমানে কোকা কোলার মোট বাজারমূল্য ২৮৪০০ কোটি ডলার। যা মাস্কের মোট সম্পত্তির থেকেও অনেকটাই বেশি।

উল্লেখ্য, আটলান্টার এক ওষুধ বিশেষজ্ঞ জন পেমবার্টন কোকা কোলার আবিষ্কর্তা। ১৮৮৫ সালে পেমবার্টন যে ফর্মুলায় এই পানীয় প্রস্তুত করেন তাতে কোকা পাতার নির্যাস ব্যবহার করা হতো, এটি মাদক দ্রব্য কোকেনের একটি রূপ। কোকা কোলার ‘কোকা’ শব্দটির আগমন সেখান থেকেই। কিন্তু স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখে ক্রমে কোকেনের পরিমাণ কমতে থাকে ঠান্ডা পানীয়টিতে। অবশেষে ১৯২৯ সালে পুরোপুরি বাদ দিয়ে দেয়া হয় কোকেন।
সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা


আরো সংবাদ


premium cement