২৪ নভেম্বর ২০২০

ফেসবুকে মাসে ভিডিও দেখে ১২৫ কোটি ব্যবহারকারী

ফেসবুকে মাসে ভিডিও দেখে মাসে ১২৫ কোটি ব্যবহারকারী - ছবি : সংগৃহীত

ফেসবুকে ভিডিও দেখার ফিচার `ওয়াচ'-এ গড়ে প্রতিমাসে প্রায় ১২৫ কোটি ব্যবহারকারী প্রবেশ করছেন। আর এতে ভিডিও তৈরি ও প্রকাশ করেন মিলিয়ন সংখ্যক ভিডিও পাবলিশার।

সম্প্রতি নিজেদের এক ঘোষণায় এমনই তথ্য জানিয়েছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। ফেসবুকের ভিডিও প্রোডাক্টস বিভাগের প্রধান পরেশ রাজওয়াত বলেন, ২০১৮ সালে বিশ্বব্যাপী ‘ওয়াচ’ ফিচারটি চালুর পর অগণিত ব্যবহারকারী এতে বিভিন্ন ইভেন্ট, শো, খেলাধুলা, খবর এবং মিউজিক ভিডিও দেখে আসছেন। বর্তমানে মাসে গড়ে ১২৫ কোটি ব্যবহারকারী ফিচারটির সুবিধা ভোগ করছেন।

পরেশ বলেন, আমাদের উদ্দেশ্যই হচ্ছে যখনই কোনো ব্যবহারকারী ওয়াচে প্রবেশ করবেন, তখনই তাকে বিনোদিত করা। আমরা এটাকে এতটা সহজ করেছি যে, তিনি যা দেখতে পছন্দ করেন, সেগুলো খুব দ্রুতই পেয়ে যাবেন। তাদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু থেকে আরও বেশি ভিডিও যেন তারা দেখতে পান, সে বিষয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

ফেসবুক বলছে, করোনাকালে মানুষজন যখন স্বশরীরে খুব একটা দেখা সাক্ষাৎ করতে পারছেন না, তখন অধিক সংখ্যক ফেসবুক ব্যবহারকারী ওয়াচ ফিচারের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন। এর মাধ্যমে তারা ভিডিও নির্মাতা, শিল্পী, খেলাধুলার গেমস এবং খবর দেখার মাধ্যমে পুরো বিশ্বে কী হচ্ছে সে বিষয়ে অবগত থাকছেন।

ওয়াচ ফিচারে ‘লাইভ’ ভিডিও এর জন্য আরেকটি বিশেষায়িত সেকশন আছে উল্লেখ করে ফেসবুকের পক্ষ থেকে বলা হয়, লাতিন আমেরিকার প্রায় ১৩ দশমিক ৭ মিলিয়ন মানুষ ফেসবুক লাইভে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল ম্যাচ উপভোগ করেন। ফুটবলের কোনো ভিডিও ফেসবুকে সবচেয়ে বেশি দর্শকের দেখা ম্যাচ এটাই।

তবে মিউজিক ভিডিও ফিচারটি যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে শুধু ভারত এবং থাইল্যান্ডে চালু রেখেছে ফেসবুক। চাহিদা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এর ব্যাপ্তি আরও বাড়ানো হবে বলেও জানায় ফেসবুক। সম্প্রতি বিখ্যাত মার্কিন সংগীতশিল্পী কেটি পেরি ফেসবুকে তার ১৫তম একক অ্যালবাম প্রকাশ করেন।

ফেসবুক ওয়াচের মাধ্যমে প্রাতিষ্ঠানিক ব্রডকাস্ট মিডিয়াগুলোও উপকৃত হচ্ছে বলে দাবি ফেসবুকের। ফ্রান্সের রাষ্ট্রায়ত্ত টিভি চ্যানেল এমসিক্স-এর এক মিনিটের ভিডিও দর্শকের সংখ্যা বিগত নয় মাসে আড়াই গুণ হয়েছে। প্রায় ছয় মিলিয়নের বেশি ফেসবুক অনুসারী আছে চ্যানেলটির। থাইল্যান্ডের শীর্ষ টেলিভিশন চ্যানেল চ্যানেল-৮ তাদের নাটকের জন্য এক মিনিটের প্রমো ছয় গুণ পর্যন্ত বাড়িয়ে দিয়েছে। ফলে তাদের নাটকের দর্শক বাড়ছে ফেসবুকে আর ফেসবুক থেকে আয় কামিয়ে নিচ্ছে চ্যানেলটি।


আরো সংবাদ