Naya Diganta

কিশোরীকে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার



রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে বিয়ের প্রলোভনে কৌশলে অপহরণ করে এক কিশোরীকে (১৫) ধর্ষণের অভিযোগে ইউসুফ (২৫) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ৭টার দিকে তাকে গ্রেফতার করে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ।

এর আগে ভুক্তভোগী কিশোরীর মা বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় এঅভিযোগ দায়ের করেন। অভিযুক্ত ইউসুফ ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার দক্ষিণ চর মাধবদিয়া দিরাজতুল্লা ডাংগী গ্রামের সোলায়মানের ছেলে।

শনিবার ভুক্তভোগী কিশোরীর মা অভিযোগপত্রে জানান, ইউসুফ মাঝেমধ্যেই তার মেয়ের সাথে মোবাইলে কথা বলতো। মোবাইলে কথা বলতে নিষেধ করায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে ফোন করে আরো বেশি উত্যক্ত করতো। তার মেয়েকে অপহরণ করার সুযোগ খুঁজতো। গত সোমবার (২২ নভেম্বর) আনুমানিক বেলা ১১টার দিকে মেয়েটি স্থানীয় আতর চেয়ারম্যানের বাজারে গেলে সেখান থেকে কৌশলে তাকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যায় ইউসুফ।

এর দুইদিন পর বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকাল ৯টার দিকে তার মেয়ে বাড়ি ফিরে আসে এবং বলে যে, ইউসুফ তাকে তুলে নিয়ে গিয়েছিল। ফরিদপুর কোতয়ালী থানার কামারডাঙ্গী এলাকায় এক মামার বাড়ি নিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সে ধর্ষণ করে। এ অবস্থায় সেখান থেকে
ভিকটিম বাড়ি ফিরতে না চাইলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় ইউসুফ।

এ প্রসঙ্গে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ
আব্দুল্লাহ আল তায়াবির জানান, এ বিষয়ে অভিযোগের ভিত্তিতে ওইদিন রাতেই অভিযুক্ত ইউসুফকে গ্রেফতার করা হয় এবং তদন্ত সাপেক্ষে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে তাকে রাজবাড়ীর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।