Naya Diganta

মেসিদের হারিয়ে গ্রুপ সেরা ম্যানসিটি

ঘরের মাঠে পিএসজিকে হারিয়ে গ্রুপ সেরা হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোয় নাম লিখিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। পিএসজির আক্রমণভাবে ছিলেন মেসিসহ নেইমার ও এমবাপে। কিন্তু হার এড়াতে পারেনি ফরাসি দলটি। হেরে গেলেও গ্রুপ রানার্স আপ হিসেবে নক আউট পর্বে গেছে পিএসজিও।
ইতিহাদ স্টেডিয়ামে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে ফিরতি লেগের ম্যাচে ২-১ গোলে সিটির কাছে হারে পিএসজি।

ইউরোপ সেরা প্রতিযোগিতাটির গত আসরে সেমি-ফাইনালে এই সিটির বিপক্ষে দুই লেগেই হেরেছিল পিএসজি। এবার গ্রুপ পর্বে প্রথম দেখায় জিতে সেই কষ্টে কিছুটা প্রলেপ দেয় তারা। এবার দলটির মাঠে এসে আবারো হেরে বসল নেইমার-এমবাপেরা।

পাঁচ ম্যাচে চার জয়ে ১২ পয়েন্ট সিটির। দুটি করে জয় ও ড্রয়ে আট পয়েন্ট পিএসজি। ক্লাব ব্রুজের সমান চার পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে উঠেছে লাইপজিগ।

হাইভোল্টেজ লড়াইয়ে প্রথমার্ধে আক্রমণ হয়েছে বেশ। কিন্তু গোলের দেখা পায়নি কেউ। প্রথম ভাগে পিএসজির বিবর্ণ আক্রমণভাগ দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই জ্বলে উঠল। ৫০ মিনিটে দারুণ এক গোছালো আক্রমণে দলকে এগিয়ে নেন এমবাপে।

পাল্টা জবাব দিতে খুব বেশি সময় নেয়নি সিটি। ৬৩ রাহিম স্টালিংয়ের গোল। সমতা আসে ১-১। সাত মিনিট পর আবারো পিএসজি শিবিরে ভীতি ছড়ায় সিটি। তবে জেসুসের শট কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান নাভাস। খানিক পর দারুণ একটি গোল হতে পারতো নেইমারের। দি মারিয়ার সাথে বল দেয়া নেয়া করে ডি-বক্সে ঢুকে দু’জন ডিফেন্ডারের মধ্যে দিয়ে আরো সামনে এগিয়ে ওয়ান-অন-ওয়ানে লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নেন ব্রাজিলিয়ান তারকা।

৭৬ মিনিটে জয়সূচক গোল পায় সিটি। সিলভার পাসে গোলরক্ষককে পরাস্ত গ্যাব্রিয়েল জেসুস। শেষ দিকে পিএসজি কিছুটা চাপ বাড়ানোর চেষ্টা করলেও উল্লেখযোগ্য তেমন কিছুই করতে পারেনি তারা। মেসি-নেইমার-এমবাপে গড়া সময়ের সেরা আক্রমণভাগ বিচ্ছিন্ন কিছু মুহূর্ত বাদে নিজেদের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেনি।