Naya Diganta

গাজীপুরে আবারো গলা কেটে হত্যা

নিহত মোসা. জোনাকি

গাজীপুরে একদিনের ব্যবধানে আবারো এক নারীকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। পারিবারিক কলহের জেরে শুক্রবার রাতে ওই নারীকে তার স্বামী গলা কেটে হত্যা করে।

মহানগরীর গাছা থানাধীন কুনিয়া তারগাছ এলাকার সাইফুল ইসলাম দুলালের বাড়ির ছাদে এ ঘটনা ঘটে।
ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী সুজন মিয়া পলাতক রয়েছে।

নিহতের নাম মোসা. জোনাকি (২২)। তিনি সুনামগঞ্জের দোয়ারবাজার থানার সুঁড়িগাঁও এলাকার রাকিব হোসেনের মেয়ে।

জিএমপি’র গাছা থানার ওসি ইসমাইল হোসেন ও স্থানীয়রা জানান, প্রায় তিন বছর আগে জোনাকি ভালোবেসে বিয়ে করেন রাজমিস্ত্রী সুজনকে। বিয়ের পর থেকে বনিবনা না হওয়ায় জোনাকি গাজীপুর মহানগরীর কুনিয়া তারগাছ এলাকার সাইফুল ইসলাম দুলালের বাড়ির চারতলায় ভাড়া বাসায় মা-বাবার সাথে থাকতেন। শুক্রবার রাতে সুজন ওই বাসায় এসে একান্তে কথা বলার কথা বলে জোনাকিকে বাড়ির পাঁচতলার ছাদে নিয়ে যায়। কিছু সময় পর গলা কাটা অবস্থায় রক্তাক্ত জোনাকি দৌড়ে নিচে নেমে আসে। স্বজনরা তাকে গুরুতর অবস্থায় শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরাত চিকিৎসক। ঘটনার পর সুজন কৌশলে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে। তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে মহানগরীর সদর থানার দেশীপাড়া এলাকার বিমান বাহিনীর টেক থেকে গলা কাটা অবস্থায় মা ও মেয়ের জোড়া লাশ উদ্ধার করা হয়। তাদের গলা কেটে হত্যা করা হয়।