Naya Diganta

ভ্যাট অনলাইন রিটার্ন জমায় ফের দেশ সেরা কুমিল্লা

কুমিল্লা ভ্যাট কমিশনারেট ২০২১-এর আগস্ট মাসে আবারো অনলাইন রিটার্ন জমায় শীর্ষস্থান অর্জন করেছে। অনলাইন ভ্যাট রিটার্ন দাখিলে সারাদেশে ১২টি ভ্যাট কমিশনারেটের মধ্যে প্রতিযোগিতায় করে এ নিয়ে ১২বার সেরা হয়েছে কুমিল্লা। অক্টোবরে প্রথম হ্যাট্রিক ২০২১-এর জানুয়ারিতে ডাবল হ্যাট্রিক, এপ্রিলে ট্রিপল হ্যাট্রিক। প্রতিনিয়ত নিজেদের ছাড়িয়ে যাওয়ার প্রতিযোগিতায় কুমিল্লা। সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশের অঙ্গীকার পূরণে ১২ বার সেরা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে যশোর ভ্যাট কমিশনারেট।

করোনা মহামারীর মধ্যেও অর্থবছরের শেষ মাসে ৮০% প্রবৃদ্ধি নিয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেয় কুমিল্লা ভ্যাট। কুমিল্লার এ সাফল্যকে আশাতীত ও নজিরবিহীন হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকরা।

জানা যায়, মাত্র এক তৃতীয়াংশ জনবল নিয়ে কমিশনার এ সাফল্য অর্জন করেছে। অর্থবছরের শুরুতে ব্যতিক্রম সেবার প্রাধিকার পরিকল্পনা প্রণয়ন করে কুমিল্লা কাস্টমস টিম। ধারাবাহিক পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে সারাদেশে করোনাকালে সরকারি অফিসগুলোর অনুপ্রেরণার বাতিঘর হয়ে ওঠে কমিশনারেট। আগস্ট ২১ মাসের রিটার্ন জমা শেষ করতে হবে ১৫ তারিখের রাত ১২টার মধ্যে। তবুও থেমে থাকেনি কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট কুমিল্লার (সিইভিসি) কর্মবিলাসী টিম। কিভাবে অনলাইন রিটার্ন দাখিল সফল করা যায়। মাসের প্রথম থেকে কমিশনারের কক্ষে মিটিং করে কর্মকর্তাদের মধ্যে কাজ ভাগ করে দেয়া হয়। অনেক কর্মকর্তা স্বেচ্ছায় গত ১০ ও ১১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার ও শনিবারের সাপ্তহিক ছুটি বাতিল করে অনলাইন রিটার্ন দাখিলের কাজ অগ্রাধিকার দেন। তাদের লক্ষ্য ছিল, কুমিল্লা ভ্যাট টিমকে ১২ বারের মতো চ্যাম্পিয়ন করা।
ভ্যাট অনলাইন প্রকল্পের ই-মেল থেকে এসব তথ্য পাওয়া যায়।

অন্যান্য কমিশনারেটগুলোও রিটার্ন দাখিলের হার ক্রমান্বয়ে বাড়ছে। বুধবার ফের সেরা হওয়ার সংবাদ পাওয়ার পর টিম অধিক কর্ম্যচঞ্চল বলেও জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জনান, নানা বৈরিতার মধ্যে কাজ করতে হয় টিমকে। অনলাইনে ভ্যাট রিটার্ন জমাদানের সময় সার্ভারে ক্রটি, বিদ্যুৎ ভোগান্তি। এবার শেষ সময়ে সার্ভার সমস্যা করায় অনলাইন রিটার্ন দাখিল নিশ্চিত করতে কর্মকর্তাদের হিমশিম খেতে হয়েছে। সার্ভার সমস্যার কারণে রিটার্ন দাখিল বিঘ্নিত হয়। নানা সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও বসে থাকেনি এ কমিশনারেটের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে কুমিল্লা ভ্যাট অন্যান্য মাসের মতো আগস্ট মাসেও অনলাইন ভ্যাট রিটার্ন জমা করেছে।

জুলাই ২১ মাসে ড্রাপসে ৬২টি রিটার্ন জমা থাকায় রিটার্ন দাখিলের হার ছিল ৯৫.৩৩%। জুলাই মাসে ড্রাপসের বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে কাজ করায় আগস্ট ২১ মাসের রিটার্ন দাখিলের হার দাঁড়ায় ৯৫.৮৩%। সাফল্যের পিছনে রয়েছে ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপায়নের অঙ্গীকারে সক্রিয় থাকা কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট কুমিল্লার (সিইভিসি) কর্মবিলাসী টিম।

এ বিষয়ে সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ ছালাউদ্দিন রিপন বলেন, সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীর মধ্যে নান্দনিক দৃশ্যমান প্রতিযোগিতা বিরাজ করছে। একটা ভালো টিমওয়ার্ক এর মাধ্যমে এ অর্জন। কর্মকর্তারা পরিশ্রম করেছেন। মাঠ পর্যায়ে যে সকল পরিশ্রমী কর্মকর্তা এতে ভূমিকা রেখেছেন তাঁদেরকে পুরস্কৃত করেছি ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি। কুমিল্লা কমিশনারেটের নেয়া ব্যতিক্রমী উদ্যোগ কুমিল্লাকে সেরার আসন ধরে রাখতে উদ্বুদ্ধ করেছে। কুমিল্লার এ স্পন্দন অন্যান্য কমিশনারেটগুলোর মধ্যে তৈরি করেছে নতুন উদ্দীপনা। ফলে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সামগ্রিক রিটার্ন পেশের হার বাড়ছে।

সূত্র : বাসস