Naya Diganta

ইউক্রেনে পরিস্থিতি অত্যন্ত গুরুতর : ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

ইউক্রেনে পরিস্থিতি অত্যন্ত গুরুতর : ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

ইউক্রেনে অত্যন্ত গুরুতর পরিস্থিতি চলছে বলে মন্তব্য করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের জোরালো আশঙ্কার মধ্যেই বৃহস্পতিবার এক টুইটে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

টুইটে বরিস জনসন বলেন, ‘ইউক্রেনে অত্যন্ত গুরুতর পরিস্থিতি চলমান রয়েছে। এ সপ্তাহান্তে আমি অংশীদারদের সঙ্গে আলোচনার জন্য (মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলন) সফরে যাব। পশ্চিমারা ঐক্যবদ্ধ রয়েছে। উত্তেজনা প্রশমন ও সংলাপই সামনে অগ্রসর হওয়ার একমাত্র পথ।’

এদিকে, ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের হালনাগাদ গোয়েন্দা মূল্যায়নে বলা হয়েছে, কোনো সতর্কতা ছাড়াই ইউক্রেনে হামলা চালাতে পারে রাশিয়া।

আর, ব্রিটিশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমন্সের ফরেন অ্যাফেয়ার্স কমিটির চেয়ারম্যান টম টুগেনধাত বলেছেন, রাশিয়া এর আগেও মিথ্যাচার করেছে এবং তা অব্যাহত রেখেছে। ফলে দেশটির কথায় যুক্তরাজ্যের বিশ্বাস করা উচিত নয়। রাশিয়া ইউক্রেন আক্রমণ করবে কি-না, তা শুধু একজন ব্যক্তিই জানেন, কিন্তু তিনি চুপ করে আছেন। তিনি হলেন ভ্লাদিমির পুতিন।

অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন দাবি করেছেন—ইউক্রেনে হামলা চালাতে রাশিয়া অজুহাত খুঁজছে। কয়েক দিনের মধ্যেই এ হামলা চালানো হতে পারে বলে আশঙ্কা তাঁর।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপচারিতায় এসব কথা বলেন বাইডেন। একই সঙ্গে ইউক্রেন-রাশিয়া সংকটের কূটনৈতিক সমাধান এখনো সম্ভব বলে জানিয়েছেন তিনি। খবর বিবিসির।

রাশিয়া যে ইউক্রেনে হামলার পথে হাঁটছে—এমন দাবি আগে থেকেই করে আসছে যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলো। তবে এসব দাবিকে ‘ভিত্তিহীন’ বলে উড়িয়ে দিয়েছে মস্কো।

সম্প্রতি ইউক্রেন সীমান্ত থেকে সেনা সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে বলেও ঘোষণা আসে রাশিয়ার পক্ষ থেকে। তবে এ ঘোষণাকে ‘মিথ্যা’ বলে দাবি করেছে পশ্চিমারা।