Naya Diganta

প্রশ্নোত্তর

রায়হান গাজী : একজন মুসলিম কি পূজার চাঁদা দিতে পারে?
শায়খ আহমাদুল্লøাহ : একজন মুসলিম পূজার চাঁদা দিতে পারে না। আমাদের খুব ভালো করে মনে রাখা উচিত যে, পূজা একটি উপাসনা। যা হিন্দু ভাই-বোনেরা করে থাকেন। তাদের ধর্মীয় স্বাধীনতার জায়গা থেকে তারা এটি করে থাকেন। এটি তাদের বিষয়। পূজাতে সহযোগিতা করা মানে পূজাতে বিশ্বাস করা। আপনি যদি জানেন যে, কোনো কাজ অন্যায় বা গুনাহের কাজ, পাপের কাজ, আল্লাহ নিষেধ করেছেন; এমন কাজে অর্থায়ন করার মানে হলোÑ আপনি
আল্লøাহর নিষেধাজ্ঞাকে মানেন না অর্থাৎ ঈমান থাকা না থাকার প্রশ্ন এসে যাচ্ছে। আর যদি এটি জ্ঞানস্বল্পতার কারণে হয়ে থাকে তাহলে এটি একটি ত্রুটি। আল্লøাহ বলেছেন, ‘সীমালঙ্ঘন ও পাপের কাজে তোমরা একে অপরকে সহযোগিতা করো না।’ যার ধর্মকর্ম সে করুক; তার স্বাধীনতা আছে। কিন্তু আপনি মুসলমান হয়ে তাকে সহযোগিতা করতে পারেন না। পূজায় সহযোগিতা করা নিতান্তই চিন্তাগত ও আদর্শগত দেউলিয়াত্ব ছাড়া কিছুই নয়। আমরা যতটুকু জানি, মুসলমানদের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মাণে অন্য ধর্মের লোকদের সহায়তা কামনা করা হয় না। হিন্দু ভাইদের ধর্ম তারা পালন করুক; এ বিষয়ে তারা রবের সাথে বোঝাপড়া করবেন। আমরা তাদেরকে যেমন বাঁধা দেবো না বা ক্ষতিগ্রস্ত করব না তেমনিভাবে আর্থিকভাবে সহযোগিতাও করতে পারি না। অনেক ব্যবসায়ী এ জাতীয় অনুষ্ঠানে টাকা দিয়ে থাকেন। এটি আসলে গুনাহের কারণ। আপনি অন্যায় জানতে পেরেও সেখানে টাকা দিচ্ছেন। নিশ্চয় আপনার বিশ্বাসে দুর্বলতা আছে অথবা আপনি জেনে বুঝে অন্যায় করছেন। আল্লাহ আমাদের বোঝার তাওফিক দান করুন। আমীন।