Naya Diganta

রাজশাহীতে বাবা-ছেলেসহ বিভিন্ন স্থানে ৫ জন নিহত

রাজশাহীতে সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-ছেলেসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো একাধিক ব্যক্তি। তারা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
রাজশাহী ব্যুরো জানায়, রাজশাহীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় বাসচাপায় বাবা-ছেলে ও এক মোটরসাইকেল চালক ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। গতকাল সকালে জেলার গোদাগাড়ী উপজেলার বিজয়নগর বাসলিতলা এলাকায় রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, সকালে বিআরটিসি বাসের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী বাবা ও ছেলে নিহত হয়। অপর দিকে একই সময়ে রাজশাহী নগরীর আহম্মেদনগরে রাজশাহী-নওগাঁ মহাসড়কে বাসচাপায় এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। গোদাগাড়ীতে নিহত বাবা ও ছেলে ‘দীপশিখা’ এনজিওর কর্মী দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাটা থানার আবদুল আজিজের ছেলে সাজু মিয়া (৩২) ও তার সাত বছরের স্কুল শিক্ষার্থী আবদুল্লাহ আল-আলিফ। মোটরসাইকেল আরোহীর নাজমুল ইসলাম (২৯) পেশায় পল্লী চিকিৎসক ছিলেন। গোদাগাড়ী প্রেমতলী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ কামরুজ্জামান মিয়া জানান, নিহত সাজু মিয়া দীপশিখা নামে একটি এনজিওতে কর্মরত ছিলেন। গোদাগাড়ীতে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকেতেন। তার ছেলে আবদুল্লাহ আল-আলিফকে গোপালপুর কিন্ডারগার্টেন স্কুলে দিতে যাচ্ছিলেন। পথে বিআরটিসি বাস তাদের মোটরসাইকেলটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে বাবা ও ছেলে নিহত হয়। তবে বিআরটিসি বাসটি গাছের সাথে লেগে ক্ষতিগ্রস্ত হলেও কোনো যাত্রী, চালক বা হেলপার হতাহত হননি। এ দিকে প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, শালবাগান ওয়াসা অফিসের সামনে এক বাস মোটরসাইকেলটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল চালক নিহত হন।
যশোর অফিস জানায়, যশোরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় শামিম হোসেন (২৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন তার চাচাতো ভাই স্কুলছাত্র নয়ন। নিহত শামিম যশোর সদরের নতুনহাট এলাকার মোমিন উদ্দিনের ছেলে এবং নয়ন শহরের পালবাড়ি গাজীরহাট এলাকার হাসান আলীর ছেলে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে যশোর সদর উপজেলার বাহাদুরপুর এলাকায় (যশোর-মাগুরা সড়কে) এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। গুরুতর অবস্থায় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিলে দুইজনের মধ্যে শামিমকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন কোতোয়ালি থানার ওসি তাজুল ইসলাম বলেন, একটি প্রাইভেটকে সাইড দিতে গিয়ে বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী একজন নিহত ও একজন আহত হয়। মোটরসাইকেলটি পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।
ফরিদপুর সংবাদদাতা জানান, ফরিদপুরে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে বাস দুর্ঘটনায় চালক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো অন্তত ১০ জন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে নগরকান্দা উপজেলার ডাঙ্গী ইউনিয়নের ডাঙ্গী-বটতলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। ভাঙ্গা হাইওয়ে পুলিশের এসআই সোহানূর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ইসলাম পরিবহনের দুর্ঘটনাকবলিত বাসটি বৃহস্পতিবার ভোরে ডাঙ্গী বটতলা এলাকায় এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে গাছের সাথে ধাক্কা খায়। এতে বাসচালক ঘটনাস্থলেই নিহত হন। একই ঘটনায় অন্তত ১০ জন বাসযাত্রী আহত হয়েছেন। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি জানান, নিহতের সুমন (৪০) বাসচালকের বাবার নাম বজলু। তবে তার বিস্তারিত পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ।