Naya Diganta

কোহলিদের কাছে চূর্ণ রোহিতরা

হর্ষল পাটেলের হ্যাটট্রিক। অল রাউন্ডার ম্যাক্সওয়েলের ব্যাটে বলে দারুণ ছন্দে থাকা। বিরাটের অর্ধ শতরান। সব মিলিয়ে মুম্বইকে ৫৪ রানে হারিয়ে জয়ে ফিরল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর।

রোববার টসে জিতে বিরাট কোহলিদের ব্যাট করতে পাঠান রোহিত শর্মা। প্রতিদিনের মতোই শুরুটা দারুণ করেছিলেন বিরাট। দেবদত্ত পাড়িক্কল শুরুতেই আউট হয়ে গেলেও শ্রীকর ভরতকে সাথে নিয়ে দলের রান এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন আরসিবি অধিনায়ক। ২৪ বলে ৩২ রান করে রাহুল চাহারের বলে আউট হয়ে যখন ফিরছেন ভরত, তখনো ক্রিজে ছিলেন বিরাট। গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের সাথে জুটি তৈরি করে বড় রানের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল আরসিবি।

৫১ রান করে বিরাট আউট হলেও রান তোলার গতিতে লাগাম দিতে পারছিলেন না মুম্বই বোলাররা। এমন সময় বল হাতে ম্যাচ ঘুরিয়ে দেন যশপ্রীত বুমরা। দু’বলে দু’টি উইকেট নিয়ে ফেরান ম্যাক্সওয়েল (৫৬) ও এ বি ডিভিলিয়ার্সকে (১১)। এতেই কমে যায় রান তোলার গতি। শেষ পর্যন্ত ১৬৫ রানে শেষ হয় আরসিবির ইনিংস।

৪ ওভার বল করে ৩৬ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন বুমরা। একটি করে উইকেট পান ট্রেন্ট বোল্ট, অ্যাডাম মিলনে ও রাহুল চাহার। উইকেট না পেলেও ভালো বল করেন ক্রুণাল পাণ্ড। ৪ ওভারে মাত্র ২৭ রান দিয়েছেন তিনি। তবে দলে ফিরলেও এদিন বল করতে দেখা যায়নি হার্দিক পাণ্ডকে।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে হিসাব করে খেলতে শুরু করে মুম্বই। প্রথম ২ ওভার দেখে খেলেন কুইন্টন ডি' কক ও রোহিত শর্মা। তবে তৃতীয় ওভারে কাইল জেমিসনের বলে তিনটি চার মেরে ওভার থেকে মোট ১৭ রান তুলে নেন মুম্বই অধিনায়ক। এরপর মোহাম্মদ সিরাজের ওভার থেকে আসে ৯ রান। পাওয়ার প্লে-তে যতটা সম্ভব রান তুলে রাখতে চেয়েছিলেন রোহিত। প্রথম ৬ ওভারেই উইকেট না হারিয়ে ৫৬ রান করে ফেলে মুম্বই।

তবে যুজবেন্দ্র চহাল আসতেই আউট হন ডি' কক। ডিপ মিডউইকেটের ওপর দিয়ে বড় শট খেলতে গিয়ে ম্যাক্সওয়েলের হাতে ক্যাচ দেন চহাল। সামনের দিকে ঝাঁপিয়ে ক্যাচ ধরেন তিনি।

ঈশান কিশনকে সাথে নিয়ে ইনিংস গড়ে তোলার চেষ্টা করতে থাকেন অধিনায়ক রোহিত। তবে এক দিক থেকে চহাল আর অন্য দিক থেকে ম্যাক্সওয়েল রানের গতি থমকে দেয়ায় চাপ বাড়তে থাকে তার ওপর। বড় শট খেলতে গিয়ে ম্যাক্সওয়েলের বলে আউট হন রোহিত (৪৩)। তিনি ক্যাচ দেন পাড়িক্কলের হাতে। পরের ওভারেই চহাল তুলে নেন ঈশানের উইকেট। মাত্র ৯ রান করে আউট হন তিনি।

৮ রান করে মোহাম্মদ সিরাজের বলে আউট হন সূর্যকুমার যাদব। অফস্টাম্পের বাইরের বল খেলতে গেলে বল ব্যাটের কানায় লাগে। থার্ড ম্যানে দাঁড়িয়ে থাকা চহালের হাতে জমা পড়ে বল।

হার্দিক পাটেল আউট হন মাত্র তিন রান করে। হর্ষল পাটেলের স্ক্র্যাম্বেলড সিম বলে বড় শট খেলতে গিয়ে এক্সট্রা কভারে বিরাটের হাতে ক্যাচ দেন হার্দিক। পরের বলেই আউট কায়রন পোলার্ডও। বোল্ড হন তিনি। পরের বলেই রাহুল চাহারকেও আউট করে হ্যাটট্রিক করেন। ১১১ রানেই শেষ হয় মুম্বইয়ের ইনিংস।

হ্যাটট্রিকসহ চার উইকেট পান হর্ষল। দারুণ বল করেন চহাল ও ম্যাক্সয়েল। ম্যাক্সওয়েল চার ওভারে ২৩ রান দিয়ে দু’টি উইকেট পান। চহাল ৪ ওভারে মাত্র ১১ রান দিয়ে ৩ উইকেট পান। ৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে ২ উইকেট পান ম্যাক্সওয়েল। আর একটি উইকেট পান মোহাম্মদ সিরাজ।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা