Naya Diganta

স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা, স্বামী আটক

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলায় পারিবারিক কলহের জেরে লিপি বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার স্বামী রুবেল সরদার। আজ বুধবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার মাছপাড়া ইউনিয়নের বরুরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় স্থানীয়রা ঘাতক স্বামী রুবেল সরদারকে আটক করে পাংশা থানা পুলিশ সোপার্দ করেছে। আটক রুবেল বরুরিয়া গ্রামের ওকুল সরদারের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গৃহবধূ লিপির স্বামী রুবেল সরদার মাছের ব্যবসা করতেন। কিন্তু বর্তমানে তিনি কোনো কাজকর্ম করতেন না। এ নিয়ে তাদের সংসারে প্রায়ই ঝগড়া হতো।

জানা গেছে, বুধবার খুব সকালে সাজগোজ করে স্ত্রী-স্বামী এলাকায় ঘুরতে বের হন। সেখান থেকে ফিরেই এই হত্যাকাণ্ডের শিকার হন লিপি।

মাছপাড়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের সদস্য মোন্তাজ উদ্দীন খান বলেন, রুবেল মাদকাসক্ত ও মানসিক রোগী হিসেব পরিচিত ছিলেন। রুবেলের তিনটি সন্তান রয়েছে। লিপির বাবার বাড়ি পাংশা উপজেলার সাজুরিয়া গ্রামে।

রাজবাড়ীর সহকারী পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) সুমন সাহা জানান, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে এবং অভিযুক্ত স্বামী রুবেল সরদারকে আটক করে।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের জের ধরেই এই হত্যাকাণ্ড হয়েছে।