Naya Diganta
শাহ্ আব্দুল হান্নানকে স্মরণ

মোরাল ইউনিভার্সিটি স্থাপনের প্রস্তাব

শাহ্ আব্দুল হান্নানকে স্মরণ

শাহ্ আব্দুল হান্নান মোরাল ইউনিভার্সিটি প্রস্তাবনাকে সামনে রেখে মরহুম শাহ আব্দুল হান্নান স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টায় পুরানা পল্টন ফেনী সমিতি অডিটোরিয়ামে নজরুল-ফররুখ গবেষণা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এ স্মরণসভার আয়োজন করা হয়।
স্মরণসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জাকাত ম্যানেজমেন্ট ওয়েলফেয়ারের চেয়ারম্যান ড. আশরাফ উদ্দিন আহম্মদ, প্রধান আলোচক ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য, কলামিস্ট ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব গোলাম মওলা রনি, বিশেষ অতিথি ছিলেন কলামিস্ট, লেখক ও গবেষক শাহ আব্দুল হালিম এবং লেখক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কবির আহমদ। এ ছাড়াও আলোচনায় অংশ নেন কথা সাহিত্যিক নাসীমুল বারী, ব্যাংকার মোহাম্মদ শাহজাহান ও নুরুন্নবী হাওলাদারসহ আরো অনেকে।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নজরুল-ফররুখ গবেষণা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান, লেখক ও গবেষক এমদাদুল হক চৌধুরী। সঞ্চালনায় ছিলেন ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক ও সাংবাদিক জাহিদ আবেদীন।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, শাহ আব্দুল হান্নান ছিলেন সরকারি কর্মকর্তাদের সর্বোত্তম মডেল এবং জ্ঞানতাপস। সবাইকে তিনি বই উপহার দিতেন এবং বই পড়ার কথা বলতেন। প্রধান আলোচক বলেন, তিনি আনুষ্ঠানিক ইসলামিস্ট ছিলেন না, তিনি ছিলেন প্র্যাকটিসিং ইসলামিস্ট। কথা ও কাজে তার কোনো বৈপরীত্ব ছিল না। আল্লাহ আমাদেরকে যেন জান্নাতে তার প্রতিবেশী করেন।
সভাপতির ভাষণে এমদাদুল হক চৌধুরী বলেন, বিশে^ এখন মোরালিটি সবচেয়ে বড় সঙ্কট। মরহুম শাহ আব্দুল হান্নান ছিলেন আমাদের কাছে মোরালিটির উদাহরণ। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি কুরআনিক চরিত্রের ব্যক্তি।
সবাই আলোচনায় শাহ আব্দুল হান্নান মোরাল ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠার জোর তাগিদ দেন এবং এ ব্যাপারে উদ্যোগ নেয়ার জন্য সচেতন ও সম্পদশালী লোকদের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানান। বিজ্ঞপ্তি।