১৫ জুলাই ২০২০

ভার্চুয়ালি উদযাপন হবে গার্লস ইন আইসিটি ডে

অদৃশ্য করোনা ভাইরাস দুনিয়া তোলপাড় করে ঘুরে বেড়াচ্ছে। মানুষকে ঘরে ঢুকিয়ে দিয়ে স্থবির করেছে সবকিছু। বাধ্য হয়ে ঘরে থাকা মানুষ তাই আশ্রয় নিয়েছে ভার্চুয়াল দুনিয়ায়। কর্পোরেট অফিসগুলো বাড়িতে বসেই কর্মীদের কাছ থেকে যতটা পারে কাজ করিয়ে নিচ্ছে। চলছে অফিস মিটিং, জরুরী আলোচনা, আত্মীয়-স্বজনের স্বজনের সঙ্গে যোগাযোগসহ নানা কিছু।

ঠিক একইভাবে বিভিন্ন দিবসও উদযাপনেরও চেষ্টা চলছে। যেমন আসছে ২৩ এপ্রিল 'গার্লস ইন আইসিটি ডে ২০২০'। তথ্যপ্রযুক্তি খাতে মেয়েদের অংশগ্রহণ বাড়াতে আন্তর্জাতিক টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন (আইটিইউ) দিনটি উদযাপন করে থাকে।

অন্য বছরের মতো এ বছরও দিনটিকে ঘিরে নানা কর্মসূচির আয়োজন থাকলেও তা হবে ভার্চুয়ালি।
দিনটি উদযাপনে বাংলাদেশেও জোর প্রস্তুতি চলছে। ২০ থেকে ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত সপ্তাহব্যাপী আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক-বিডিওএসএন ও ইএসডিজি ফর বিডি। সপ্তাহব্যাপী চলা ইভেন্টের নাম দেওয়া হয়েছে, ‘উইকলি অনলাইন সেলিব্রেশন অব গার্লস ইন আইসিটি-২০২০’। যার ট্যাগ লাইন থাকবে ‘ভার্চুয়ালি টুগেদার’।

২০ এপ্রিল বিডিওএসএনের পেইজে সদস্যদের ওয়েলকাম ভিডিও দিয়ে শুরু হবে অনুষ্ঠানের মূল কার্যক্রম। একইদিন থাকছে করোনা পরবর্তী আইসিটি সেক্টরে মেয়েদের জন্য কাজের সুযোগ নিয়ে সেমিনার। এই সেক্টরের মেয়েদের ফ্রি ল্যান্সিং করার সুযোগ নিয়ে হবে আলোচনা অনুষ্ঠান।

পরের দিন ২১ এপ্রিল থাকছে ফ্রি ল্যান্সিং ক্যারিয়ার শুরু বিষয়ক ওয়ার্কশপ। এছাড়াও থাকছে আইসিটি প্রফেশনালদের অন্যধরণের দক্ষতা নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠান। গ্রাফিক্স ডিজাইন ও ওয়েব ডেভেলপমেন্ট ওয়ার্কশপ।

আলোচনা হবে আইসিটি সেক্টরের সুযোগ কাজে লাগানো বা চাকরির ক্ষেত্রে রিজিউম লেখার সঠিক উপায় নিয়ে। উচ্চতর ডিগ্রির জন্য বিদেশ যাওয়ার বিষয়ে টকশো থাকবে। অনলাইনের মাধ্যমে মেয়েদের জন্য আয়োজন করা হয়েছে ক্যারিয়ার সামিটেরও। আছে প্রোগ্রামিং কনটেস্ট। ২৭ এপ্রিল ক্লোজিং ভিডিও দিয়ে শেষ হবে সপ্তাহব্যাপী চলা অনুষ্ঠান। এসব অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন দেশের আইসিটি সেক্টরের নামকরা ব্যক্তিরা।

এ বিষয়ে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবোটিকস ও মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ও বিডিওএসএনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ড. লাফিফা জামাল বলেন, প্রতিবছর এপ্রিলের শেষ সপ্তাহে বিশ্বব্যাপী পালিত হয় গার্লস ইন আইসিটি ডে। এ দিবসের মূল উদ্দেশ্য তথ্যপ্রযুক্তিতে নারীদের আগ্রহী করে তোলা। আমাদের মেয়েরা তাদের শিক্ষাজীবনের প্রতিটি স্তরেই তাদের যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে আসছে। কিন্তু তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে তাদের অংশগ্রহণ আশানুরূপ বাড়ছে না।

তিনি বলেন, বর্তমানে করোনার এ দুঃসহ সময়ে আমরা দেখছি তথ্যপ্রযুক্তিই কিন্তু আমাদের সকল কাজের মূল হাতিয়ার। কাজেই চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের এ যুগে আমাদেরও নিজেদের তৈরি করতে হবে তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষতা অর্জন করে ভবিষ্যতের সঙ্কট মোকাবিলার জন্য। প্রতিবছর এ দিনটিকে সামনে রেখে আমরা আয়োজন করি মাসব্যাপী নানা অনুষ্ঠানের।

তিনি আরো বলেন, এ বছর সপ্তাহব্যাপী আমাদের সকল কার্যক্রম হবে অনলাইন ভিত্তিক। আমি তথ্যপ্রযুক্তিতে আগ্রহী নারীদের অনুরোধ করবো সপ্তাহব্যাপী আমাদের এ আয়োজনগুলোতে সাথে থেকে দক্ষতা বাড়ানোর পাশাপাশি নিজের লব্ধ জ্ঞান দিয়ে একে অন্যকে সহায়তা করতে।

অনলাইনের অনুষ্ঠানগুলো বিডিওএসএনের ওয়েবসাইট, গার্লস আইসিটি ডে-এর ওয়েবসাইট, ফেসবুক পেইজ ও টুইটারে দেখা যাবে।

অনুষ্ঠানে সহ আয়োজক থাকছে, বিআইডাব্লিউটিএ ও আইসক। লার্নিং পার্টনার থাকবে হ্যালো অ্যাকাডেমি। মিডিয়া পার্টনার হিসেবে থাকবে ঢাকা এফএম ও আম্বার আইটি।


আরো সংবাদ

ইতালিতে ফিরে যাওয়া ১৫০ বাংলাদেশী করোনায় আক্রান্ত ঈদের আগে-পরে নয় দিন গণপরিবহন বন্ধের খবরটি সঠিক নয় কয়েকটি গণমাধ্যমে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে বানোয়াট খবর প্রকাশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ সিংড়ায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, সড়ক ভেঙে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন সারিয়াকান্দিতে বন্যায় ফসলের ব্যাপক ক্ষতি খুমেক হাসপাতালে বিক্রি হচ্ছে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট! ২১০০ সালে বিশ্বের জনসংখ্যা হবে ৮ শ’ ৮০ কোটি চবি ক্যাম্পাসে লকডাউন বাড়লো আরো ৮ দিন হঠাৎ কক্সবাজার সৈকতে ভেসে এলো বিপুল পরিমান বর্জ্য, কারণ কী? আমেরিকার সকল নাগরিককে মাস্ক পরার আহ্বান সিডিসি’র অতিরিক্ত ঘুম ও এর ক্ষতিকর দিকগুলো জেনে রাখুন

সকল