Naya Diganta

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৮ মাস পর প্রাণ ফিরেছে

টানা ১৮ মাস বন্ধ থাকার প্রাণ ফিরেছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে। বৃহস্পতিবার থেকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (ববি) নিজ নিজ বিভাগের ব্যবস্থাপনা অনুযায়ী সশরীরে ক্লাস কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সকাল ১০টা থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়।

করোনা মহামারীর প্রকোপের কারণে ২০২০ সালের ১৬ মার্চ থেকে সশরীরে ক্লাস কার্যক্রম বন্ধ থাকে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে। এতে করে ক্যাম্পাসের সাথে শিক্ষার্থীদের বিচ্ছিন্নতা সৃষ্টি হয়। দীর্ঘ ১৮ মাস পর সশরীরে ক্লাস কার্যক্রম শুরু হওয়ায় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে আনন্দ ও উৎসাহ বিরাজ করছে।

বৃহস্পতিবার সশরীরে ক্লাস কার্যক্রম শুরু হলে বেলা ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. ছাদেকুল আরেফিন বিভিন্ন ক্লাস পরিদর্শন করেন। এ সময় ভিসি শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেন।

পরে ভিসি সাংবাদিকদের বলেন, গত ১৯ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস কার্যক্রম শুরু করার বিষয়ে নোটিশ করা হয়। ক্লাস কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীসহ সবাইকে মাস্ক পরিধানসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এজন্য ক্যাম্পাসের একাধিকস্থানে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর আগে গত ৪ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি আবাসিক হল খুলে দেয়া হয়েছে। ক্লাশ কার্যক্রমের শুরুর দিনে প্রায় ৬০ ভাগ শিক্ষার্থীর উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, বন্ধের সময়ে অনলাইনে ক্লাস হলেও তা যথার্থ ছিলো না। শিক্ষকরা বলেন, অনলাইন ক্লাসে গ্যাপ কিছুটা থেকে যায়। বিশেষ করে যেসব শিক্ষার্থী নেট সংযোগের আওতায় ছিলো না তাদের অসুবিধা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আরো বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনেই ক্লাস নেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি সব শিক্ষার্থীকে টিকার আওতায় আনার জন্য ক্যাম্পাসে একটি টিকাদান কেন্দ্র তৈরির চেষ্টা চলছে।

সূত্রমতে, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয়টি অনুষদের ২৪টি বিভাগে আট হাজার শিক্ষার্থী রয়েছে।